সোলো ট্রিপে এবার গোয়া যাবেন? এই ১০টা সেফটি টিপ আপনার কাজে লাগতে পারে

সোলো ট্রিপে এবার গোয়া যাবেন? এই ১০টা সেফটি টিপ আপনার কাজে লাগতে পারে

বিস্তীর্ণ সমুদ্র, পর্তুগীজ হেরিটেজ, ফেনি, কাজু, দারুণ দারুণ সব সি-ফুড আর জমজমাট পার্টি – Goa-র নাম শুনলে যে-কারও মনে এই ছবিগুলোই ভেসে ওঠে। পৃথিবীর নানা প্রান্ত থেকে অজস্র ভ্রমনপিপাসু মানুষ প্রতি বছর ভিড় জমান ভারতের পশ্চিম উপকূলের এই ছোট্ট রাজ্যে। তাঁদের মধ্যে আবার এমনও অনেকেও আছেন, যারা একা একাই চলে আসেন এখানে। ইদানিং কিন্তু সোলো ট্রিপ (solo trip) বেশ ‘ইন থিং’ এবং মহিলারাও এই ব্যাপারে পিছিয়ে নেই। তবে মহিলাদের পক্ষে সোলো ট্রিপ করার জন্য গোয়া ঠিক কতটা নিরাপদ, সে ব্যাপারে বিতর্ক রয়েছে। যদিও গোয়া নৈসর্গিক সৌন্দর্যে পরিপূর্ণ, তার সঙ্গে কিন্তু এই হলিডে ডেস্টিনেশনটির একটা কুখ্যাত দিকও রয়েছে, সেটা হল মাফিয়া এবং ড্রাগ ডিলিংস! সেকারণেই হয়তো এই প্রশ্নটা বারবার উঠে আসে যে একা একটি মেয়ের পক্ষে একা-একা গোয়াতে বেড়াতে যাওয়াটা ঠিক কতটা নিরাপদ। তবে কয়েকটা ব্যাপারে যদি আপনি সতর্ক থাকেন, তা হলে কিন্তু গোয়ার সোলো ট্রিপ আপনি পুরোপুরি উপভোগ করতে পারেন -


# টিপ ১ – সবসময়ে নিজের লোকেশন বাড়ির লোকের সাথে শেয়ার করে রাখুন


10-essential-safety-tips-for-female-solo-travellers-heading-to-goa %281%29আপনি সোলো ট্রিপে গেছেন মানে কিন্তু এই নয় যে বাড়ির লোকেদের সাথে সমস্ত যোগাযোগ বন্ধ করে দেবেন। কোথায় আছেন না আছেন, সবসময়ে তাঁদেরকে জানাতে থাকুন, প্রয়োজনে হোয়াটসঅ্যাপে লোকেশনও শেয়ার করতে থাকুন।


#টিপ ২ – সঠিক জামাকাপড় নির্বাচন করাটা জরুরি


গোয়া এমন একটা জায়গা যেখানে জামাকাপড় নিয়ে খুব একটা বাধানিষেধ নেই। তবে সেটা কিন্তু শুধুমাত্র বীচে। রাস্তাঘাটে যখন চলাফেরা করবেন বা লোকাল মার্কেট বা সাইটসিয়িং-এ যাবার সময়ে খুব একটা খোলামেলা পোশাক না পরাই ভালো।


#টিপ ৩ – সতর্ক থাকুন


যদি কখনও রাস্তা হারিয়ে ফেলেন এবং তাতে ভয় পেয়ে যান, তাহলে সেটা প্রকাশ করবেন না। দরকার হলে ম্যাপের সাহায্য নিন। আর সেটা সম্ভব না হলে আশপাশের কোনও দোকান বা রেস্তরাঁতে জিজ্ঞেস করে নিন। যদি মনে হয় যে কেউ পিছু নিচ্ছে, তাহলে ভয় না পেয়ে বরং একবার পিছনে ফিরে তাকিয়ে নিজের গন্তব্যের দিকে হাঁটা লাগান।


টিপ ৪ – অচেনা লোকের থেকে একটু দূরে থাকা শ্রেয়


বেড়াতে গিয়ে অনেকসময়েই আমাদের অনেক লোকের সাথে পরিচয় হয়, কিন্তু আপনি সোলো ট্রিপে এসেছেন সেটা তাঁদেরকে বলার দরকার নেই। অচেনা লোকজন অথবা অল্পপরিচিত মানুষের সাথে খুব বেশি ঘনিষ্ঠতার প্রয়োজন নেই।


টিপ ৫ – ইমারজেন্সি নম্বর সঙ্গে রাখুন


10-essential-safety-tips-for-female-solo-travellers-heading-to-goa %284%29গোয়ার সমস্ত ইমারজেন্সি নম্বর যেন সাথে থাকে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। পুলিশ, হাসপাতাল ইত্যাদি নম্বরগুলি দরকার হলে ফোনের স্পীড ডায়ালে রাখুন, অন্তত যে ক’দিন গোয়াতে আছেন সে ক’দিন।


টিপ ৬ – পার্টি করুন, কিন্তু নিজের দায়িত্বে


গোয়ায় গেছেন, তাও আবার সোলো ট্রিপে আর পার্টি করবেন না, সেটা আবার হয় নাকি? করুন করুন, দেদার মস্তি করুন, কিন্তু ‘রেস্পন্সিবলি’! এতটাও ড্রাঙ্ক হয়ে যাবেন না যে কোনও হুঁশ না থাকে!


টিপ ৭ – সাথে পেপার-স্প্রে রাখুন


সবসময়ে ব্যাগের মধ্যে পেপার-স্প্রে রাখুন। আপনি যে গোয়াতে সোলো ট্রিপে এসেছেন, সেটা আপনি কাউকে না বললেও যারা খবর রাখার তারা কিন্তু ঠিকই খবর রাখে! যেকোনো বেগতিক পরিস্থিতিতে তখন ওই পেপার-স্প্রেই আপনাকে বাঁচাবে।


বোনাস টিপস


টিপ ৮ - টাকা বাঁচাতে গিয়ে কোনও সস্তার হোটেলে উঠবেন না, সেখানে আপনি সুরক্ষিত নাও থাকতে পারেন। চেষ্টা করুন কোনও ভালো হোটেলে উঠতে। আজকাল আরামসে অনলাইনে আপনি হোটেল বুক করতে পারেন, আর সেগুলোতে সুরক্ষা নিয়ে কোনও আপোষ করা হয়না।


টিপ ৯ - যদি আপনি সমুদ্রে স্নান করতে চান, তাহলে বীচে যাবার আগে নিজের দরকারি জিনিসপত্র যেমন পরিচয়পত্র, টাকাপয়সা বা মোবাইল ফোন হোটেলের ঘরে রেখে যান। যদি একান্তই কিছু জিনিস যেমন টাকাপয়সা বা মোবাইল ফোন সাথে নিতেই হয় তাহলে কোনও বীচ শ্যাকের মালিককে অনুরোধ করুন যতক্ষণ আপনি সমুদ্রে থাকছেন ততক্ষণ যেন উনি আপনার জিনিসগুলো ওনার হেপাজতে রাখেন।


টিপ ১০ - অনেকসময়ে এমন হতে পারে, বেশি রাত হয়ে গেলে হয়তো ট্যাক্সি ড্রাইভারদেরকে নেশাতুর অবস্থায় দেখতে পারেন। এরকম পরিস্থিতিতে কখনোই ওই ট্যাক্সিতে উঠবেন না।


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!