রোজ ডে- তে গোলাপের (rose) যত্নে থাকুক আপনার স্কিন-চুল

রোজ ডে- তে গোলাপের (rose) যত্নে থাকুক আপনার স্কিন-চুল

আজ রোজ ডে (rose day)। ভ্যালেন্টাইনস উইক শুরু গোলাপ দিবস (rose day) দিয়েই। ভালবাসার মানুষকে গোলাপ দেওয়া বা গোলাপ (rose) দিয়ে প্রেমের প্রস্তাব এ তো চলতেই থাকবে। এমনকি হালকা মিষ্টি গন্ধের এই ফুল বিয়ের সাজে, উপহার দিতে- সব কিছুতেই লাগে। কিন্তু জানেন কি, গোলাপ (rose) দিয়ে দিব্যি কিন্তু রূপচর্চা (beauty treatment) করা যেতে পারে। সেই প্রাচীন কাল থেকেই রূপচর্চায় গোলাপ ফুলের পাপড়ির ব্যবহার হয়ে আসছে। রূপচর্চায় (beauty treatment) গোলাপের পাপড়ির (rose petal) ব্যবহার আপনার স্কিনকেও (skin) করে তুলবে সুন্দর আর নরম। জেনে নিন, কী কী ভাবে গোলাপ ফুলের পাপড়ি  (rose petal) আপনার সৌন্দর্য আরও বাড়িয়ে তুলবে।


ক্লিনজার হিসেবে


dried-rose-buds


গোলাপের (rose) একটা মিষ্টি গন্ধ রয়েছে এবং গোলাপ প্রাকৃতিক উপায়ে আপনার স্কিনকে (skin) পরিষ্কার করতে পারে। এর মধ্যে যে হেতু অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টস রয়েছে, যা আপনার স্কিনের জীবাণুকে ধ্বংস করতে পারে। ন্যাচারাল ক্লিনজার বানানোর জন্য শুকনো গোলাপের পাপড়ি গুঁড়ো করে নিন। ১ টেবিলচামচ গোলাপের পাপড়ি (rose petal) গুঁড়ো জলে মিশিয়ে ক্লিনজার বানিয়ে নিতে পারেন। আর যদি গোলাপের পাপড়ির মাস্ক বানাতে চান, তা হলে শুকনো গোলাপের কুড়ি গুঁড়ো করে তার সঙ্গে মধু মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিন। এ বার মুখে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তার পরে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, আপনার স্কিন (skin)  গ্লো করছে।


ব্রণ তাড়াতে


rose petals


ধরুন, কোথাও ঘুরতে বেরোবেন, তার দু’দিন আগেই মুখে ব্রণর (acne) দেখা মিলল। ব্যস! এ বার কী করবেন!  সব ছবি তো মাটি! আর কোথাও যাওয়ার আগে হামেশাই এটা হয়! এখন উপায়? এক কাজ করুন,


১। গোলাপের পাপড়ি বেটে ব্রণর উপর লাগিয়ে নিন। দেখবেন, ব্রণ সমস্যা অনেকটা কমে গিয়েছে।


২। গোলাপের পাপড়ির (rose petal) সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে লাগিয়ে নিন। কিছুক্ষণ রাখার পরে ধুয়ে ফেলুন।


৩। গোলাপের পাপড়ি, আলু , নিমপাতা একসঙ্গে দিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। সেই মিশ্রণ মুখে লাগাতে থাকুন। সপ্তাহে অন্তত ২-৩ বার এটা ট্রাই করুন। এই টোটকাগুলো ট্রাই করে দেখুন, ব্রণর সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।


নরম ত্বকের জন্য


dried-rose petals


ত্বকের (skin) যত্নে গোলাপের (rose) জুড়ি মেলা ভার। ২ কাপ জলে একটি ফ্রেশ গোলাপ ভিজিয়ে রেখে দিন। পরের দিন সকালে উঠে গোলাপ (rose) ভিজিয়ে রাখা ওই জলে মুখ ধুয়ে ফেলুন। শুধু এটাই নয়, আর একটি মিশ্রণেও আপনার ত্বককে নরম করবে। গোলাপের শুকনো পাপড়ি (rose petal), সমপরিমাণ মধু আর দুধ মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট বানিয়ে নিন। এ বার রাতে শুতে যাওয়ার আগে ব্রণর জায়গায় লাগিয়ে ফেলুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে ধুয়ে নিন।


