শুধু SPF দেখে নয়, সানস্ক্রিন কিনুন ত্বকের ধরন অনুযায়ী! রইল সেরা ১০টি সানস্ক্রিনের খোঁজ (Best Sunscreens for Face)

শুধু SPF দেখে নয়, সানস্ক্রিন কিনুন ত্বকের ধরন অনুযায়ী! রইল সেরা ১০টি সানস্ক্রিনের খোঁজ (Best Sunscreens for Face)

গরম হোক বা শীত, যখনই আমরা বাইরে বেরোই, বেশ ভাল করে সানস্ক্রিন লাগিয়ে তবেই বেরোই। তবে অনেকেই ঠিক বুঝতে পারেন না যে, কোন সানস্ক্রিনটা তাঁর ত্বকের জন্য সঠিক। হ্যাঁ, অনেকেই জানেন না যে এক-এক ধরনের ত্বকের জন্য এক-এক রকমের সানস্ক্রিন জরুরি। যেমন ধরুন, আপনার ত্বক যদি শুষ্ক হয়, তা হলে আপনার এক রকমের সানস্ক্রিন দরকার, আবার যাঁদের ত্বক তেলতেলে তাঁদের জন্য অন্য রকমের সানস্ক্রিন। খেয়াল করে দেখবেন, অনেকেই হাতের সামনে যা সানস্ক্রিন পেলেন, সেটাই মেখে নিলেন, কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হল না এবং সব দোষ গিয়ে পড়ল বেচারি সানস্ক্রিনের (sunscreens) উপরে। কীভাবে ত্বকের ধরন অনুযায়ী সানস্ক্রিন বাছবেন, সেটাই জানিয়ে দেব আজ।


 


স্বাভাবিক ত্বকের জন্য ৪টি সেরা সানস্ক্রিন (Sunscreen for Normal Skin)


১। লোটাস সেফ সান থ্রি ইন ওয়ান ম্যাট লুক ডেলি সানব্লক এসপিএফ ৪০ (Lotus Safe Sun 3-In-1 Matte Look Daily Sunblock SPF-40)


sunscreen-for-all-skin-type 01


কম দামে যদি আপনি একটি ভাল সানস্ক্রিন খোঁজেন, তা হলে লোটাসের এই প্রোডাক্টটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন এটি স্বাভাবিক ত্বকের জন্য সেরা সানস্ক্রিন। ক্ষতিকর সূর্যকিরণ থেকে ত্বক তো রক্ষা পাবেই, সঙ্গে আপনার ত্বকের টেক্সচারও ঠিক হবে, ত্বকের দাগ-ছোপ দূর হবে এবং ত্বক দেখাবে সুন্দর ও উজ্জ্বল।


 


সুবিধে (Advantages):


  • সুন্দর একটা ম্যাট ফিনিশ লুক দেয়

  • ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বৃদ্ধি করে

  • ত্বকে কোনও ইরিটেশন হতে দেয় না


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • সানস্ক্রিনটি টিউবের মুখ থেকে বেরিয়ে আসে আপনাআপনিই! ফলে একটু সাবধানে ব্যবহার করতে হয়


দাম: ২৯৬ টাকা (১০০ গ্রাম)


এখান থেকে কিনতে পারেন


মেকআপ -এর এ টু জেড


২। কায়া ইউথ প্রোটেক্ট সানস্ক্রিন এসপিএফ ৫০ (Kaya Youth Protect Sunscreen SPF-50)


sunscreen-for-all-skin-type 02


অনেকেরই চামড়া খুব পাতলা। ফলে একটু অযত্ন করলেই কিছুদিনের মধ্যে চামড়া ঝুলে যায় এবং ত্বক অকালেই বুড়িয়ে যায়। আপনারও যদি এরকম সমস্যা থাকে, তা হলে আপনি কায়া ইউথ প্রোটেক্ট সানস্ক্রিন এসপিএফ ৫০ ব্যবহার করে দেখতে পারেন। সূর্যের ইউভি এ এবং ইউভি বি রশ্মি (UV Rays) থেকে ত্বককে রক্ষা করার সঙ্গে ত্বকের ইলাস্টিসিটিও বৃদ্ধি করে এই প্রোডাক্টটি। ফলে, চামড়া ঝুলে গিয়ে ত্বক অকালে বুড়িয়ে যায় না।


