২০২০-এর নিউ ইয়ার পার্টির পরে স্কিন কেয়ার এর কয়েকটা ছোট্ট টিপস (After Party Skin Care Tips)

২০২০-এর নিউ ইয়ার পার্টির পরে স্কিন কেয়ার এর কয়েকটা ছোট্ট টিপস (After Party Skin Care Tips)

শীতকালে এমনিতেই ত্বক একটু শুস্ক হয়ে যায়. তার ওপরে আবার নিউ ইয়ার পার্টির প্রভাব তো ত্বকে পড়েই. কারণ উল্টোপাল্টা খাওয়া, মেকআপ, রাত জাগা - সব কিছু মিলিয়ে সত্যি কথা বলতে কি স্কিনের খুব ক্ষতি হয়ে যায়. তা বলে কি আর আনন্দ করবেন না? নতুন বছরে আনন্দও করতে হবে আর তার সাথে ত্বকের যত্নও (Skincare Tips) নিতে হবে।


ত্বক বিশেষজ্ঞদের মতে, যেহেতু শীতকালে ত্বকের স্বাভাবিক তৈলাক্তভাব কমে যায় তাই ত্বক  এমনিতেই ড্রাই হয়ে যায়. তার ওপরে পার্টিতে নানা ধরণের জাঙ্কফুড, এলকোহল , ভারী মেকআপ - এগুলোর ফলেও ত্বকের ক্ষতি হয়। সব থেকে বড় সমস্যা হলো রাত জেগে জেগে পার্টি করা এবং তার পরে মেকআপ ঠিক করে না তুলেই ঘুমিয়ে পরা (After Party Skin Care Tips). এর ফলেই চোখ ফুলে থাকে, চোখের কোলে কালি দেখা যায়, পিগমেন্টেশন, ডাল স্কিনের মতো নানা ধরণের সমস্যা হয়।


আসুন দেখে নি, নিউ ইয়ার পার্টির পরে কিভাবে ত্বকের যত্ন নেবো (Skin Care After New Year Party)


আগেই বলে রাখা ভালো যে ত্বক ৪ রকমের হয় – তৈলাক্ত, শুস্ক, সংবেদনশীল আর কম্বিনেশন।


১| তেলতেলে ত্বকের যত্ন নেবার টিপস (Skincare Tips for Oily Skin)


  • নন-ড্রায়িং ফেস ওয়াশ ব্যবহার করুন।

  • সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে ভুলবেন না, তবে নন-গ্রিসি সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

  • অনেকের ধারণা আছে যে তৈলাক্ত ত্বকে ময়েশ্চারাইজারের প্রয়োজন হয় না (Skincare Tips). এটা ভীষণ ভুল ধারণা. শীতে এমনিতেই ত্বক ড্রাই হয়ে যায়. তার ওপর অতিরিক্ত মেকআপ আর উলটো-পাল্টা খাওয়া এবং ঘুমের অনিয়মের ফলে ত্বকের ক্ষতি হতে থাকে. তাই তৈলাক্ত ত্বককেও ময়েসচারাইজ করতে হয়. তবে হ্যাঁ, ওয়াটার-বেসড ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন.


after-party-skincare-tips-3


খাওয়াদাওয়া (Diet)


এলকোহল এবং মিষ্টি না খেলেই ভালো. এর ফলে ত্বকে জ্বালা করতে পারে এবং লালচে ছোপ দেখা যেতে পারে. মিষ্টি এবং এলকোহল নিলে একনেও বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে.


২| কম্বিনেশন ত্বকের যত্ন নেবার টিপস (Skincare Tips for Combination Skin)


  • বলে রাখা ভালো যে ভারতীয়দের বেশিরভাগেরই কম্বিনেশন স্কিন অর্থাৎ অয়েলি এবং ড্রাই দু'রকমের স্কিনের সম্মেলন. এক্ষেত্রে যখন ফেস ওয়াশ কিনবেন, খেয়াল রাখবেন যেন তা সুদিং হয় অর্থাৎ ত্বক যাতে শুস্ক না হয়ে যায় সেরকম ফেস ওয়াশ. ফেস ওয়াশ  দিয়ে মুখের 'টি জোন' ভালো করে পরিষ্কার করুন.

  • ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন. ক্রিম-বেসড ময়েশ্চারাইজার খুব ভালো এই ধরণের ত্বকের  জন্য. মুখের যে অংশগুলো ড্রাই, সেখানে ২-৩ বার করে ময়েশ্চারাইজার লাগান (Skincare Tips), প্রয়োজন হলে.