ডার্ক সার্কল দূর করতে


চোখের নীচের কালি বা ডার্ক সার্কল দূর করতে গোলাপের পাপড়ি (rose petal) অত্যন্ত উপকারী। একটি পাত্রে খানিকটা জল নিয়ে তাতে তাজা গোলাপের পাপড়ি ভিজিয়ে রাখুন। এর পর একটি তুলোর বল ওই জলে ভিজিয়ে চোখের নীচে ঘষতে থাকুন। ডার্ক সার্কল দূর হবে।


ফেসিয়াল টোনার


আপনার স্কিন কি অয়লি? তা হলে গোলাপের পাপড়ির অয়েল কন্ট্রোল ফেসিয়াল টোনার ব্যবহার করুন। এর জন্য লাগবে- এক মুঠো ফ্রেশ বা শুকনো গোলাপের কুঁড়ি, ১ কাপ জল। প্যানে জল নিয়ে ওভেনে বসিয়ে দিন। জল ফুটতে থাকলে তা নামিয়ে নিন। এ বার তার মধ্যে গোলাপের কুঁড়ি দিয়ে দিয়ে পাত্রটা ঢেকে দিন। এ ভাবে আধঘণ্টা রেখে দিন। যখন মিশ্রণটি ঠান্ডা হয়ে যাবে, তখন তার মধ্যে কয়েক ফোঁটা রোজ এসেন্সিয়াল অয়েল দিয়ে একটি পরিষ্কার স্প্রে বোতলে ভরে রেখে দিন। মুখ পরিষ্কার করার পরে মুখে স্প্রে করে নেবেন গোলাপের পাপড়ির টোনার।


ময়েশ্চারাইজার হিসেবে


rose-moisturizer


শুষ্ক ও সেনসিটিভ ত্বকের জন্য গোলাপের পাপড়ি (rose petal) দারুণ ময়েশ্চারাইজারের কাজ করে। গোলাপের পাপড়ির মধ্যে থাকা ন্যাচারাল অয়েল স্কিন সেলের মধ্যে ময়েশ্চার ধরে রাখে। স্কিনকে হাইড্রেট করতে সাহায্য করে। একটা ময়েশ্চারাইজার বানাতে লাগবে- গোলাপ জল, মধু, শিয়া বাটার, আপনার পছন্দ মতো কয়েকটা এসেন্সিয়াল অয়েল। প্রত্যেকটা উপকরণ ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিয়ে দেখবেন একটা সিল্কি স্মুদ সাদা ক্রিম হবে। এ বার একটা পরিষ্কার কৌটোয় ভরে রেখে দিন। ড্রাই স্কিন, নর্ম্যাল স্কিন, স্কিনের দাগ, স্ট্রেচ মার্কস এ সব দূর করতে ওই ময়েশ্চারাইজার লাগান। এ ছাড়া, ২ টেবিলচামচ অলিভ অয়েল আর ১ চা-চামচ গোলাপের (rose) রস মিশিয়ে মুখে লাগান। এই মিশ্রণও ভাল ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে।


সানস্ক্রিন


rose-spa


রোদে বেরোনোর আগে সানস্ক্রিন লাগিয়ে বেরোন। বাজার থেকে কেনা সানস্ক্রিন পছন্দ না হলে প্রাকৃতিক উপায়ে বানিয়ে ফেলুন সানস্ক্রিন। এর জন্য গোলাপের রস, শসার রস আর আমন্ড অয়েল মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিতে হবে। এটা আপনার ত্বককে রোদে পোড়ার হাত থেকে বাঁচাবে।


ঠোঁটের যত্নে


rose-lipbalm


ঠোঁটের নরম ভাব ও গোলাপি রং ধরে রাখতে গোলাপের পাপড়ি অত্যন্ত কার্যকর। লিপবামের থেকেও ভাল কাজ করে গোলাপের পাপড়ি। ঠোঁটের যত্নে গোলাপের পাপড়ি বেটে তার সঙ্গে দুধ আর মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এ বার তুলোর সাহায্যে ঠোঁটে ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এটা ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করে। পাশাপাশি, গোলাপের পাপড়ির রস আর তুলসি পাতার রস মিশিয়ে ঠোঁটে লাগাতে পারেন।


চুলের যত্নে


rose-water


গোলাপের (rose)  মধ্যে খুব বেশি পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টস রয়েছে। যা আপনার চুলের ফলিকলের পরিচর্যা করে এবং চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। গোলাপ জল দারুণ কন্ডিশনার। যা আপনার রুক্ষ চুলকে ময়েশ্চারাইজ করে। স্নানের পরে মাথার স্ক্যাল্পে স্প্রে করে নিয়ে মাসাজ করুন। এতে চুল বাড়বে। কন্ডিশনার হিসেবে ব্যবহার করতে চুলেও স্প্রে করতে পারেন।


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!