উইক এন্ডে ট্রাই করুন মরাঠী স্ট্রিট ফুড বড়া পাও এবং পাও ভাজি, রইল রেসিপি

উইক এন্ডে ট্রাই করুন মরাঠী স্ট্রিট ফুড বড়া পাও এবং পাও ভাজি, রইল রেসিপি

চটজলদি খিদে মেটাতে এই দুই মহারাষ্ট্রীয় স্ট্রিট ফুডের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। তাছাড়া পাও ভাজি আর বড়া পাও খেতে যেমন সুস্বাদু, তেমনি তৈরি করাও বেজায় সহজ। তাই সান্ধ্যকালীন চায়ের সঙ্গে রসনা তৃপ্তি করতে যে কোনও দিন বানিয়ে ফেলতে পারো দুটোর মধ্যে যে কোনও একটি পদ (vada pav and pav bhaji recipe)। এখন প্রশ্ন হল এই দুটি পদ রান্নার শর্টকাট পদ্ধতি (recipe) সম্পর্কে জানা আছে নাকি? উত্তর যদি না হয়, তাহলে এই লেখায় একবার চোখ রাখতে ভুলো না যেন!


১. বড়া পাও:


BARA-1
ঝাল ঝাল স্বাদের এই পদটি (vada pav) তৈরি করতে প্রথমেই তৈরি করে নিতে হবে বড়া (recipe)। আর তার জন্য প্রয়োজন পড়বে ২ চামচ তেল, সরষে বীজ ১ চামচ, কারি পাতা ৩ চামচ, রসুন ৩ কোয়া, আদা ১ ইঞ্চি, কাঁচা লঙ্কা ৩ টে, হলুদ গুঁড়ো হাফ চামচ, সেদ্ধ আলু ২ কাপ, স্বাদ অনুসারে নুন এবং ১ চামচ ধনে পাতার। সেই সঙ্গে পাও (vada pav) লাগবে প্রয়োজন মতো।


বেসনের পেস্ট বানাতে প্রয়োজন পড়বে:


১. বেসন- ২ কাপ
২. রাইস ফ্লাওয়ার-১ চামচ
৩. স্বাদ অনুসারে নুন।
৪. হলুদ গুঁড়ো হাফ চামচ।
৫. পরিমাণ মতো জল।
৬. পরিমাণ মতো তেল।
৭. অল্প করে বেকিং সোডা।


রসুনের মশলা বানাতে প্রয়োজন পড়বে (vada pav chutney recipe):


১. নারকেল কুচি- হাফ কাপ।
২. বাদাম গুঁড়ো- ৪ চামচ।
৩. লঙ্কা গুঁড়ো-২-৩ চামচ।
৪. তিল বীজ- ২ চামচ।
৫. রসুন-১০-১২ কোয়া।
৬. শুকনো লঙ্কা-৪-৫ টা।


প্রণালী:


bara-2
১. মিক্সিতে ৩ টে কাঁচা লঙ্কা, ৩ কোয়া রসুন এবং ১ ইঞ্চি আদা নিয়ে ভালো করে মিক্স করে একটি মিশ্রণ বানিয়ে নাও।
২. তারপর একটা প্যানে ২ চামচ তেল নিয়ে মাঝারি আঁচে তেলটা গরম করে নাও। যখন দেখবে তেলটা গরম হতে শুরু করেছে, তখন তাতে পরিমাণ মতো সরষে বীজ ফেলে একটু নাড়িয়ে নাও।
৩. সরষে বীজগুলি ফাটতে শুরু করলে তখন তাতে কারি পাতা ফেলে কম করে ৩০ সেকেন্ড নাড়াও।
৪. এরপরে একেবারে প্রথমেই বানিয়ে রাখা লঙ্কার পেস্টটা মিশিয়ে ২ মিনিট নাড়়িয়ে ফেলো। এই সময় আঁচটা যেন বেশি না থাকে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
৫. সময় হয়ে গেলে হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে আরও কিছু সময় নাড়িয়ে নাও। তারপর তাতে সেদ্ধ আলু মিশিয়ে ক্রমাগত নাড়াতে থাকো। যাতে প্রতিটি উপাদান আলুর সঙ্গে মিশে যাওয়ার সুযোগ পায়।
৬. ২ মিনিট রান্না করার পরে আলুর মিশ্রণটি একটি পাত্রে নিয়ে ঠান্ডা করে ফেলো। যখন দেখবে একেবারে ঠান্ডা হয়ে গেছে, তখন আলুর মিশ্রণ থেকে অল্প অল্প করে নিয়ে কম করে ৮-৯ টা বল বানিয়ে ফেলো। এবার বড়া বানানোর পালা।
৭. এবার একটা বড় পাত্রে বেসন, রাইস ফ্লাওয়ার, নুন এবং হলুদ নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নাও। তারপর অল্প করে জল মিশিয়ে ঘন একটা পেস্ট বানিয়ে ফেলো।
৮. পেস্টটা বানানো হয়ে গেলে ১৫-২০ মিনিট মিশ্রণটা আলাদা করে রেখে দাও।
৯. সময় হয়ে গেলে রসুনের মিশ্রণে এক এক করে আলুর বড়াগুলো চুবিয়ে নিয়ে সেগুলি তেলে ডিপ ফ্রাই করে নাও।
১০. রসুনের চাটনি ছাড়া বড়া পাওয়ের স্বাদ বেজায় ফিকে লাগবে কিন্তু! তাই রসুনের ড্রাই মশলা বানিয়ে নেওয়াটা মাস্ট! আর তেমনটা করতে প্রথমে একটা নন-স্টিক প্যান নিয়ে একটু গরম করে নাও। তারপর তাতে নারকেল কুচি ফেলে ততক্ষণ ফ্রাই করো, যতক্ষণ না সেটি হলুদ রং নিচ্ছে। তারপর নারকেল কুচিগুলি সংগ্রহ করে একটা প্লেটে রেখে দাও।
১১.এরপরে একই প্যানে বাদাম গুঁড়ো নিয়ে একই ভাবে ভেজে নাও। তারপর একটা প্লেটে নিয়ে নাও। তারপর শুকনো লঙ্কা এবং তীল নিয়ে ফ্রাই করে ফেলো। সবশেষে রসুনের কোয়াগুলি নিয়ে কম করে ১ মিনিট ফেজে নিয়ে আলাদা একটা প্লেটে নিয়ে নাও।
১২. সবকটি উপাদান আলাদা আলাদা করে ভাজা হয়ে গেলে মিক্সিতে সবকটি উপাদান নিয়ে অল্প করে নুন মিশিয়ে ভালো করে মিক্স করে নাও। তারপর অল্প করে লঙ্কা গুঁড়ো মিশিয়ে আরও একবার মিক্সিটা চালিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে রসুনের মশলা।
১৩. এবার বড়া পাও (vada pav) বানানোর পালা। এক্ষেত্রে প্রতিটি পাও মাঝখান থেকে কেটে নিয়ে তাতে গ্রিন চাটনি লাগিয়ে নাও।
১৪. এরপরে রসুনের মশলাটা ভালো করে মাখিয়ে নেওয়ার পরে আগে থাকা বানানো বড়া, পাওয়ের পেটে ঢুকিয়ে দাও। এরপর আবারও একবার রসুনের চাটনিটা অল্প করে ছড়িয়ে দিয়ে পরিবেশন করো।


