আদা চায়ের উপকারিতা! (health benefits of ginger tea)

আদা চায়ের  উপকারিতা! (health benefits of ginger tea)

এক গ্লাস লিকার চায়ে কয়েক কুচি আদা ফেললেই কেল্লাফতে! তাতে চায়ের স্বাদ তো বাড়েই, সেই সঙ্গে একাধিক শারীরিক উপকারও পাওয়া যায়। আসলে আদায় রয়েছে প্রচুর মাত্রায় ভিটামিন সি, সেই সঙ্গে মজুত রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম সব আরও একাধিক ভিটামিন এবং মিনারেল, যা নানাভাবে শরীরের উপকারে বিশেষত শরীরকে সুস্থ রাখতে ভিটামিন সি তো সব দিক থেকে সাহায্য করে থাকে। এই কারণেই তো আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞরা নিয়মিত আদা চা (ginger tea) খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। আর যদি এই চায়ে অল্প করে মধু মিশিয়ে খেতে পারেন তাহলে তো কথাই নেই (health benefits of ginger tea)!


আরো পড়ুনঃ রূপচর্চা বা স্বাস্থ্য আদার উপকারিতা অনেক


আদা চায়ের নানান উপকারিতা:


১. মাথা ঘোরা এবং বমি-বমি ভাব কমায়:


gin-1
কোনও কারণে কি মাথা ঘুরছে, সেই সঙ্গে বমি-বমি ভাবও রয়েছে? তাহলে ঝটপট এক গ্লাস আদা চা বানিয়ে খেয়ে ফেলুন, দেখবেন সঙ্গে সঙ্গে উপকার পাবেন। সেই সঙ্গে মাথা যন্ত্রণার মতো সমস্যাও কমবে। আসলে আদায় এত ধরনের উপকারী উপাদান রয়েছে যে তা শরীরে প্রবেশ করা মাত্র বেশ কিছু পরিবর্তন হতে শুরু করে, যার প্রভাব এমন ধরনের সমস্যা কমতে সময় লাগে না। বিশেষত মাথা যন্ত্রণা এবং মাইগ্রেনের চিকিৎসায় আদা চায়ের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে।


২. যে কোনও ধরনের পেটের রোগের প্রকোপ কমবে:


gin-2
নিয়মিত আদা চা (benefits of ginger tea and lemon) খাওয়া শুরু করলে পাচক রসের ক্ষরণ ঠিক মতো হবে। ফলে হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটতে সময় লাগবে না। সেই সঙ্গে গ্যাস-অম্বলের প্রকোপ তো কমবেই, তার পাশাপাশি যে কোনও ধরনের পেটের রোগ কমে যেতেও দেখবেন সময় লাগবে না।


৩. শরীরের ভিতরে প্রদাহের মাত্রা কমবে:


gin-3
কোনও কারণ যদি শরীরে ইনফ্লেমেশন বা প্রদাহের মাত্রা বেড়ে যায়, তাহলে কিন্তু চিন্তার বিষয়। কারণ সেক্ষেত্রে দেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির মারাত্মক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা তো থাকেই, সেই সঙ্গে বেশ কিছু জটিল রোগ মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার আশঙ্কাও যায় বেড়ে। আর সব থেকে চিন্তার বিষয় হল শরীরে প্রদাহের মাত্রা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে কিনা, তা বোঝার কোনও উপায় নেই। আর তাই তো আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞরা নিয়মিত আদা চা খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কারণ আদায় রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান, যা শরীরের ভিতরে প্রদাহের মাত্রা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। সেই সঙ্গে যে কোনও ধরনের ব্যথা কমাতেও এই সব অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান নানাভাবে সাহায্য করে থাকে।


৪. সারা শরীরে রক্তের প্রবাহে উন্নতি ঘটে:


gin-4
আদায় মজুত রয়েছে উপকারী অ্যামাইনো অ্যাসিড, ভিটামিন এবং মিনারেল, যা সারা শরীরে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তের প্রবাহ বাড়িয়ে তুলতে যেমন বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে, তেমনি জ্বর এবং সর্দি-কাশির মতো সমস্যাকে দূরে রাখতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। শুধু তাই নয়, বিশেষজ্ঞদের মতে গরমকালে নিয়মিত আদা চা খাওয়া শুরু করলে অতিরিক্ত ঘাম হওয়ার সম্ভবনাও কমে (ginger and honey tea benefits)।


৫. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে:


gin-5
রোজের ডায়েটে আদা চাকে জায়গা করে দিলে শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন সি-এর মাত্রা বাড়তে শুরু করে, যে কারণে দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার এতটাই উন্নতি ঘটে যে ছোট-বড় কোনও রোগই ধারে কাছে ঘেঁষতে পারে না। শুধু তাই নয়, এই দুই উপকারী উপাদানের গুণে শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।


৬. স্ট্রেসের মাত্রা কমে:


gin-6
গত কয়েক বছরে আমাদের দেশে যে যে রোগের প্রকোপ বেড়েছে, তার প্রায় প্রতিটির সঙ্গেই স্ট্রেসের যোগ রয়েছে। আর আজকের কর্পোরেট দুনিয়ায় স্ট্রেসের থেকে যে কারও মুক্তি নেই, তা তো আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই তো মানসিক চিন্তা বা অ্যাংজাইটির কারণে যাতে শরীরের কোনও ক্ষতি না হয়, তা সুনিশ্চিত করতে নিয়মিত আদা চা খেতেই হবে। কারণ আদায় উপস্থিত নানাবিধ পুষ্টিকর উপাদান নিমেষে স্ট্রেসের মাত্রা কমায়। ফলে মানসিক চিন্তার কারণে শরীরের কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা প্রায় থাকে না বললেই চলে।


৭. আদা চায়ের আরও কিছু উপকারিতা:


gin-7
নিয়মিত এই পানীয়টি খেলে আরও অনেক উপকার পাওয়া যায়। যেমন ধরুন- বন্ধ্যাত্বের মতো সমস্যা দূরে থাকে, ক্যান্সারের মতো রোগ দূরে থাকতে বাধ্য হয়, ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে, ব্রেন পাওয়ার বৃদ্ধি পায় এবং সার্বিকভাবে শরীরের ক্ষমতা বাড়ে (ginger tea benefits weight loss)।


কীভাবে তৈরি করবেন আদা চা:


gin-8
১. পরিমাণ মতো জল নিয়ে ফুটিয়ে নিন। তারপর তাতে চায়ের পাতা ভিজিয়ে লিকার চা বানিয়ে ফেলুন।
২. এবার লিকার চায়ে পরিমাণ মতো আদা কুচি ফেলে ভলো করে মিশিয়ে নিন।
৩. এরপরে চায়ে অল্প করে মধু মিশিয়ে পান করুন। ইচ্ছে হলে অল্প করে লেবুর রসও মেশাতে পারেন, তাতে স্বাদ আরও বাড়বে বৈকি!


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


এগুলোও আপনি পড়তে পারেন


লাল চা পানের উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