 


সুবিধে (Advantages):


  • ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে

  • অকাল-বার্ধক্য রোধ করে

  • হালকা এবং চিটচিটে নয়


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • প্রয়োজনের তুলনায় বেশি ব্যবহার করলে ত্বকের উপরে একটা সাদা স্তর ফেলে দেয়।


দাম: ৪৩৫ টাকা (৫০ মিলি)


এখান থেকে কিনতে পারেন


৩। ল্যাক্টো ক্যালামাইন সান শিল্ড এসপিএফ ৩০ পিএ (Lacto Calamine Sun Shield SPF-30)


sunscreen-for-all-skin-type 03


আগে তো মোটামুটি সব বাঙালি বাড়িতেই ল্যাক্টো ক্যালামাইন-এর লোশন ব্যবহারের চল ছিল, এখনও অনেক বাড়িতেই মা-কাকিমারা এই প্রোডাক্ট ব্যবহার করেন। তবে ল্যাক্টো ক্যালামাইন-এর এই সানস্ক্রিনটিও ত্বকের জন্য সেরা সানস্ক্রিন। এটি শুধুমাত্র সূর্যের রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করেই ক্ষান্ত হয় না, বরং এর মধ্যে থাকা ভিটামিন ই ত্বকের পিগমেন্টেশন, কালচে ছোপ, এবং অকালে ত্বক বুড়িয়ে যাওয়ার মতো সমস্যাও দূর করতে সাহায্য করে।


 


সুবিধে (Advantages):


  • ত্বকের কোনও ক্ষতি করে না

  • বোতলের গায়ে সমস্ত উপাদানের নাম লেখা আছে

  • সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • একটু উগ্র গন্ধ, সবার পছন্দ নাও হতে পারে


দাম: ১৯৯ টাকা (৫০ মিলি)


এখান থেকে কিনতে পারেন


বাবা রামদেবের পতঞ্জলি বিউটি প্রোডাক্টই ত্বকের জন্য সবচেয়ে ভালো


৪। ভিএলসিসি অ্যান্টি ট্যান সানস্ক্রিন লোশন এসপিএফ ২৫ (VLCC Anti Tan Sunscreen Lotion SPF-25)


sunscreen-for-all-skin-type 04


যদি আপনার খুব বেশি ঘাম হয়, তা হলে এই সানস্ক্রিনটি আপনার জন্য সঠিক। ভিএলসিসি-র এই সানস্ক্রিন লোশনটি ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর ইউভি এ এবং ইউভি বি রশ্মির থেকেই যে শুধু রক্ষা করে তা নয়, এটি যেহেতু তেলতেলে নয়, কাজেই ঘাম থেকেও ত্বককে রক্ষা করে। এছাড়া লেবু, জোজোবা অয়েল, অ্যালো ভেরা, এবং চন্দন দিয়ে তৈরি এই প্রোডাক্ট আপনার ত্বকের যে-কোনও ইনফেকশন দূর করতে এবং ত্বক সুকোমল রাখতেও সাহায্য করে।


 


সুবিধে (Advantages):


  • পকেটসই

  • ত্বকের দাগ-ছোপ দূর করতে সাহায্য করে


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • এসপিএফ-এর মাত্রা খুবই কম


দাম: ১৪৯ টাকা (১৫০ মিলি)


এখান থেকে কিনতে পারেন


তেলতেলে ত্বকের জন্য এই ৪টি সানস্ক্রিন সেরা (Sunscreen for Oily Skin)


