মাড়ির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে এই ঘরোয়া টোটকাগুলো ট্রাই করুন

মাড়ির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে এই ঘরোয়া টোটকাগুলো ট্রাই করুন

বিজ্ঞাপনে দেখানো মডেলের মতো আপনার মাড়ি থেকেও কি রক্ত পড়ে? কিছু খেতে গেলে কি মাড়িতে ব্যাথা লাগে? কারণে অকারনে যখন তখন কি মাড়ির যন্ত্রণা আরম্ভ হয়? তাহলে কিন্তু বুঝতে হবে যে আপনার ওরাল প্রবলেম অর্থাৎ মুখের ভেতরে কোনও সমস্যা হচ্ছে। টুকটাক দাঁতের বা মাড়ির সমস্যায় (bleeding gum) আমরা সবাই-ই কোনও না কোনও সময়ে ভুগি, কিন্তু এই যন্ত্রণা যদি দীর্ঘস্থায়ী হয় তাহলে কিন্তু পরে গিয়ে এটা একটা বড় সমস্যার আকার নিতে পারে। ডাক্তারের পরামর্শ তো নিতেই হবে, সাথে কিছু ঘরোয়া টোটকাও জেনে রাখুন যাতে মাড়ি থেকে রক্ত পড়লে বা দাঁতে যন্ত্রণা হলে সঙ্গে সঙ্গে আপনি একটু হলেও আরাম পেতে পারেন ।


মাড়ির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে এই ৩টি ঘরোয়া টোটকা কাজে লাগান


১। টি-ট্রি অয়েল


best-home-remedies-to-cure-bleeding-gum 01টি-ট্রি অয়েল অ্যান্টিসেপকটিক হিসেবে দারুণ কাজ দেয়। যদি কোনোকারণে মাড়িতে ইনফেকশন হয়ে যায় তাহলে এই ঘরোয়া টোটকাটি ট্রাই করতে পারেন। এক চামচ নারকোল তেল আর দু-তিন ফোঁটা টি-ট্রি অয়েল মিশিয়ে হালকা হাতে মাড়িতে মাসাজ করে নিন। এরপর ৫ থেকে ১০ মিনিট বাদে ভালো করে কুলকুচি করে মুখ ধুয়ে নিন। দিনে দু’বার এটা করুন, ধীরে ধীরে মাড়ির সমস্যা চলে যাবে।


২। মধু


6-effective-home-remedies-to-get-rid-of-razor-bumps honeyমধুর অনেক গুণ। কাশি হলে কাজে আসে, আবার ত্বক এবং চুলের যত্নেও মধু খুব উপকারী। তবে মধু আপনি কি জানেন যে মধুতে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রপারটিস রয়েছে যা দাঁতের গোঁড়ায় এবং মাড়িতে প্লাক অথবা ব্যাক্টেরিয়া থাকলে তা দূর করতে সাহায্য করে। যদি আপনার মাড়িতেও এ ধরণের সমস্যা থাকে তাহলে আপনি এই ঘরোয়া টোটকাটি ট্রাই করতে পারেন। এক চামচ মধু নিয়ে ভালো করে মাড়িতে মাসাজ করুন। বেশি চাপ দেবেন না। হালকা হাতে মিনিট দশেক মাসাজ করার পর উষ্ণ জলে কুলকুচি করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। তাড়াতাড়ি ফল পেতে এটা কিন্তু প্রতিদিন অন্তত দুবার করতে হবে।


৩। হলুদ


diy-herbal-holi-colours-at home holudহলুদে যে অ্যান্টিফাঙ্গাল, অ্যান্টিসেপটিক এবং অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রপারটিস রয়েছে সেকথা আর কারও অজানা নয়। হলুদের মধ্যে ‘কারকিউমিন’ নামক একটি প্রাকৃতিক কম্পাউন্ড রয়েছে যা মাড়ি থেকে প্লাক, ব্যাক্টেরিয়া এবং কোনও রকম ইনফেকশন থাকলে তা দূর করতে এবং এই সমস্যার ফিরে আসা রোধ করতে খুবই কার্যকরী। এক চামচ হলুদের গুঁড়ো, আধ চামচ নুন আর আধ চামচ সর্ষের তেল মিশিয়ে ভালো করে দাঁতের গোঁড়ায় আর মাড়িতে মাসাজ করে নিন। দিনে দুই থেকে তিন বার এটা করুন। কিছুদিনের মধ্যেই মাড়ির সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।


বোনাস টিপস – কীভাবে দাঁত এবং মাড়ি সুস্থ রাখবেন


  • দিনে অন্তত দুবার দাঁত মাজুন। সম্ভব হলে প্রতিবার খাবার পরেই দাঁত মাজুন, তবে যদি সেটা সম্ভব না হয় তাহলে অন্তত ভালো করে মাউথওয়াশ দিয়ে কুলকুচি করে নিন।

  • নরম অথবা মিডিয়াম ব্রিস্লযুক্ত টুথব্রাশ ব্যবহার করুন। হালকা হাতে দাঁত মাজুন, শরীরের সমস্ত শক্তি প্রয়োগ করবেন না।

  • খাবারে ফল এবং সব্জি যোগ করুন। এতে শরীর যেমন ভালো থাকে তেমনি মাড়িও সুস্থ থাকে।

  • মুখে কোনও রকম দুর্গন্ধ হলে অথবা দাঁত মাজতে গিয়ে রক্ত পড়লে সাথে সাথেই ডাক্তারের সাহায্য নিন। 


ছবি সৌজন্যেঃ ইউটিউব 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!