খেয়ে দেখুন কাঁকড়া (recipes of crab)

খেয়ে দেখুন কাঁকড়া (recipes of crab)

“খেয়ে কাঁকড়ার ঝোল পুরী হোটেলেতে/বাবু বালুতটে যান হাওয়া খেতে” স্বয়ং সত্যজিৎ রায়ের (Satyajit Ray) কলম দিয়ে বেরিয়েছিল এই লিমেরিক। সত্যিই কিন্তু একসময় পুরী হোটেলের কাঁকড়ার ঝোলের খুব সুনাম ছিল। অনেকেরই সি ফুডে অ্যালার্জি (allergy) থাকে। তাদের জন্য সমবেদনা জানাই। কিন্তু যাদের এরকম কোনও সমস্যা নেই তারা তো কাঁকড়ার নানা সুস্বাদু পদ খেতেই পারেন। তবে অনেকেই ভাবেন কাঁকড়া রান্না করার বিস্তর ঝামেলা আছে। ওই শক্ত শক্ত খোলা ভেঙে রান্না করা কি সহজ ব্যাপার? এসব ভুল ধারণা মন থেকে ঝেড়ে ফেলুন। আর শিখে নিন কাঁকড়া রান্নার এই রেসিপিগুলো। আরে বাপু অনেক কিছু তো খেয়ে দেখলেন, এবার খেয়ে দেখুন কাঁকড়া (recipes of crab)।


কাঁকড়া  (crab) ভাপে


kankra 1


উপকরণঃ কাঁকড়া ৬ টা, আদা কুচনো ৫০ গ্রাম, সয়াসস ১১ মিলিলিটার, ভিনিগার ৫ মিলিলিটার, ক্যাপসিকাম ১০০ গ্রাম, পার্সলে পাতা ১/৪ গ্রাম


প্রণালীঃ কাঁকড়াগুলো ঘষে ধুয়ে রাখুন। প্রেসারকুকারে কাঁকড়াগুলো দিয়ে ঠাণ্ডা জল ঢেলে দিন। আধ ঘণ্টা সেদ্ধ করুন। একটা আলাদা পাত্রে সয়া সস, ভিনিগার ও আদা একসঙ্গে মিশিয়ে রাখুন। প্রেসারকুকারে কাঁকড়াগুলো সেদ্ধ হওয়ার পর আদার মিশ্রণ তাতে ঢেলে দিন। কিছুক্ষণ আঁচে রেখে নামিয়ে নিন। ক্যাপসিকাম চাকাচাকা করে কেটে এবং পার্সলেপাতা কুচিয়ে উপরে ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। সয়া সসে নুন থাকে তাই আলাদা করে নুন দেবেন না। একটু টেস্ট করে দেখবেন। প্রয়োজন হলে অল্প নুন দেবেন।


কাঁকড়ার কালিয়া


kankra 2


উপকরণঃ বড় কাঁকড়া ৪ টে, পেঁয়াজ ৮ টা (সরু করে কুচনো), টম্যাটো ২ টো, রসুন ১০ কোয়া (বেটে নেবেন), আদা বাটা ১ চা-চামচ, লঙ্কা বাটা দেড় চা-চামচ, চিনি ও নুন স্বাদমতো, তেল ৩ টেবিল চামচ, ধনেপাতা আন্দাজমতো


প্রণালীঃ কাঁকড়া সেদ্ধ করে ভেঙে রাখুন। কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ লাল করে ভাজুন। টম্যাটো ও বাকি সব মশলা দিয়ে ভালো করে কষে নিন।ভালো মতো কষা হলে কাঁকড়া দিয়ে আবার কষুন। আন্দাজমতো জল, নুন, চিনি দিয়ে ফোটান। ঘন হয়ে এলে নামিয়ে উপরে ধনেপাতা কুচি করে কেটে ছড়িয়ে দিন।


কাঁকড়ার টক


kankra 4


উপকরণঃ কাঁকড়া ৪ টে, কাঁচা আম ২ টো (আম না থাকলে আমড়া দিয়েও রান্না করতে পারেন), গুঁড়ো হলুদ সামান্য, চিনি ৪০০ গ্রাম, নুন ১ চিমটে, ফোড়ন দেওয়ার জন্য সামান্য সর্ষে, তেল অল্প।


প্রণালীঃ কাঁকড়া সেদ্ধ করে নামিয়ে জল ঝরিয়ে দাঁড়াগুলো ভেঙে রাখুন। কড়াইতে অল্প তেল ঢেলে সর্ষে  ফোড়ন দিয়ে কাঁকড়া ছাড়ুন। আম ফালি করে কেটে কড়াইয়ে ছাড়ুন। নুন, চিনি, হলুদ দিয়ে নেড়েচেড়ে জল ঢালুন। খানিকক্ষণ ফুটতে দিন। ঘন হয়ে গেলে নামিয়ে নিন।


ঝাল কাঁকড়া


kankra 3


উপকরণঃ কাঁকড়া ৪০০ গ্রাম, তেল ১ চা- চামচ (কাঁকড়া ভাজার জন্য), তেল ১ চা- চামচ, রসুন এক টেবিল চামচ (কুচনো), শুকনো লঙ্কা বাটা ১ চা-চামচ, জল আধ কাপ, নুন স্বাদমতো, সয়াসস ১ চা চামচ, চিনি ১ চা- চামচ, কাঁচালঙ্কা ৬ টি (লাল ও সবুজ রঙের চেরা), ক্যাপসিকাম ১টি (চেরা), পেঁয়াজকলি সামান্য (কুচনো), ডিম ১টি (ফোটানো)


প্রণালীঃ কাঁকড়া ভেঙে মাংস বের করে ধুয়ে নিন। চার ভাগে কেটে রাখুন। দাঁড়াগুলো ভেঙে রাখুন। কড়াতে তেল খুব গরম করে কাঁকড়া ভাজুন। দাঁড়াগুলো লাল লাল ভাজা হয়ে গেলে এবং মাংস সাদা হলে নামিয়ে নিন। কড়াতে নতুন করে তেল দিয়ে গরম করে রসুন, আদা চিনি ও লঙ্কাবাটা দিন।এতে কাঁকড়া দিয়ে নাড়ুন। সয়াসস ও নুন দিন। আঁচ কমিয়ে কাঁকড়া সেদ্ধ হতে দিন। লঙ্কা, ক্যাপসিকাম, জল ও পেঁয়াজকলি দিয়ে খানিকক্ষণ নাড়ুন। ডিম দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন ডিম যেন কাঁকড়ার গায়ে লেগে না থাকে।


    


 POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!