চটজলদি বানিয়ে ফেলো গরম গরম জিলিপি! (home made jalebi recipe)

চটজলদি বানিয়ে ফেলো গরম গরম জিলিপি! (home made jalebi recipe)

রবিবাসরীয় ব্রেকফাস্ট থেকে রথের মেলায় পেট পুজো, যে কোনও সময়, যে কোনও পাতেই জিলিপির জনপ্রিয়তায় কিন্তু আজও ভাটা পরেনি। আর কেনই বা পরবে বলো! চকোলেট মিষ্টির যুগেও যে গরম জিলিপির স্বাদ এখনও অনন্য! তবে সমস্যা একটা আছে বৈকি! আর সেটা হল, আজকাল সব মিষ্টিটিরই দাম যা বেড়েছে, তাতে ১০০-২০০ গ্রামের বেশি জিলিপি কিনলেই পকেট হলকা হতে শুরু করে। আর যদি প্রথম সারির মিষ্টির দোকানে গিয়ে জিলিপির স্বাদ মেটাও, তাহলে তো কথাই নেই!


তবে ইচ্ছা হলে পকেটে ছেদ না করেও কিন্তু মন ভরে জিলিপির স্বাদ মেটানো সম্ভব! যদিও তার জন্য এই লেখাটায় একবার চোখ রাখতে হবে। কারণ আজ যে পপেক্সো বাংলার রান্না ঘরে শেখানো হতে চলেছে কম খরচে, বাড়িতেই কীভাবে জিলিপি বানানো যায়, সে সম্পর্কে (home made jalebi recipe)...


jalebi-recipe


৪-৬টা জিলিপি বানাতে প্রয়োজন পরবে (jalebi ingredients):


১. ২ কাপ ময়দা। তবে ইচ্ছা হলে পরিমাণটা একটু বাড়াতে পারেন।
২. হাফ চা চামচ বেকিং পাউডার।
৩. ১ কাপ দই।
৪. ১ চামচ এলাচ গুঁড়ো।
৫. পরিমাণ মতো সাদা তেল।
৬. দু ড্রপ ফুড কালার। এক্ষেত্রে কমলা।
৭. ১ কাপ চিনি।
৮. ২ চামচ গোলাপ জল।


jalebi cooking


 


প্রণালী:


১. একটা বড় বাটিতে পরিমাণ মতো ময়দা, বেকিং পাউডার, দই এবং ফুড কালার মিশিয়ে ভালো করে নাড়াতে থাকো। ততক্ষণ নাড়াও, যতক্ষণ না সবকটি উপাদান ঠিক মতো মিশে যাচ্ছে।
২. মিশ্রনটি বানানোর পর সেটা ২৪ ঘন্টা রেখে দিতে হবে।
৩. সস রাখার জন্য সরু মুখওয়ালা এক ধরনের প্লাস্টিকের বোতল পাওয়া যায়। তার একটা কিনে আনতে হবে। তারপর তাতে মিশ্রণটি ঢেলে নিতে হবে।
৩. এবার রসটা বানিয়ে নেওয়ার পালা। তার জন্য একটা পাত্রে পরিমাণ মতো চিনি, জল এবং গোলাপ জল মিশিয়ে বয়েল করে নিতে হবে। ততক্ষণ পর্যন্ত মিশ্রনটিকে নাড়াতে হবে, যতক্ষণ না সবকটি উপাদান ঠিক মতো মিশে গিয়ে থকথকে রসে পরিণত হয়।
৪. এর পরের ধাপে আঁচটা বন্ধ করে রসের মধ্যে পরিমাণ মতো এলাচ গুঁড়ো ফেলে ভালো করে নাড়াতে হবে।
৫. এবার একটা কড়াইয়ে পরিমাণ মতো তেল নিয়ে ভালো রকম গরম করে নিতে হবে। যখন দেখবে তেলটা বেশ গরম হয়ে গেছে, তখন আঁচটা একটু কমিয়ে নিতে হবে।
৬. এরপর সসের বোতলটা নিয়ে ধীরে ধীরে মিশ্রনটা গরম তেলের উপর ছাড়তে হবে। তবে এমনভাবে ঢালবে যাতে সেটা জিলিপির আকার নেয়।
৭. জিলিপিগুলির রং যখন ধীরে ধীরে সোনালী হতে শুরু করবে, তখন সেগুলি একটা পাত্রে সংগ্রহ করে একটা একটা করে রসে চুবিয়ে নিতে হবে।
৮. ২-৩ মিনিট জিলিপিগুলো রসে চুবিয়ে নেওয়ার পরেই পরিবেশনের পালা। প্রসঙ্গত, ইচ্ছা হলে ছোট একটা বাটিতে অল্প করে দই নিয়ে তাতে একটা জিলিপি রেখে একসঙ্গেও খাওয়া যেতে পারে। তাতে স্বাদ বাড়বে বৈকি!


তা বন্ধু, এতগুলো জিলিপি বানাতে কত খরচ হল, তা জানাতে ভুলো না যেন! তবে বাজার দরের থেকে একটু হলেও যে খরচ কম হবে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না!


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!