শরীরচর্চার পরে এই নিয়মগুলি মেনে নিজেকে ব্যাকটেরিয়া মুক্ত রাখুন। in Bengali | POPxo

শরীরচর্চার আগে ও পরে মাথায় রাখুন এই স্বাস্থ্যকর অভ্য়েসগুলির কথা

শরীরচর্চার আগে ও পরে মাথায় রাখুন এই স্বাস্থ্যকর অভ্য়েসগুলির কথা

ফিট থাকতে নিয়মিত মিনিটতিরিশেক শরীরচর্চা (workout) করতেই হবে। কিন্তু দয়া করে ওই ঘেমো পোশাকে বেশিক্ষণ থাকবেন না যেন! কারণ, ঘাম মানেই সেখানে এসে ভিড় জমাবে নানা ব্যাকটেরিয়া। আর এরা যদি একবার ঘর বাঁধার সুযোগ পেয়ে যায়, তা হলেই বিপদ। কারণ খুব অল্প সময়েই ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা লাফিয়ে-লাফিয়ে বাড়ে। ফলে নানাবিধ ত্বকের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা যেমন বাড়ে, তেমনই বেশ কিছু সংক্রামক রোগও ঘাড়ে চেপে বসতে পারে। তাই শরীরচর্চার পরে মিনিটপাঁচেকের মধ্যেই তখন পরা পোশাক বদলে ফেলতে হবে । সঙ্গে মেনে চলতে হবে আরও কিছু নিয়ম। কী-কী নিয়ম তাই ভাবছেন? জেনে নিন আমাদের কাছ থেকে।

ব্যাকটেরিয়াল সংক্রমণ থেকে দূরে থাকতে মেনে চলুন এই নিয়মগুলি

১. সাবান দিয়ে ভাল করে হাত ধুতে হবে

জিমে গিয়ে কি শরীরচর্চা করেন? তা হলে এক্সারসাইজ শেষ হলে ভাল করে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলতে হবে। কারণ, জিমের ইকুইপমেন্ট মানেই অনেকেই তা ব্যবহার করবেন। আর তাঁদের হাতে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়া এসে ভিড় জমাবে হয় ডাম্বলে, নয়তো অন্য সরঞ্জামে। আর সেগুলি যখন আপনি ব্যবহার করবেন, অমনই সেই সব জীবাণু আপনার হাতে এসেও ভিড় জমাবে। সে সময় ভুলবশত যদি হাতটা মুখে, নাকে বা চোখে চলে যায়, তা হলেই বিপদ! কারণ ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াগুলি একবার শরীরের ভিতরে প্রবেশ করা মানেই নানা রোগ ঘাড়ে চেপে বসবে। আর যদি আপনার ইমিউনিটি দুর্বল হয়, তা হলে তো চিন্তা আরও বাড়বে। কিন্তু এত সব সমস্যা এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব, যদি জিমের পরে ভাল করে হাত ধুয়ে (hygiene) নেওয়া হয়। তাতে রোগ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়াগুলি ধুয়ে যায়। ফলে বিপদের আশঙ্কা কমে।

আরও পড়ুন: জিমে না গিয়েও আপনার ওজন কমবে ডিটক্স ওয়াটারে 

২. জিমের যে-কোনও সরঞ্জাম ব্যবহার করার আগে মুছে নিন

একাধিক স্টাডিতে একথা জলের মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে যে, যেখানেই ঘাম জমে, সেখানেই ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। আর জিমের সরঞ্জাম তো ব্যাকটেরিয়ার আঁতুড় ঘর! তাই তো জিমে গিয়ে যে-কোনও ইকুইপমেন্ট ব্যবহার আগে, তা ধরার জায়গাটা অন্তত ভাল করে মুছে নিন। এমনকী, আপনার ব্যবহার হয়ে যাওয়ার পরেও একই কাজ করুন। তাতে আপনার যেমন নানা সংক্রমক রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমবে, তেমনই আপনার ঘামে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়ার কারণে অন্য কারও শারীরিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও আর থাকবে না। তাতে লোকে আপনাকে শুচিবায়ুগ্রস্ত ভাবলেও ক্ষতি নেই!

