এই তো সময়! ট্রাই করেই ফেলুন সজনে ফুলের (moringa flower) রকমারি রেসিপি (recipe)

এই তো সময়! ট্রাই করেই ফেলুন সজনে ফুলের (moringa flower) রকমারি রেসিপি (recipe)

বসন্ত (spring) তো এসে গ্যাছে! এ বার পাতে পড়বে সজনে ডাঁটা। শুক্তো থেকে শুরু করে তরকারি, মাছে ডাঁটার উপস্থিতি টের পাওয়া যাবে। যদিও আজকাল কোল্ড স্টোরেজের দৌলতে সারা বছরই সজনে ডাঁটা পাওয়া যায়। কিন্তু সজনে ফুলটা (moringa flower) শুধুমাত্র এই সময়টাতেই (spring) পাওয়া যাবে। আসলে অনেকের মতে, এই সজনে ফুলের (moringa flower) অনেক গুণাগুণ রয়েছে। এই সময়টাতে (spring) হাম-বসন্তের (pox) মতো রোগ ছড়িয়ে পরে। যার প্রকোপ কমাতে সজনে ফুল (moringa flower) অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর বসন্ত রোগের (pox) প্রতিষেধকও বটে! এ ছাড়াও সর্দি-কাশি এবং আরও নানা রকম রোগের দাওয়াই এই সজনে ফুলই (moringa flower)!


তা এ তো নয় গেল! এ বার আসি আসল কথায়। খাওয়ার কথায়। কী ভাবে খাবেন সজনে ফুল? সজনে ফুল দিয়ে বানিয়ে ফেলুন বড়া, ভাজা, চচ্চড়ি। তাই আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করছি দিদিমা-ঠাকুরমাদের সজনে ফুলের (moringa flower) রকমারি রেসিপি (recipe)!


আরো পড়ুনঃ নয়নতারা ফুলের নানা উপকারিতা


moringa flower


সজনে ফুল ভাজা


সজনে ফুলের (moringa flower) সব চেয়ে সোজা রেসিপি (recipe)। যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য়ও দারুণ। এর জন্য লাগবে-


৪ কাপ সজনে ফুল


২টো শুকনো লঙ্কা (কুচি করে কাটা)


৩ টেবিল চামচ রসুন কুচি


৫ টেবিল চামচ পিঁয়াজ কুচি


৪-৫টা লঙ্কা (মাঝখান থেকে চেরা)


স্বাদ অনুযায়ী নুন


তেল


প্রথমে একটা প্যানে তেল গরম করে নিতে হবে। তেল গরম হলে তার মধ্যে শুকনো লঙ্কা ফোড়ন দিন। শুকনো লঙ্কাটা তেলে নেড়েচেড়ে নিয়ে রসুন কুচি দিন। ভাল করে নেড়ে নিয়ে পিঁয়াজকুচিগুলো দিয়ে দিন। পিঁয়াজে ভাজা হলে বাদামি রং আসবে। এ বার সজনে ফুলগুলো আর চেরা লঙ্কাগুলো দিয়ে দিন। একটু নেড়ে নিয়ে স্বাদ অনুযায়ী নুন দিন। নাড়াতে থাকুন। ভাজা হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।


সজনে ফুলের বড়া


মুখরোচক এই সজনে ফুলের রেসিপি দারুণ। ভাতের পাতেও খেতে পারেন। আবার সন্ধেবেলায় চা-কফির সঙ্গে বা মুড়ি মাখার সঙ্গে সজনে ফুলের বড়া খেতে পারেন। তো এর জন্য লাগবে-


১ কাপ সজনে ফুল


১ কাপ বেসন


১ কাপ কর্নফ্লাওয়ার


১ কাপ চালের গুঁড়ো


২ টেবিল চামচ পিঁয়াজ কুচি


আধ চা-চামচ আদা বাটা


আধ চা-চামচ রসুন বাটা


২ টো লঙ্কা কুচোনো


১ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি


ভাজা জিরে গুঁড়ো


কালোজিরে


স্বাদ অনুযায়ী নুন


প্রথমে সজনে ফুল ভাল করে ধুয়ে শুকিয়ে নিন। এর পর একটা কাচের বড় বাটিতে বেসন, কর্নফ্লাওয়ার আর চালের গুঁড়ো নিন। এ বার এর মধ্যে পিঁয়াজ কুচি, আদা-রসুন বাটা, লঙ্কা কুচি, কুচোনো ধনেপাতা, কালোজিরে, ভাজা জিরে গুঁড়ো আর পরিমাণমতো নুন দিয়ে মেখে নিন। এর পর সজনে ফুল এই মিশ্রণে দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। প্যানে তেল গরম করে বড়ার মতো ভেজে নিন। কড়া থেকে নামিয়ে গরম গরম মুচমুচে সজনে ফুলের বড়া পরিবেশন করুন।


moringa flower curry


সজনে ফুলের চচ্চড়ি


এমনিতে তো চচ্চড়ি খান। তা হলে সজনে ফুলের চচ্চড়িও (moringa flower curry) ট্রাই করে দেখুন। এর জন্য প্রয়োজন-


১৫০ গ্রাম সজনে ফুল


১টা আলু


১টা বেগুন


কড়াইশুঁটি


৫/৬টা বড়ি


আধ চা-চামচ হলুদ গুঁড়ো


আধ চা-চামচ জিরে গুঁড়ো


স্বাদ অনুযায়ী নুন


অল্প চিনি


পরিমাণমতো তেল


প্রথমে সজনে ফুল ভাল করে বেছে নিয়ে জলে ধুয়ে নিতে হবে। আলু, বেগুন ছোট ছোট করে টুকরো করে নিতে হবে। এ বার একটি প্যানে তেল গরম করে নিয়ে ডালের বড়ি ভেজে নিয়ে তুলে সরিয়ে রাখতে হবে। এর পর আলু আর বেগুন ভেজে নিন। লালচে হয়ে এলে কড়াইশুঁটি দিয়ে নেড়ে নিন। আর সজনে ফুল দিন। সামান্য নেড়েচেড়ে মশলা দিন। এ বার ১ কাপ জল দিয়ে সেদ্ধ হতে দিন। সেদ্ধ হয়ে এলে ভাজা বড়ি দিন। জল শুকিয়ে গেলে নামিয়ে নিন। রেডি সজনে ফুলের চচ্চড়ি (moringa flower curry)। গরম ভাতের সঙ্গে গরম গরম সজনে ফুলের চচ্চড়ি (moringa flower curry)!


ছবি সৌজন্যে: পিন্টরেস্ট


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!


এগুলোও আপনি পড়তে পারেন


ত্বক পরিচর্যায় চালের আটা কীভাবে কাজে লাগে?


ত্বক ও চুলের সমস্যা এড়াতে জবাফুলের ব্যবহার