১। নিভিয়া ময়শ্চারাইজিং সান লোশন এসপিএফ ৫০ (Nivea Moisturising Sun and Collagen Protection Lotion SPF-50)


sunscreen-for-all-skin-type 05


গরমকাল হোক বা শীতকাল, সূর্যের ক্ষতিকর উই ভি এ এবং উই ভি বি – এই দুটি রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করতে নিভিয়ার এই সানস্ক্রিনটি আপনি চাইলে ব্যবহার করতে পারেন। এর অভিনব ফর্মুলা ত্বকের ভেতরে ভালোভাবে মিশে যায় এবং ত্বককে ক্ষতিকর সূর্যের কিরণ থেকে রক্ষা করতে শুরু করে দেয়। বাড়ি থেকে বেরোনোর অন্তত ২০ মিনিট আগে এই সানস্ক্রিন মুখে এবং শরীরের বাকি খোলা অংশে (হাত, গলা, পায়ের পাতা) মেখে তবেই বেরন।


 


সুবিধে (Advantages):


  • হালকা এবং অনায়াসে ত্বকের সঙ্গে মিশে যায়

  • ত্বকের তেল বেরনো আটকাতে সাহায্য করে


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • তেমন কিছু নেই


দাম: ৩৭৪টাকা (১২৫ মিলি) 


এখান থেকে কিনতে পারেন


২। বায়োটিক বায়ো স্যান্ডলউড আল্ট্রা সুদিং ফেস লোশন এসপিএফ ৫০ (Biotique Bio Sandalwood Ultra Soothing Face Lotion SPF-50)


sunscreen-for-all-skin-type 06


চন্দন, জাফরান, গমের বীজ, মধু আর অর্জুন গাছের ছাল – এই সব প্রাকৃতিক উপাদানের গুণে সমৃদ্ধ বায়োটিকের এই সানস্ক্রিন কোনওরকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই রোদ, গরম এবং ইউ ভি রশ্মির হাত থেকে ত্বককে রক্ষা করে। অনেকের ধারণা আছে যে, যাঁদের ত্বক তেলতেলে, তাঁদের গরমকালে ময়শ্চারাইজার না লাগালেও চলে! এটি ভুল ধারণা, আর বায়োটিকের এই সানস্ক্রিন ত্বককে অতিরিক্ত তেলতেলে না করেই ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে।


 


সুবিধে (Advantages):


  • যেহেতু সবকটি উপাদানই আয়ুর্বেদিক, কাজেই কোনও জ্বালা-পোড়া বা ত্বকের ইরিটেশন হয়না

  • ক্যারি করা সহজ, লিক করে না


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • ম্যাট লুক আসে না।


দাম: ৫৫০ (১৯০ মিলি) 


এখান থেকে কিনতে পারেন


গরমকালে ত্বকের ঔজ্বল্য বাড়ানোর জন্য ফলো করুন এই ৭টি বিউটি টিপস্


৩। লরিয়েল প্যারিস ইউ ভি পারফেক্ট ট্রান্সপারেন্ট নন টিন্টেড সানস্ক্রিন উইথ এসপিএফ ৫০ (L'oreal Paris UV Perfect Transparent Skin - Non Tinted Sunscreen SPF-50)


sunscreen-for-all-skin-type 07


রোদ থেকে তেলতেলে ত্বক রক্ষা করার জন্য লরিয়েল প্যারিস ইউ ভি পারফেক্ট ট্রান্সপারেন্ট নন টিন্টেড সানস্ক্রিন উইথ এসপিএফ ৫০ একটি দারুণ প্রোডাক্ট। মজার ব্যাপার, এটি আপনি শুধু সানস্ক্রিন হিসেবেই নয়, মেকআপ বেস হিসেবেও ব্যবহার করতে পারবেন। যাঁদের স্কিন অয়েলি এবং অতিরিক্ত তেল এবং ঘামের কারণে যদি মেকআপ করতে সমস্যা হয়, তা হলে আপনি মেকআপ বেস হিসেবে এই প্রোডাক্টটি ব্যাবহার করতে পারেন


 


সুবিধে (Advantages):


  • ঘাম হতে দেয় না

  • এটি আপনি মেকআপ বেস হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন, একটা হালকা টিন্টেড লুক দেয়


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • বেশ দামি


দাম: ৫১৫ টাকা (৩০ মিলি) 