২. পাও ভাজি রেসিপি (pav bhaji recipe):


pao-1
মুখোরচক এই পদটি (recipe) তৈরি করতে প্রয়োজন পড়বে ২ টো মাঝারি মাপের আলু, হাফ কাপ মটরশুঁটি, হাফ কাপ গাজর কুচি, একটা বড় মাপের পেঁয়াজ (কুচি কুচি করে কাটা), ১ চামচ আদা-রসুনের পেস্ট, ২ টো টমেটো (কুটি কুচি করে কাটা), দেড় চামচ লঙ্কা গুঁড়ো, হাফ চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চামচ জিরা এবং ধনে গুঁড়ো, ১ চামচ পাও ভাজি মশলা, ১ চামচ লেবুর রস, স্বাদ অনুসারে নুন, ২ চামচ ধনে পাতা এবং ৮ টা পাও।


প্রণালী:


pao-2
১. একটা বড় পাত্রে সবকটা সবজি নিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিয়ে ছোট ছোট টুকরো করে নাও। তারপর প্রেসার কুকারে সবকটি সবজির টুকোরো ঢেলে নিয়ে তাতে হাফ কাপ জল মিশিয়ে নাও। এবার স্বাদ অনুসারে নুন মিশিয়ে প্রেসার কুকার চাপা দিয়ে সাবজিগুলি সেদ্ধ করে ফেলো।
২. সেদ্ধ করা সবজিগুলি এবার ভালো করে নাড়িয়ে নাও। তারপর একটা প্যানে ২ চামচ তেল এবং ২ চামচ মাখন নিয়ে একটু গরম করে নাও।
৩. এবার তাতে পেঁয়াজ কুচি এবং আদা-রসুনের পেস্ট মিশিয়ে ভালো করে নাড়াও।
৪. কয়েক মিনিট পরে টমেটো এবং ক্যাপসিকাম কুচি মিশিয়ে নাও। তারপর স্বাদ অনুসারে নুন মিশিয়ে বেশ কিছুক্ষণ নাড়াও।
৫. এবার দেড় চামচ লঙ্কা গুঁড়ো, হাফ চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চামচ জিরা গুঁড়ো, ১ চামচ ধনে গুড়ে এবং পাও ভাজি মশলা মিশিয়ে নাও।
৬. কয়েক মিনিট রান্না করার পরে এবার অল্প করে জল মিশিয়ে আরও ২-৩ মিনিট রান্না করো।
৭. এবার এই মশলার মিশ্রণের সঙ্গে আগে থেকে বানিয়ে রাখা সবজির মিশ্রণটা যোগ করো। সঙ্গে এক চামচ লেবুর রস মিশিয়ে ভালো করে নাড়াও।
৮. কম করে ৪-৫ মিনিট রান্না করার পরে আঁচটা বন্ধ করে দাও। তারপর তরকারির উপরে অল্প করে ধনে পাতা ছড়িয়ে নাও।
৯. এবার পাও বানানোর পালা। এক্ষেত্রে মাঝখান থেকে পাওটা কেটে নাও প্রথমে। তারপর একটা প্যান নিয়ে তাতে এক চামচ মাখন ফেলে তার উপরে পাওটা রেখে কয়েক মিনিট একটু হালকা ফ্রাই করে নাও, তাহলেই তৈরি হবে যাবে পাও। এবার পেঁয়াজ কুচির সঙ্গে পরিবেশন করো পাও ভাজি!


ছবির কৃতজ্ঞতা স্বীকার: wikipedia, youTube


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!