শাড়ির (saree) আঁচল (drape) আর কুঁচি (pleats) ঠিক রাখার ৬টা টিপস (tips)

শাড়ির (saree) আঁচল (drape) আর কুঁচি (pleats) ঠিক রাখার ৬টা টিপস (tips)

শাড়ি (saree) পরতে না পারা আর শাড়ি পরতে ভালো না বাসা – দুটো কিন্তু আলাদা ব্যাপার, আর এরকম বাঙালি মেয়ে খুব কম পাওয়া যাবে, যে কিনা শাড়ি পরতে ভালবাসেনা! শুধু বাঙালি কেন বলছি, অনেক ভারতীয় মেয়েই শাড়ি পরতে ভালবাসে। কিন্তু সত্যি বলতে কি, শাড়ি পরে চলাফেরা করতে একটু অসুবিধে (uncomfortable) হয় বৈকি। আসলে যাদের নিয়মিত শাড়ি পরা অভ্যাস (habit) নেই, তাদের পক্ষে শাড়ি পরা এবং আঁচল (drape) ও কুঁচি (pleats) সামলে স্বচ্ছন্দে চলাফেরা (carry) করাটা একটু ঝক্কিরই ব্যাপার।এখানে রইল কয়েকটা ছোট্ট টিপস (tips), যে কীভাবে আঁচল (drape) আর কুঁচি (pleats) সামলে শাড়িতে মধ্যমণি হয়ে উঠবেন।


টিপস ১। (Tips 1) শাড়ি পরে হাঁটা প্র্যাকটিস করুন


আপনি হয়ত ভেবে রেখেছেন যে কোনও একটা অনুষ্ঠানে শাড়ি পরবেন, কিন্তু শাড়িতে (saree) আপনি খুব একটা স্বচ্ছন্দ নন (uncomfortable), এই অবস্থায় অনুষ্ঠানের ক’দিন আগে থেকে বাড়িতে শাড়ি পরা এবং শাড়ি পরে হাঁটা অভ্যাস করলে সেই অনুষ্ঠানের দিন খুব একটা অসুবিধেয় পড়তে হবে না আপনাকে। আপনি বেশ সড়গড় হয়ে যাবেন ব্যাপারটাতে।


টিপস ২। (Tips 2) আগে জুতো, তারপরে শাড়ি


আপনি শাড়ির সাথে হিলওয়ালা জুতো পরুন কিম্বা ফ্ল্যাট চটি, শাড়ি পরার আগে জুতোটা পরে নিন। জুতো আগে পরে নিলে শাড়ির কুঁচি (pleats) করতে সুবিধে হবে, কারন আপনি শাড়ির কুঁচি (pleats) কতটা নিচু করবেন, তার একটা আইডিয়া পেয়ে যাবেন। যদি আগে শাড়ি (saree) পড়েন তাহলে জুতোর সাথে শাড়ির ঝুলের হাইট ম্যাচ নাও করতে পারে, তখন আবার নতুন করে শাড়ি পরতে হবে।


টিপস ৩। (Tips 3) কুঁচি আর আঁচলে পিন করে নিন


6-vital-tips-for-draping-a-saree-and-not-trip-the-aachol 02শাড়ি পরে হাঁটতে বা এমনিই চলাফেরা করতে যাতে অসুবিধে (uncomfortable) না হয়, সেজন্য ভালো করে আঁচলে (drape) আর কুঁচিতে সেফটিপিন লাগিয়ে নিন। এতে আরেকটা সুবিধে হল আঁচল (drape) খুলে পড়ে যাবে না এবং কুঁচিও সমান থাকবে।


টিপস ৪। (Tips 4) কুঁচি যেন মেঝে ঝাড় না দেয়


অনেকেই দেখবেন এমনভাবে নিচু করে শাড়ি পড়েন যে কুঁচি মেঝেতে লুটিয়ে পড়ে। এতে একে তো শাড়ির (saree) নিচের অংশ নোংরা হয়, এবং দ্বিতীয়ত হোঁচট খেয়ে পড়ার প্রবল আশঙ্কা থাকে।


টিপস ৫। (Tips 5) আর টাইট করবেন না


পেটিকোটের গিঁট যত টাইট হবে, শাড়ি খুলে যাওয়ায় আশঙ্কা তত কম। এই ধারনা কিন্তু একেবারেই ভুল। কারন আপনার পেটিকোটের গিট বেশি টাইট হয়ে গেলে শ্বাস নিতে সমস্যা হবে এবং আপনি স্বচ্ছন্দ থাকতে পারবেন না (uncomfortable) একেবারেই।


টিপস ৬। (Tips 6) ফ্যাব্রিকের দিকে নজর দিন


6-vital-tips-for-draping-a-saree-and-not-trip-the-aachol 01শাড়ি পরার সময়, সঠিক ফ্যাব্রিক বাছাটা কিন্তু খুব গুরুত্বপূর্ণ। শিফন বা জর্জেটের শাড়ি (saree) ফসফস করে খুলে যাবার একটা আশঙ্কা সব সময়েই থেকে যায়, আবার তাঁত পরলে শাড়িটা ফুলে ফুলে থাকে। তাই আপনি যদি শাড়ি পরতে অভ্যস্ত (habit) না হন, তাহলে এমন শাড়ি পরুন যেটা গায়ের সাথে লেপটে থাকে। চাইলে আপনি হ্যান্ডলুম কিম্বা হাল্কা সিল্ক বা সুতির শাড়ি পরতে পারেন।


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!