এখান থেকে কিনতে পারেন


৪। ল্যাকমে সান এক্সপার্ট আল্ট্রা ম্যাট এসপিএফ ৫০ (Lakme Sun Expert Ultra Matte Lotion SPF-50)


sunscreen-for-all-skin-type 08


ল্যাকমে বিউটি প্রোডাক্টের জগতে একটা সুপরিচিত ব্র্যান্ড। আমাদের দেশে যেরকম গরম পড়ে, তার হাত থেকে ত্বককে বাঁচানোর জন্য এমন সানস্ক্রিন প্রয়োজন, যার এসপিএফ-এর মাত্রা বেশি। তা ছাড়া আর অয়েলি স্কিনের জন্য এই সানস্ক্রিনটি অত্যন্ত কার্যকরী। খুবই হালকা এই সানস্ক্রিনটি যেহেতু একটা ম্যাট ফিনিশ লুক দেয় কাজেই তেলতেলে ত্বক আরও বেশি তেলতেলে মনে হয়না। এছাড়াও রোদ থেকে হওয়া সমস্যা যেমন সানবার্ন, দাগ-ছোপ ইত্যদি দূর করতেও সাহায্য করে।


 


সুবিধে (Advantages):


  • চিটচিটে নয়

  • ম্যাট ফিনিশ লুক দেয়

  • ত্বকের নানা দাগ-ছোপ দূর করতে সাহায্য করে


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • কিছুই নেই


দাম: ১৮৭ টাকা (৫০ মিলি)


এখান থেকে কিনতে পারেন


ত্বক যদি সংবেদনশীল হয়, তা হলে ব্যবহার করুন এই ৩টি সানস্ক্রিন (Sunscreen for Sensitive Skin)


১। ক্লিনিক সুপার সিটি ব্লক আল্ট্রা প্রোটেকশন এসপিএফ ৪০ (Clinique Super City Block Ultra Protection SPF-40)


sunscreen-for-all-skin-type 09


ক্লিনিক-এর সব প্রোডাক্টই বাজারচলতি বাকি প্রোডাক্টের তুলনায় একটু বেশি দামি। তবে এর গুণগত মান কিন্তু বেশ ভাল। এই ব্র্যান্ডের সানস্ক্রিনটি যাঁদের ত্বক সংবেদনশীল এবং ব্রণ-ফুসকুড়ির সমস্যা রয়েছে তাঁদের জন্য খুবই ভাল। যেহেতু এটি অয়েল-ফ্রি, কাজেই ত্বকে তেলতেলে ভাব দূর করে এবং ধুলো-ময়লা জমতে দেয় না, ফলে অ্যাকনের সমস্যাও হয় না।


 


সুবিধে (Advantages):


  • হালকা এবং চট করে ত্বকের ভেতরে মিশে যায়

  • ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে

  • প্যাকেজিংটি বেশ ভাল


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • সব জায়গায় পাওয়া যায় না

  • বেশ দামি


দাম: ৩৮১২ টাকা (৪০ গ্রাম)


এখান থেকে কিনতে পারেন


সংবেদনশীল ত্বকের জন্য এই ৫টা হ্যান্ডমেড সোপ সবচেয়ে ভাল


২। সানক্রস ৫০ অ্যাকোয়ালোশন এসপিএফ ৫০ (Suncros 50 Aqualotion SPF-50)


sunscreen-for-all-skin-type 10


ডারমেটোলজিস্ট দ্বারা অনুমোদিত এই সানস্ক্রিনটি সংবেদনশীল ত্বকের জন্য একদম পারফেক্ট! ভিটামিন ই এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ এই সানস্ক্রিনটি একটু পাতলা, তবে ত্বকে বেশ ভালভাবেই মিশে যায়। যাঁরা বেশিরভাগ সময়টাই বাইরে কাটান, তাঁদের জন্য এই সানস্ক্রিনটি খুব ভাল কাজে দেয়।


 


সুবিধে (Advantages):


  • ত্বকের পোরস ব্লক করে না ফলে ত্বকে ময়লা জমে ব্রণ বা অ্যাকনের সমস্যা দেখা দিতে পারে না

  • ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে এবং অকালে ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে

  • যেহেতু এসপিএফ-এর মাত্র বেশি কাজেই সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে


 


অসুবিধে (Disadvantages):


  • সানস্ক্রিনটি ত্বকে লাগানোর পর একটু অপেক্ষা করতে হয় যাতে ত্বকে ভালভাবে মিশে যেতে পারে


দাম: ২৮৬ টাকা (৬০ মিলি)


এখান থেকে কিনতে পারেন


সানস্ক্রিন সংক্রান্ত নানা প্রশ্নোত্তর (FAQs)


১। প্রশ্ন: এসপিএফ ৩০ আর এসপিএফ ৫০-র মধ্যে কী তফাত?