  • মুখের যে অংশগুলো ড্রাই, সেখানে সপ্তাহে অন্তত একবার এক্সফোলিয়েট করতে ভুলবেন না. এর ফলে মরা কোষ দূর হয় এবং নতুন সজীব কোষ ত্বকের উপরিভাবে উঠে আসতে পারে.

  • সানস্ক্রিন কেনার সময় খেয়াল রাখবেন যেন তা ক্রিম-বেসড না হয়. তাতে আপনার লোমকূপ বন্ধ হয়ে যেতে পারে এবং ময়লা জমে ত্বকে একনের সমস্যা দেখা দিতে পারে.


after-party-skincare-tips


খাওয়াদাওয়া (Diet)


আপনি যদি এলকোহল নেন কিংবা স্মোক করেন, তাহলে সেটা ছেড়ে দেওয়া ভালো, সম্ভব না হলে অন্তত কম করুন. স্মোকিং এবং ড্রিংকিং-এর প্রভাব কিন্তু ত্বকে খুব শিগগির দেখা যায়. পাফি আইস, ডাল স্কিন এগুলো সব এরই প্রভাব. প্রচুর পরিমানে জল খান.


৩| শুস্ক ত্বকের যত্ন নেবার টিপস (Skincare Tips for Dry Skin)


  • ঘুম থেকে উঠে সবার আগে কিছুক্ষন চোখে মুখে ঠান্ডা জলের ঝাপ্টা দিন. শীতকালে উষ্ণ জল ব্যবহার করতে পারেন, কিন্তু ভুল করেও গরম জল দেবেন না. গরম জল ত্বককে আরো বেশি শুকনো করে তোলে (Skincare Tips).

  • এরপর ফেসওয়াশএর বদলে ক্লেনজার দিয়ে মুখ, নাক, ঠোঁট, কানের পেছন এবং গলা ও ঘাড় পরিষ্কার করুন.


after-party-skincare-tips-1


  • টোনিংয়ের জন্য গোলাপজল ব্যবহার করতে পারেন. গোলাপজল ত্বকের আদ্রতা কমায় না. 

  • এরপর আসছে ময়শ্চারাইজার. শুষ্কত্বকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ময়শ্চারাইজার-এর ভূমিকা অনেকটা. খুব ভালো করে সারা মুখে, গলায়, হাতে ময়শ্চারাইজার লাগান. মুখে ম্যাসাজ করার সময় স্ট্রোক সবসময় ওপরের দিকে করতে হয় যাতে চামড়া আর মাসল ঝুলে না যায় (Skincare Tips). চোখের চারপাশে গোলগোল করে ম্যাসাজ করুন.


after-party-skincare-tips-2


  • ময়শ্চারাইজার লাগানোর পর অবশ্যই সানস্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না. আপনি যদি ভাবেন যে সকাল সকাল সানস্ক্রিন লাগানোর কি দরকার, বলছি দরকার আছে (Skincare Tips). সকালবেলা হলেও ইউ-ভি রশ্মি আপনার ত্বকের ক্ষতি করার জন্য যথেষ্ট.

  • বাইরে থেকে বাড়ি ফেরার পর সবার আগে যেটা করবেন, সেটা হলো মেকআপ তোলা. যেহেতু সারাদিন ধরে মেকআপ থাকার ফলে আপনার ত্বক শ্বাস নিতে পারেনা, তাই বাড়ি ফিরেই সবার আগে মেকআপ তোলাটা অত্যন্ত জরুরি. মেকআপ রিমুভার কিংবা ক্লিনসিং অয়েল দিয়ে মেকআপ তোলার পরে উষ্ণ জলে মুখ ধুয়ে নিন.


খাওয়াদাওয়া (Diet)


খুব বেশি পরিমানে জল খান. যেহেতু ত্বক শুস্ক, তাই তাকে হাইড্রেট করার জন্য শরীরে জলের পরিমান বেশি রাখাটা প্রয়োজন. স্মোকিং করলে তা একেবারেই বন্ধ করে দিন।


৪. সংবেদনশীল ত্বকের যত্ন নেবার টিপস (Skincare Tips for Sensitive Skin)


সংবেদনশীল ত্বকে যেহেতু সব প্রোডাক্ট ব্যবহার করা যায় না, তাই আমাদের মতে, আপনার যদি সংবেদনশীল ত্বক (Sensitive Skin) হয় তাহলে ডার্মেটোলোজিস্টের পরামর্শ নেওয়াটাই সবচেয়ে ভালো।


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


এগুলোও আপনি পড়তে পারেন


কীভাবে সেনসিটিভ স্কিনের যত্ন নেওয়া উচিত