কোন ধাঁচের শরীরের সঙ্গে কোন জিনস মানানসই হবে

কোন ধাঁচের শরীরের সঙ্গে কোন জিনস মানানসই হবে

প্রায় প্রত্যেকটা মেয়েই জিন্স (jeans) পরতে ভালবাসে। কম-বেশি সব্বার ওয়্যার্ড্রোবেই পাওয়া যাবে জিন্সের প্যান্ট (jeans)। আসলে কোথাও যেতে যেমন কমফোর্টেবল, তেমন ক্যারি করাটাও অনেক সহজ। বিশেষ করে অফিস যাতায়াতের জন্য তো একেবারে পারফেক্ট। আর ফিল্ডে কাজ থাকলে তো কথাই নেই! জিন্স-টপই সে ক্ষেত্রে বেস্ট আউটফিট। কিন্তু আপনি কি জানেন, এই জিন্স প্যান্টেই বেশ কয়েক রকমের হয়? হ্যাঁ হ্যাঁ, এক-একটা স্টাইল এক-এক রকম। গরমে ধরুন স্কিন টাইট বা স্কিনি জিন্স (skinny jeans) পরতে একটুও ভাল লাগছে না। গরম লাগে। এক কাজ করুন, বয়ফ্রেন্ড জিন্স (boyfriend jeans) ট্রাই করতে পারেন। কমফোর্টেবল তো বটেই, আর গরমে কষ্টও হবে না। বেশি কথা না বলে এ বার ঢুকে পড়া যাক আসল বিষয়টায়।


স্কিনি জিন্স


skinny jeans


প্রথমেই আসি স্কিনি জিন্সের (skinny jeans) কথায়। নাম শুনেই বুঝতে পারছেন নিশ্চয়ই। স্কিন টাইট ও স্কিনের সঙ্গে সুন্দর করে ফিট করে যায়। আপনার পায়ের শেপে সুন্দর ভাবে বসে যায়। আপনার যদি সুগঠিত সুন্দর পা হয়, তা হলে তো এই জিন্স আপনার জন্য পারফেক্ট। লো, মিড আর হাই রাইস ওয়েস্ট কাটে স্কিনি জিন্স (skinny jeans) পাওয়া যায়। আর সাধারণত স্ট্রেচেবল হয়। বিশেষ করে যাঁদের আওয়ারগ্লাস শেপের বডি আর স্লিম পা, তাঁদেরই এটা দারুণ মানায়। তবে যাঁদের পিয়ার-শেপড বডি, তাঁরা এড়িয়ে চলুন।


স্কিনি ক্রপ জিন্স


এটা রেগুলার স্কিনি জিন্সের মতোই। তবে এর লেঙথ হয় অ্যাঙ্কলের কাছাকাছিই। কিছু কিছু স্কিনি ক্রপ জিন্সে ফোল্ডস অথবা ভাঁজ থাকে। যা আউটফিটে একটা স্টাইলিশ (stylish) লুক এনে দেয়। এ ছাড়া, ডিজাইন আর টেকনিকে স্কিনি জিন্সের (skinny jeans) সঙ্গে সে রকম কিছু পার্থক্য নেই। ডিসট্রেসড অথবা হোয়াইট আর ব্ল্যাক স্কিনি ক্রপ জিন্স দারুণ।


বয়ফ্রেন্ড জিন্স


crop top-boyfriend jeans


এই ধরনের জিন্সের লুক থেকেই এর নামকরণ করা হয়েছে। দেখে মনে হতো, বয়ফ্রেন্ডের থেকে ধার করে পরা জিন্স (jeans)। কারণ এই জিন্স একটু ঢিলেঢোলা প্রকৃতির। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এর ফিট আরও ভাল হয়েছে এবং ভীষণ স্টাইলিশ (stylish) একটা স্টাইল (style) হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। কোমর আর হিপ এরিয়াতে একটা আলাদাই ফিট আর পায়ের দিকে একটু ঢিলে হতে থাকে। আর এখন তো ভীষণই পপুলার। রানওয়ে থেকে এয়ারপোর্ট লুক- তারকাদের প্রত্যেকেরই প্রিয় এই জিন্স (boyfriend jeans)। বিশেষ করে কার্ভি মহিলাদের জন্য পারফেক্ট।


স্ট্রেট লেগ জিন্স


straight leg jeans pants


এটা একটা দারুণ স্টাইল (style)। আর সব থেকে বড় কথা হয়, এই ধরনের জিন্স এমন ভাবে ডিজাইন করা হয় যে, সব রকম বডি শেপেই দারুণ মানায়। আর এটা স্কিনি আর বয়ফ্রেন্ড জিন্স (boyfriend jeans) অথবা ফ্লেয়ার্ড কাটের মাঝামাঝি। আর এই স্টাইলের (style) জিন্স আপনার পা আরও লম্বা দেখায়।


লো-রাইজ জিন্স


ফ্যাশনে দারুণ পপুলার এই জিন্স। শর্ট টপের সঙ্গে লো-রাইজ জিন্স তো ট্রেন্ডিং স্টাইল (style)। যাঁদের সুন্দর কোমর, তাঁদের জন্য এটা পারফেক্ট। কারণ এই জিন্স শুরু হয় আপনার নাভির কিছুটা নীচে। আর এই স্টাইলটা স্কিনি, স্ট্রেট আর সুপার স্কিনি ডিজাইন প্যাটার্নের একটা সংমিশ্রণ।


ফ্লেয়ার্ড জিন্স


flared jeans malaika


নাইন্টিজ ফ্যাশনে পপুলার হয়েছিল। মাঝখানে হারিয়ে গিয়েছিল এই স্টাইলটা। তবে এ বার আবার ফ্যাশনে কামব্যাক করেছে ফ্লেয়ার্ড জিন্স। হাঁটুর নীচ থেকে এতে ফ্লেয়ার অ্যাড হয়। এটা আসলে বুট কাট আর বেল বটম স্টাইল ট্রাউজারের মাঝামাঝি। লম্বা আর কার্ভি মহিলাদের জন্য দারুণ। তবে যাঁদের শর্ট হাইট আর কার্ভি, তাঁরা এড়িয়ে চলুন।


জেগিংস


লেগিংস পরতে নিশ্চয়ই ভালবাসেন? তা হলে জেনে রাখুন, জেগিংস হল ডেনিম ফ্যাব্রিকেরই লেগিংসের মতো। আর যে কোনও বডি টাইপে স্যুট করে। কারণ এটা সহজেই আপনার পায়ের শেপ নিয়ে নেয়। এটা স্কিনি জিন্সের মতো স্টাইলে পরতে পারেন। আর সেটা করতে না চাইলে একটু লং টপ দিয়ে পরে নিতে পারেন। বিশেষ করে প্রেগন্যান্ট মহিলাদের জন্য এটা দারুণ। দেখতেও স্টাইলিশ (stylish) আবার কমফোর্টেবলও মানে পেটের উপর চাপও লাগবে না।


ছবি সৌজন্যে: ইউটিউব
POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!