প্রাক্তন যখন বন্ধু (Friendship with your Ex )

প্রাক্তন যখন বন্ধু (Friendship with your Ex )

মিতালি আর গৌতমের সম্পর্কটা শেষমেশ ভেঙে গেল। কীভাবে ভাঙল, কেন ভাঙল এত কথায় যাচ্ছি না। সব সম্পর্কেরই একটা এক্সপায়ারি ডেট থাকে। ওরাও সেই পর্যায়ে পৌঁছে গেছিল সুতরাং দুজনেই একসাথে বুদ্ধি করে সিদ্ধান্ত নিয়ে সম্পর্কে ইতি টানল। ওরা আজকের জেনারেশান। সমাজ, লোকলজ্জা আর পরিবারের ভয়ে একটা মৃত সম্পর্কের বোঝা বয়ে নিয়ে যাওয়ার কোনও অর্থ হয় না, এটা এই বর্তমান প্রজন্ম বেশ ভালোই বোঝে। কালের নিয়মে বেশ কিছুদিন পরে আবার নতুন সম্পর্কে জড়াল দুজনে। দেখা গেল মিতালির বয়ফ্রেন্ড (boyfriend) আর গৌতম স্কুলের ছোটবেলার বন্ধু! পৃথিবীটা সত্যিই গোল তাই না? এরকম পরিস্থিতিতে ঠিক কী করা উচিৎ বলুন তো? আমি বা আপনি কী করতাম জানি না, মিতালি কিন্তু খুব বুদ্ধিমতী মেয়ে। ও আগেই ওর প্রেমিককে সব বলে গৌতমের সঙ্গে বন্ধুত্ব (friendship) বজায় রাখল। টলিউড থেকে বলিউড এমনকী আমাদের টেলিপাড়াতেও এখন এই ট্রেন্ডই চলছে। অভিনেতা গৌরব চট্টোপাধ্যায় এখনও তার প্রাক্তন (Ex) স্ত্রী অনিন্দিতার বন্ধু। আবার বিচ্ছেদের পরেও একসাথে সময় কাটান ঋত্বিক রোশন ও সুজান খান থেকে শুরু করে অর্জুন রামপাল ও মেহের জেসিয়া।বন্ধুত্বের (friendship) সম্পর্ক না হলেও বিচ্ছেদের (separation) পরেও একই ছবিতে কাজ করেছেন রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রিয়াঙ্কা সরকার।সম্পর্কের তিক্ততা তাদের পেশাদারি জগতে কোনও প্রভাব ফেলেনি।প্রাক্তন যখন বন্ধু (friendship with ex) আমরা কী করব? আমাদেরও যদি জীবন কোনওদিন এরকম পরিস্থিতির সামনে এনে দাঁড় করিয়ে দেয়, কী করা উচিৎ আমাদের?


দায়ভার দুজনেরই


jab we met


বন্ধুত্ব যে রাখতেই হবে এমন কোনও মাথার দিব্যি নেই। আপনারা দুজনেই যখন একটি সম্পর্কে ছিলেন সেটা ভাঙার সিদ্ধান্তও দুজনের ছিল। তাই প্রাক্তন যদি বন্ধুত্ব রাখতে ইচ্ছুক না হন, তাহলে আপনারাও তাই সিদ্ধান্ত হওয়া উচিৎ। অতীতের মুখোমুখি হওয়ার ইচ্ছে বা আগ্রহ অনেকেরই থাকে না। সুতরাং তার বিষয়টাও আপনাকে ভাবতে হবে। যদি দেখেন সম্পর্ক ভাঙার পর তিনি আপনার ফোনকল, মেসেজ বা অন্য ইঙ্গিত এড়িয়ে যাচ্ছেন ব্যাপারটা এখানেই শেষ করুন।


অতীত নয় বর্তমান ও ভবিষ্যতের কথা ভাবুন


ex friendship


ধরে নিচ্ছি বিচ্ছেদের পরেও আপনি আপনার প্রাক্তন স্বামী বা প্রেমিকের ভালো বন্ধু হলেন। খুব ভালো কথা। এর থেকে প্রমাণিত হল আপনি খুব উদার। কিন্তু বেশি উদারতা দেখিয়ে এর জন্য নিজের বর্তমান বা ভবিষ্যৎকে অবহেলা করবেন না। মনে রাখবেন আপনার জীবনে নতুন অধ্যায় শুরু হয়ে গেছে সেটার দিকে মন দিন। অনেকেই সম্পর্ক শেষ করেন কারণ তারা অ্যাবিউসিভ সম্পর্কে থাকেন। গায়ে হাত তোলা, অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ বা আপনার সামনেই অন্য সম্পর্ক স্থাপন ইত্যাদিও সম্পর্ক ভাঙার কারণ হতে পারে। তাই সব সম্পর্কের স্মৃতি মধুর হয় না। সম্পর্ক ভাঙার পর যদি প্রাক্তনের হঠাৎ চৈতন্য হয় আর তিনি আপনাকে আবার ডাক পাঠান, বোকার মতো পিছন ঘুরে তাকাবেন না।


দূরত্ব রেখে বন্ধুত্ব


three together


মাঝে মধ্যে একটু বাস্তববাদী হওয়া একদম দোষের নয়। তাই সম্পর্ক ভাঙার পর প্রাক্তনের সঙ্গে বন্ধুত্ব রাখলেও মাঝখানে একটা সীমারেখা থাকা ভালো। প্রথমত, এমনটা হতেই পারে যে সম্পর্ক ভাঙার পরেও আপনি সিঙ্গল রয়ে গেলেন আর প্রাক্তন কোনও সম্পর্কে জরিয়ে পড়লেন। তখন বার বার প্রাক্তনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে দেখা বা অন্য কমন বন্ধুদের মাধ্যমে খোঁজখবর নেওয়ার বাতিক ত্যাগ করুন। আপনার ক্ষেত্রে এমনটা হলে আপনি যেমন সেটা পছন্দ করতেন না, তিনিও সেটা না করতে পারেন। নিজের নেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়ে খামোখা চুল চেরা বিচার না করে ভবিষ্যতের কথা ভেবে এগিয়ে চলুন। জীবন নিশ্চয়ই সুন্দর কিছু সাজিয়ে রেখেছে আপনার জন্য।


Picture Courtsey: Pinterest  


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!