সব সিজনে পরুন সুতির এই পাঁচটি শাড়ি (5 cotton sarees for every season)

সব সিজনে পরুন সুতির এই পাঁচটি শাড়ি (5 cotton sarees for every season)

চুপিচুপি সত্যি কথা বলব আপনাদের? কথাটা পাঁচকান করবেন না একদম। যতই এটা সেটা পরে ফ্যাশন করি না কেন আমরা, আমাদের এই প্যাচপ্যাচে গরমের দেশে সুতির পোশাকের মতো আরাম আর কিচ্ছুতে নেই। আর সুতির শাড়ি? আহা তার তো তুলনাই হয়না। শীত তো প্রায় টাটা বাই বাই জানিয়েই দিয়েছে। ছোট্ট বসন্ত পেরলেই আসছে সেই ভয়ানক গরমকাল। যার স্থায়িত্ব সবচেয়ে বেশি। গরম পড়ুক আর বরফ বরুক। সুতির এমনই মাহাত্ম্য যে সব রকমের আবহাওয়ায় পরে আরাম হয়। আর তাছাড়া আবহাওয়ার দোহাই দিয়ে কি আর আপনি ঘরে বসে থাকতে পারবেন? তাহলে? আমরা বলে দিচ্ছি সব সিজনে পরার মতো সুতির এই পাঁচটি শাড়ি  (5 cotton saree for every season)। তার চেয়ে দেখে নিন কোন সুতির শাড়ি আপনি চোখ বুজে আরাম করে পরতে পারবেন সারা বছর (every season)।


আরও পড়ুনঃ শাড়ি কেনার জন্য বেস্ট অনলাইন সাইট


সম্বলপুরী শাড়ি (saree) 


sambalpuri


ওড়িশার সম্বলপুরী শাড়িকেই এক নম্বরে রাখতে হল। এই অঞ্চলের সব শাড়িই যেন এক একটি শিল্পকর্ম। সে যেমন ইক্কত তেমনি কটকি আর তেমনি সম্বলপুরী। এই শাড়ি প্রথমে টাই অ্যান্ড ডাই করা হয় তারপর এতে নানা রকমের ফ্যাব্রিক বুনন হয়। এই শাড়ির ফুল, রথের চাকা আর শাঁখের মোটিফ যেমন আকর্ষণীয় ঠিক তেমনি পরে খুব আরাম।


তাঁতের শাড়ি


tant saree


প্রথমেই বলে রাখি তাঁতের শাড়ি নিয়ে আমাদের মনে অনেক ভুল ধারণা আছে। অনেকেই তাঁতের শাড়ি পরতে চান না কারণ নতুন অবস্থায় সেটা খরমর করে এবং সামলানো যায়না। ব্যাপারটা অতটাও কঠিন নয়। একবার দুবার পরার পর, মাড় ধুয়ে ফেললেই তাঁতের শাড়ি নরম হয়ে যায়। তাছাড়া তাঁত হল একটা টেকনিক বা পদ্ধতি। তাঁতের শাড়ি মানে শাড়ির কোনও প্রকার নয়। এটার মানে হল তাঁতে বোনা শাড়ি। তাঁতের শাড়ির অনেক প্রকার ভেদ আছে। তবে যতই বকবক করি না কেন, তাঁতের শাড়ি পরে বেশ আরাম পাওয়া যায়।


সুতির(cotton) কাঞ্জিভরম


kanjibharam


আপনি এই নামটা দেখে নিশ্চয়ই ভুরু কুঁচকে ভাবছেন, কাঞ্জিভরম শাড়ির কথা এখানে বলছি কেন? যদিও শাড়ি হিসেবে সিল্কের বা রেশমের কাঞ্জিভরম শাড়িই অনেক বেশি জনপ্রিয়। কিন্তু সুতিরও কাঞ্জিভরম হয়। সেগুলো খুব নরম এবং ওজনে অনেক হাল্কা হয়। কাঞ্জিভরম হল আসলে কর্ণাটকের কাঞ্চিপুরম অঞ্চলের শাড়ি। এই অঞ্চল থেকেই শাড়ির এই নাম হয়েছে।


খাদির শাড়ি


khadi


আরামের দিক থেকে তাঁতের শাড়ির সঙ্গে বলে বলে পাল্লা দিতে পারে যে কোনও খাদির শাড়ি। এই শাড়ির সঙ্গে জড়িয়ে আছে ভারতের ইতিহাস। ইতিহাসে পড়েছি চরকা কেটে সুতো তৈরি করে সেই দিয়ে পোশাক তৈরি করতেন মহাত্মা গান্ধী।স্বদেশী আন্দোলনের সময় বিদেশী সিল্ক বর্জন করে এই খাদি পরা প্রচলন হয় বেশি করে। এখনও হ্যান্ডলুমেই তৈরি হয় খাদির শাড়ি। গরমকালে আরাম দিতে যার জুড়ি নেই।


চান্দেরি শাড়ি


cotton chanderi


কাঞ্জিভরমের মতো মধ্যপ্রদেশের এই শাড়িও পাওয়া যায় সিল্ক ও কটন দুটোতেই। যদিও গ্ল্যামার ও আকর্ষণে সিল্কের চান্দেরি দশে দশ পাবে। তবে সৌন্দর্যের দিক থেকে কটন চান্দেরিরও কোনও জুড়ি নেই। এই শাড়ি হাল্কা এবং নরম আর এর সুন্দর অথচ স্নিগ্ধ প্রিন্ট আপনাকে এই শাড়ি কিনতে বাধ্য করবে।


 


 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!