উত্তর: এসপিএফ ৩০ যুক্ত সানস্ক্রিন মোটামুটি সব ধরনের ত্বকের জন্যই উপযুক্ত। সানস্ক্রিনের এসপিএফ মাত্রা দেখে বোঝা যায় যে, সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বক কতটা রক্ষা পাচ্ছে। যেমন ধরুন, ডারমাটোলজিস্টদের মতে, এসপিএফ ১৫ ত্বককে ইউভি রশ্মি থেকে ৯৩% রক্ষা করে, আবার এসপিএফ ৩০ ৯৭% রক্ষা করে আর এসপিএফ ৫০ ৯৮% রক্ষা করে।


২। প্রশ্ন: ঠোঁটে সানস্ক্রিন লাগানো উচিত নাকি উচিত না?


উত্তর: অবশ্যই! তবে আপনি যদি সিলিকা জেল বেসড সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে ঠোঁটে লাগাবেন না।


top-5-moisturizers-to-use-during-summer %282%29


৩। প্রশ্ন: বাড়ি থেকে বেরনোর কতক্ষণ আগে সানস্ক্রিন লাগানো উচিত?


উত্তর: বাড়ি থেকে বেরনোর অন্তত আধ ঘণ্টা আগে সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন। অনেকেই একটা ভুল করেন সানস্ক্রিন লাগানোর সময়ে শুধুমাত্র মুখে লাগান, কিন্তু সূর্যের রশ্মি শরীরের যে অংশে লাগতে পারে, যেমন পায়ের পাতা, হাত, গলা ইত্যাদি জায়গাতেও সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন। এরপর কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন যাতে সানস্ক্রিন আপনার ত্বকের সঙ্গে মিশে যায়।


৪। প্রশ্ন: আমার খুব ঘাম হয়, কীভাবে সানস্ক্রিন ব্যবহার করব?


উত্তর: অতিরিক্ত ঘাম হলে আপনি ওয়াটারপ্রুফ সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন। গরমকালে আমরা অনেকেই সুইমিং পুলে বেশ অনেকটা সময় কাটাই, তাতে এক্সারসাইজও হয় আবার আরামও লাগে। কিন্তু তখন যদি ‘জলে সানস্ক্রিন ধুয়ে যাবে’ এটা ভেবে সানস্ক্রিন না লাগিয়েই সাঁতার কাটতে নেমে পড়েন, তা হলে ট্যানের সঙ্গে সানবার্নও হতে পারে। কাজেই ওয়াটারপ্রুফ সানস্ক্রিন ব্যাবহার করাটাই সেক্ষেত্রে বুদ্ধিমানের কাজ।  


৫। প্রশ্ন: মেঘলা দিনেও কি সানস্ক্রিন লাগানো দরকার?


উত্তর: আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন, যাঁরা সানস্ক্রিন শুধুমাত্র তখন ব্যবহার করেন, যখন রোদ ওঠে! কিন্তু যেদিন মেঘলা থাকে, সেদিন আর ব্যবহার করেন না, এরকম করা কিন্তু একেবারেই উচিত নয়। কারণ, সূর্যের তাপ থেকে না, সূর্যের ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করাই সানস্ক্রিনের কাজ। মেঘলা দিনেও কিন্তু সূর্যের ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি যথেষ্ট পরিমাণেই থাকে, যা ত্বকের ক্ষতি করার জন্য কম নয়। কাজেই, চড়চড়ে রোদ হোক বা মেঘলা, দিনের বেলা যখনই বাইরে বেরবেন, সানস্ক্রিন লাগিয়ে তবেই বেরনো ভাল।


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!