৩. সপ্তাহে বারতিনেক যোগা ম্যাট পরিষ্কার করতে হবে

যোগ ম্যাটে রয়েছে একাধিক ছোট-ছোট ছিদ্র, যেখানে প্রতিদিন ঘাম জমে। ফলে সেখানে এসে হাজির হয় একাধিক ব্যাকটেরিয়া। যারা আবার অল্প দিনেই সংখ্যায় বৃদ্ধি পায়। ফলে এত শত জীবাণুর মাঝে নিজেকে সুস্থ রাখাটা যে বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়ায়, তা নিশ্চয়ই আর বলে দিতে হবে না। তাই সুস্থ থাকতে সপ্তাহে বারতিনেক সাবান জল দিয়ে ভাল করে যোগা ম্যাট ধুতে হবে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, জিমে থাকা সর্বজনীন যোগা ম্যাট ব্যবহার না করাই শ্রেয়। কারণ সেগুলি ভাল করে পরিষ্কার হয় কিনা, তা জানা নেই। আর যদি দিনের পর দিন অপরিষ্কার থাকে, তা হলে আপনার যে শিরে সংক্রান্তি, তা তো বলাই বাহুল্য!

৪. শরীরচর্চার পরে স্নান করে নিন

শরীরচর্চার সময় অতিরিক্ত ঘাম হওয়াটা স্বাভাবিক। এই ঘামের কারণে লোমকূপ আটকে যায়, ফলে ত্বক তেলতেল হয়ে ওঠে, যা ব্যাকটেরিয়ার বংশবৃদ্ধির জন্য একেবারে অনুকূল পরিবেশ! এই কারণে ব্রণর প্রকোপও বাড়ে। সেই জন্যই তো শরীরচর্চার পরে স্নান করা জরুরি! তাতে বন্ধ হয়ে যাওয়া লোমকূপগুলি খুলে যায়, ফলে ব্রণর প্রকোপ কমে। কমবে ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও।

আরও পড়ুন: গরমকালে এই সব সংক্রমণ থেকে সাবধান! 

৫. বদলে ফেলতে হবে পোশাক

শরীরচর্চা শেষ হওয়ার মিনিটপাঁচেকের মধ্যে পোশাক বদলে ফেলতে হবে। এমনকী, বদলে ফেলতে হবে অন্তর্বাসও। কারণ ঘাম চপচপে পোশাকে খুব দ্রুত ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। তাই তো এমন পোশাক পরে থাকলে সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়ে। আর অন্তর্বাসে উপস্থিত জীবাণুর কারণে যোনিদেশে pH লেভেল কমতে শুরু করে, যে কারণে মারাত্মক চুলকানি হয়। এমনকী, ব্যাকটেরিয়াল সংক্রমণের আশঙ্কাও থাকে।

৬. সপ্তাহে একবার জুতো-ব্যাগও পরিষ্কার করতে হবে

শরীরচর্চার সময় যে জুতো পরেন, আর যে ব্যাগে নানা জিনিস নিয়ে যান, সেগুলিও সপ্তাহে অন্তত একবার ভাল করে সাবান জল দিয়ে পরিষ্কার করুন। কারণ জিমের পোশাকে যে পরিমাণ ব্যাকটেরিয়া এসে ভিড় জমায়, ততটাই থাকে ব্যাগে এবং জুতোতে। সেই কারণেই তো নিয়ম করে এগুলি পরিষ্কার না করলে সংক্রমণে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যায়। ব্যাকটেরিয়াগুলিকে সমূলে খতম করতে জিমের পোশাকের পাশাপাশি নিয়ম করে সপ্তাহে একদিন ব্যাগ-জুতো ধুতে ভুলবেন না যেন!

 

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!