ভালোবাসার কি কোনও নির্দিষ্ট সময় হয়? (when is the best time to make love)

ভালোবাসার কি কোনও নির্দিষ্ট সময় হয়? (when is the best time to make love)

অনেকেই শারীরিক মিলনের (sex) সময় হিসেবে রাতের বেলাকে বেছে নেয়। কিন্তু এই বিষয়ে বিজ্ঞান কী বলছে, গবেষণাই বা কী বলছে? সেই উত্তর খোঁজারই চেষ্টা করা হবে এই প্রবন্ধে (when is the best time to make love)...


১. দুশ্চিন্তা দূর করতে:  


sex-1
যে কোনও গুরুত্বপূর্ণ মিটিং-এর আগে বা নতুন কোনও কাজ শুরুর আগে কম-বেশি আমরা সবাই খুব মানসিক চাপে থাকি। ফলে নানা চিন্তার কারণে স্ট্রেস লেভেল এতটাই বেড়ে যায় যে শরীরের উপর খারাপ প্রভাব পড়তে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে দুশ্চিন্তার কারণে কিছু ভল করে ফেলার আশঙ্কাও থাকে। তাই এমন সময়ে স্ট্রেসকে নিয়ন্ত্রণে রাখাটা একান্ত প্রয়োজন। আর ঠিক এই কারণেই যে কোনও গুরুত্বপূর্ণ কাজ শুরুর আগের রাতে সেক্স করলে মন্দ হয় না। কারণ সায়েন্স ডায়রেক্ট পত্রিকায় প্রকাশিত এক গবেষণা পত্র অনুসারে এমন সময়ে শারীরিক মিলনে লিপ্ত হলে নার্ভ শান্ত হয়, সেই সঙ্গে ব্লাড প্রেসার যেমন নিয়ন্ত্রণে চলে আসে, তেমনি স্ট্রেসের মাত্রা কমতেও সময় লাগে না। 


২. দিনের সেরা সময় হল সকালবেলা:


sex-2
বিশেষজ্ঞদের মতে ঘুম থেকে ওঠার পরে আমাদের শরীরে টেস্টোস্টেরন হরমোনের ক্ষরণ যেমন বেড়ে যায়, তেমনি এনার্জিও থাকে তুঙ্গে। তাই তো এই সময় শারীরিক মিলনে (love) যে তৃপ্তি মেলে, তা অন্য সময় করলে কিন্তু অতটা মেলে না (best time for sex)। তবে আরেকটা কারণেও সকাল সকাল সেক্স করার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে। কী কারণ? বেশ কিছু স্টাডি অনুসারে সকাল বেলা শারীরিক মিলন করলে শরীরে ফিল গুড হরমোনের ক্ষরণ নাকি বেড়ে যায়। ফলে সারাদিন মন আনন্দে থাকে। তাই একথা বলতেই হয় যে এবার থেকে রাতের পরিবর্তে সকালে একটু ভালোবাসলে উপকার যে একটু বেশি পাবে, তা আর বলার আপেক্ষা রাখে না।


৩. এক্সারসাইজের পরেই:


sex-3
টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের করা এক স্টাডিতে দেখা গেছে শরীরচর্চার পর পরই মেয়েদের জেনিটাল রিজিয়ানে রক্তের প্রবাহ প্রায় ১৬৯ শতাংশ বেড়ে যায়। তাই তো এই সময় সেক্স করলে এক অন্যরকমের অনুভূতি হয়, যা রাতের বেলা সেক্স করার থেকে হাজার গুণ বেশি মনোরম। তাছাড়া এক্সারসাইজের পরে টেস্টোস্টেরন হরমোনের ক্ষরণও বেড়ে যায়। তাই শারীরিক মিলনের পক্ষে এর থেকে ভালো সময় আর হয় না বললেই চলে! তবে হার্টের কোনও সমস্যা থাকলে এমনটা করা একেবারেই চলবে না।


৪. নিমেষে মনকে চাঙ্গা করে তুলতে:


sex-5
বিশেষজ্ঞদের মতে কোনও কারণে যদি মন খারাপ থাকে, তাহলে নিমেষে মনকে চাঙ্গা করে তুলতে সেক্সের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। কারণ শারীরিক মিলনের সময় আমাদের শরীরে বিশেষ কিছু হরমনের ক্ষরণ বেড়ে যায়, যার প্রভাবে স্ট্রেসের মাত্রা কমতে যেমন সময় লাগে না, তেমনি মন খারাপ দূর হয় নিমেষে। যদি প্রশ্ন করো, মন খারাপ থাকলে শারীরিক মিলনে মন চাইবে কীভাবে? তাহলে বলবো শরীর এবং মনকে চাঙ্গা করে তুলতে ভালোবাসার স্পর্শের কোনও বিকল্প হয় নাকি!


আরো পড়ুনঃ একগুচ্ছ বাংলা এস এম এস এবং শায়েরি


শারীরিক মিলনের কিছু উপকারিতা:


sex-4


১.  নিয়মিত সেক্স করলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে।


২. রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।


৩. হার্টের কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা কমে।


৪. ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়।


৫. অনিদ্রার সমস্যা দূরে পালায়।


৬. ক্যালরি ঝরে এবং শরীরের সার্বিক ক্ষমতার উন্নতি ঘটে (health benefits of sex)। 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


এগুলোও আপনি পড়তে পারেন


ঠোঁটে চুম্বনের শারীরিক উপকারিতা


ভালোবাসার মানুষটিকে এই ডাকনামে ডাক দিও


বাংলা রোমান্টিক ডায়লগ মনের মানুষটির জন্য