এই ছ'টি খাবার খেয়ে বাড়িয়ে ফেলতে পারেন বুদ্ধি ও স্মৃতিশক্তি!

এই ছ'টি খাবার খেয়ে বাড়িয়ে ফেলতে পারেন বুদ্ধি ও স্মৃতিশক্তি!

তিরিশের কোটা যেই না পেরল, অমনই হার্ট, কিডনি, লিভারের মতো ব্রেনের ক্ষমতাও কমতে থাকে। তখন কথায় কথায় ভুলে যাওয়ার মতো সমস্যা তো লেজুড় হয়ই, সঙ্গে বুদ্ধির ধারও কমে। সে সময় যদি ঠিক মতো ব্রেনের মেরামতি করা না যায়, তা হলে কিন্তু বিপদ। কারণ, সেক্ষেত্রে বুড়ো বয়সে গিয়ে অ্যালঝাইমার্স অথবা ডিমেনশিয়ার খপ্পরে পড়ার আশঙ্কা যায় বেড়ে। কিন্তু জানা আছে কি, ব্রেনের ক্ষমতা ধরে রাখবেন কীভাবে? জানা না থাকলে জেনে নিন আমাদের কাছ থেকে।

ব্রেনের ক্ষমতা বাড়ায় এই খাবারগুলি

১. জাম

গাড়িতে তেল না ঢাললে যেমন ইঞ্জিন চলবে না, তেমনই ব্রেনের যা খোরাক, তার যোগান যদি ঠিকমতো না হয়, তা হলে তো সে মুখ থুবড়ে পড়বেই! তাই রোজের ডায়েটে বিশেষ কিছু খাবারকে (Foods) জায়গা করে দিতে হবে। তার মধ্যে প্রথমেই থাকবে জাম। কারণ, এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, রয়েছে catechin, quercetin এবং ক্য়াপিক অ্যাসিডের মতো উপদানও, যা ব্রেনের কোষগুলির কর্মক্ষমতা বাড়ায়। সঙ্গে নানা neurodegenerative disease-কে দূরে রাখে। এমনকী, স্মৃতিশক্তির উন্নতি ঘটাতেও বিশেষ ভূমিকা নেয়।

২. অ্যাভোকাডো

এই বিদেশি ফলটি একটু দামি বটে, কিন্তু ব্রেনের স্বাস্থ্যকে চাঙ্গা রাখতে অ্যাভোকাডোর জুড়ি মেলা ভার। এতে মজুত রয়েছে উপকারী monounsaturated fats, যা ব্রেনের ক্ষমতা বাড়ায়। ফলে স্মৃতিশক্তি এবং বুদ্ধির ধার বাড়তে সময় লাগে না। এ ছাড়া অ্যাভোকাডোতে উপস্থিত ভিটামিন K এবং ফলেট, কগনিটিভ ফাংশনের উন্নতি ঘটায়, যে কারণে বয়সের সঙ্গে-সঙ্গে ব্রেনের ক্ষমতা কমে যাওয়ার আশঙ্কা আর থাকে না।

৩. তৈলাক্ত মাছ

সারা দেশে যেখানে লাফিয়ে-লাফিয়ে ব্রেন ডিজিজে আক্রান্তের সংখ্যাটা বাড়ছে, সেখানে বাঙালিদের মধ্যে এমন রোগের প্রকোপ সেভাবে বাড়েনি। এর পিছনে মূল কারণ হল আমাদের ডায়েট। বাঙালিদের মাছ ছাড়া চলে না। কিন্তু মাছের সঙ্গে ব্রেনের কী সম্পর্ক? আর তৈলাক্ত মাছে থাকে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড, যা neurons-এর ক্ষমতা বাড়ায়। ফলে ব্রেনের ক্ষমতা বাড়ে চোখে পড়ার মতো। আমাদের খাদ্যতালিকায় রোজ জায়গা করে নেয়, এরকম কিছু মাছ, যেমন, রুই-কাতলা, ভোলা ভেটকি, গুলে, শিঙি, মাগুর ইত্যাদিতে এই অ্যাসিড আছে ভরপুর মাত্রায়। সেই কারণেই তো আমাদের বুদ্ধির এত ধার! কম বয়সেই স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটুক, এমনটা যদি না চান, তা হলে প্রতিদিন মাছ খেতে ভুলবেন না যেন!

আরও পড়ুন: মাছের দুটি সুস্বাদু রেসিপি!

৪. আখরোট (Walnuts)

রোজ এক মুঠো আখরোট খেলে কি হয় জানেন? শরীরে ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের মাত্রা তো বাড়বেই, সঙ্গে ভিটামিন ই-এর পরিমাণও বাড়তে শুরু করবেষ ফলে মস্তিষ্কের কোযগুলির ক্ষমতা বাড়বে, স্মৃতিশক্তিও (Memory) বাড়বে চোখে পড়ার মতো! এমনকী মনোযোগ ক্ষমতার উন্নতি ঘটতেও সময় লাগবে না। রক্তে মিশে থাকা ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানের কারণে যাতে ব্রেন সেলের কোনও ক্ষতি না হয়, সেদিকেও নজর রাখে ভিটামিন ই। তাই তো নিয়মিত আখরোট খেলে কোনও ধরনের ব্রেন ডিজিজে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা আর থাকে না।

আরও পড়ুন: আমন্ড বাদাম শুধু খেতেই ভাল নয়, এই তেলের আছে অসংখ্য গুণও

৫. ব্রকোলি

ফুলকপি-বাঁধাকপির জাত ভাই হল এই ব্রকোলি। দাম একটু বেশি বই কী! কিন্তু ব্রেনের যত্নে এই সবজিটির কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। কারণ, এতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন K, ব্রেন সেলের খেয়াল রাখে, ব্রেনের ক্ষমতাও বাড়ায়। ফলে অসময়ে স্মৃতিলোপ পাওয়ার আশঙ্কা কমে। বাড়ে বুদ্ধির ধারও।

৬. ডিম

অনেকদিন আগে একটি বিজ্ঞাপনে বলা হত, প্রতিদিন খান ডিম, এর গুণ যে অসীম! ব্যাপারটা কিন্তু সত্যিই তাই।  প্রতিদিন ডিম খেলে তাতে সত্যিই নানা উপকার মিলবে। বিশেষত, ভিটামিন বি, বি৬, বি ১২ এবং ফলিক অ্যাসিডের মাত্রা বাড়ার কারণে ব্রেনের কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকবে না। সেই সঙ্গে প্রোটিনের ঘাটতি মিটবে, উপকারী কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়বে, দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটবে এবং হার্টের রোগ দূরে থাকতে বাধ্য হবে।

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!