বুস্ট করুন বেসাল মেটাবলিজম ( boost your metabolism)

বুস্ট করুন বেসাল মেটাবলিজম ( boost your metabolism)

আমরা মনে করি ডায়েট(diet) করলে বা সাঙ্ঘাতিক এক্সারসাইজ করলেই তরতর করে ওজন কমে যায়। অনেকে তো বিয়েবাড়ি গিয়ে নাক কুঁচকে বলেন, তারা নাকি এসব তেল মশলা দেওয়া খাবার আজকাল খাচ্ছেন না। কেন? কারণ তারা লো ক্যালোরি খাবার খাচ্ছেন। কিন্তু এত কিছু করেও যখন বাড়তি মেদ কমে না, তখন অসম্ভব হতাশ লাগে। এই হতাশার শিকড় কোথায় জানেন? আমাদের সচেতনতার অভাবে। কেন ওজন কমছেনা সেটা না বুঝেই আমরা অনেক কিছু করে ফেলি। বয়স বাড়লে দেহের শক্তি খরচের হার (rate) কমে যায়। বেসাল মেটাবলিজম (basal metabolism) কমে আসে বলেই দেহে অতিরিক্ত মেদ জমে। সুতরাং আপনার উচিৎ এমন কিছু খাদ্যবস্তু গ্রহণ করা যেগুলো খেলে মেটাবলিজম বাড়বে বা বুস্ট হবে (metabolism boost) এবং দেহের শক্তি খরচের হার বেড়ে যাবে।অতিরিক্ত শক্তি খরচ হলে সঞ্চিত ফ্যাট (fat) আপনা থেকেই বার্ন হবে। দেখে নেব এই জাতীয় খাবারগুলো কী-কী।


ডিম (egg)


ডিম একটি গরম প্রোটিন। এটি আপনার শরীরে বিপাকীয় ক্রিয়া বা মেটাবলিজম বাড়িয়ে দেয়।অতিরিক্ত মেদ কমানো যাদের লক্ষ্য তারা নিজেদের ডায়েটে অবশ্যই ডিম রাখবেন। এক্সারসাইজ করার পর ডিমের পোচ বা সেদ্ধ খেলে খুব কাজ দেয়। ডিমে আছে ভিটামিন বি ()যা বাড়তি মেদ সঞ্চয় হতে দেয়না।


egg


কলা (banana)


মাঝারি সাইজের কলায় থাকে ১২.৫ গ্রাম স্টার্চ। এটি পাকস্থলীতে অনেকক্ষণ থাকে। ফলে খিদে কম পায় এবং এনার্জি লেভেল বজায় থাকে।


কমলালেবু (oranges)


ভিটামিন সি ও অ্যানটি-অক্সিডেন্ট পূর্ণ এই ফল শুধু বাড়তি মেদ কমাবে না ইমিউনিটিও বাড়িয়ে দেবে। 


মাছ (fish)


মাছে আছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। বিশেষ করে সামুদ্রিক মাছ যেমন টুনা, ম্যাকরেল, স্যামন এই সব মাছে বেশি করে এই উপাদান থাকে। মেটাবলিজম বৃদ্ধির সঙ্গে হার্ট ও ত্বকও ভালো রাখে এই মাছ।


fish


বেরি জাতীয় ফল (berry fruits)


ষ্ট্রবেরি, রাস্পবেরি, ব্লু-বেরি, ব্ল্যাকবেরি ও ক্র্যানবেরিতে আছে প্রচুর পরিমাণে অ্যানটি-অক্সিডেন্ট। এক্সারসাইজের পর টক দইয়ের সঙ্গে বেরি জাতীয় ফল খেলে মেটাবলিজম অনেক বাড়বে। তার সাথে সাথে এই ফল রক্তের মধ্যে মিশে মাংশপেশিতে অক্সিজেন যোগ্যায় ফলে এনার্জি লেভেল বজায় থাকে।


ইওগার্ট (yogurt)


এতে আছে ক্যালশিয়াম ও প্রোটিন। তবে ইওগার্ট না পেলে বাড়িতে পাতা টক দই চলবে।ডায়েটে দই রাখা বাধ্যাতামূলক। দই শুধু মেটাবলিজম বাড়ায় না পেটের অনেক সমস্যাও দূর করে।


পানীয় জল (water) 


এটা দেখে অবাক হবেন না। জল শুধু জীবন নয় এর গুণাবলীর কথা বলে শেষ করা যাবে না। যারা কম জল পান করেন তাদের বিএমআর বা বেসাল মেটাবলিক রেটও কম হয়। জল পান করলে বেসাল মেটাবলিক ২৪-৩০% বেড়ে যায়।


ডাল ও বিনস (pulses and beans) 


অনেকেই মনে করেন ডালে অনেক প্রোটিন থাকে। তাই ক্যালোরি বাড়ার ভয়ে তারা ডাল খাওয়া ছেড়ে দেন। জেনে রাখুন ডাল হল কমপ্লিট প্রোটিন। এতে আছে ভিটামিনস, মিনারেলস, ফাইবার ইত্যাদি।প্রতিদিনের ডায়েটে মুগ, মুসুর, ছোলা, বিনস, মটরশুঁটি, রাজমা জাতীয় ডাল রাখুন। 


pulses


এছাড়াও মেটাবলিজম বাড়ানোর মতো খাবার হল প্রোটিন রিচ খাবার যেমন লিন মিট, ছানা, পনির, আপেল, কফি, গ্রিনটি, লঙ্কা ইত্যাদি।  


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!