সম্পর্ককে আরও সুন্দর করে তুলতে sex এর পরে এই বিষয়গুলি মাথায় রাখতে ভুলবেন না!

সম্পর্ককে আরও সুন্দর করে তুলতে sex এর পরে এই বিষয়গুলি মাথায় রাখতে ভুলবেন না!

কথায় বলে "গুড সেশন অব সেক্স ইজ লাইক এ ব্লকবাস্টার মুভি"। কথাটা যে খুব ভুল নয়, তা তো বলাই বাহুল্য! কারণ ভালো কোনও সিনেমা দেখার পরে যেমন মন একেবারে হালকা হয়ে যায়, তেমনি শারীরিক মিলনের (sex) সময় যদি সব কিছু ঠিক ঠিক থাকে, তাহলে মন আনন্দে ভরে উঠতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে সম্পর্কের ভিত যেমন মজবুত হয়, তেমনি একে অপরকে চেনা যায় আরও কাছ থেকে।


ভালোবাসার সম্পর্কে শারীরিক মিলনের গুরুত্বপূর্ণ যে অনেক (sex and relationship), তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। কিন্তু সেক্সের পরেও এমন কতগুলি জিনিস করা উচিত, যা সম্পর্কে আরও সুন্দর করে তুলতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। একটা সিনেমার এন্ডিং যদি আকর্ষণীয় হয়, তাহলে যেমন ছবিটা শেষ হওয়ার পরেও দর্শকেরা তা নিয়ে ভাবতে বাধ্য করে, তেমনি সেক্সের পর পরই যদি এই অভ্যাসগুলিকে (what to do after sex) প্রশ্রয় দেওয়া যায়, তাহলে প্রতিটা সেশন যে স্মরণীয় হয়ে উঠবে, তা হলফ করে বলতে পারি।


সেক্স পরবর্তী বিষয় যা বেশ গুরুত্বপূর্ণ (After Sex Habits That Are Just As Important As Sex):


১. একে অপরকে সাহায্য করো:


re-1
শারীরিক মিলনের পরে একে অপরকে সাহায্য করুন একটু গুছিয়ে নিতে, বিশেষত ড্রেস পরার সময় স্বামী-স্ত্রীর একে অপরকে সাহায্য করা উচিত। আসলে অনেক সময়ই এমন ছোট একটা বিষয় আমরা অনেকেই ভুলে যাই, যা বেজায় গুরুত্বপূর্ণ বটে। সাইকোলজিস্টদের মতো এমন ছোট ছোট বিষয়ই কিন্তু স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেকার দূরত্বকে কমিয়ে ফেলে। আর এমনটা হলে ভালোবাসা আরও গভীরে পৌঁছাতে সময় লাগে না (relationship tips)।


২. প্রতিটি অভিজ্ঞতাই যেন হয় মনে রাখার মতো:


আমাদের দেশে সেক্স নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা করতে কেউই চায় না। এমনকী স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেও অনেক সময় এই নিয়ে কথা বলতে অনেকে লজ্জা বোধ করেন, যা একেবারেই কাম্য নয়। বরং প্রতিবার সেক্সের পরেই এই নিয়ে খোলাখুলি একে অপরের সঙ্গে কথা বলুন। এমনকী সেক্স পজিশন নিয়েও আলোচনা করুন। এমনটা করলে শুধু যে লজ্জার দেওয়াল ভেঙে যাবে না, এমন নয়, সেই সঙ্গে প্রতিবার নানান ধরনের সেক্স পজিশন ট্রাই করার কারণে দেখবেন সম্পর্ক আরও মধুর হয়ে উঠবে।


৩. সেক্সের পরেও ভালোবাসা যেন থেমে না থাকে:


re-3
শারীরিক মিলনের পরেই ঘুমিয়ে পড়বেন না প্লিজ! বরং ভালোবাসার মানুষটিকে কাছে টেনে নিন। তাকে জড়িয়ে ধরুন। কিস করুন। আর এমনটা করতে করতেই এক সময় ঘুমিয়ে পরুন। এমন অভ্যাস করলে দেখবেন দীর্ঘস্থায়ী এক সুখের অনুভূতি জন্ম নেবে মনে, যা ভালোবাসাকে আরও মজবুত করে তুলবে বৈকি!


৪. আরেক রাউন্ড হয়ে যাক:


বিশেষজ্ঞদের মতে মাত্র একবার সেক্স না করে যদি এক রাতে কয়েকবার, কম করে যদি দুবার করা যায়, তাহলে নাকি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেকার ভালোবাসার আগুনটা কখনও কমে যায় না, বরং আরও তীব্রতর হয়ে ওঠে। ফলে সম্পর্কের বাঁধাগুলি নিমেষে পেরিয়ে যেতে কোনও সমস্যাই হয় না। তাই এবার থেকে একবার নয়, বরং দুবার সেক্স করার চেষ্টা করুন, সম্ভব হলে একবার রাতে, আর একবার ঘুম থেকে উঠেই। এমনটা করলে দেখবেন উপকার পাবেই পাবেন!


৫. একে অপরকে খাইয়ে দিন:


re-5
শারীরিক মিলনের পরে যদি খিদে পায়, তাহলে একা একা মুখ না চালিয়ে বরং দুজনের জন্যই অল্প কিছু খাবার নিয়ে আসুন। আর একে অপরকে খাইয়ে দিন। এমন ছোট ছোট অভ্যাস আসলে ম্যাজিকের মতো কাজ করে। ফলে নিমেষে সম্পর্কের গভীরতা যেন আকাশ ছোঁয়।


৬. কিছু সময় গল্প করলে ক্ষতি কী:


শারীরিক মিলনের পর পরই ঘুমিয়ে না পরে বরং শুয়ে শুয়ে একে অপরের দিকে তাকিয়ে কিছু সময় গল্প করুন। মনের ছোট ছোট কথা খুলে বলুন একে অপরকে। মাঝে মাঝে ভালোবাসার মানুষটিকে কিস করুন কপালে। আর এই ভাবে একে অপরের কথা শুনতে শুনতে চলে যান স্বপ্নের দেশে। এমন অভ্যাস করলে দেখবেন পরের দিন সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরেও একটা ভালো লাগার অনুভূতি আপনাকে ঘিরে থাকবে। আর এমনটা হলে শুধু স্ট্রেস নয়, কোনও ধরনের মানসিক চিন্তাই দেখবেন দিনের শুরুতে আপনার ঘাড়ে চেপে বসতে পারবে না।


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!