যখন তখন মাথা ধরে? রইল চটজলদি মাথা ধরা দূর করার ঘরোয়া উপায়

যখন তখন মাথা ধরে? রইল চটজলদি মাথা ধরা দূর করার ঘরোয়া উপায়

মাথার যন্ত্রণা (headache)। উফ, সে সত্যি বড় যন্ত্রণা। অফিসে জরুরি মিটিং চলছে, এদিকে আপনার মাথায় কে যেন দমাদম হাতুড়ি পিটছে! সারাদিন সংসারের জোয়াল ঠেলে একটু গল্পের বই পড়বেন ভাবলেন, কিন্তু এমন অসহ্য মাথা ধরা, তাকাতেই পারলেন না বইয়ের দিকে! এরকম প্রায় প্রত্যেকের সঙ্গেই হয়ে থাকে। মুঠো-মুঠো মাথা ব্যাথার ওষুধ খাওয়াটা কিন্তু কোনও সমাধান নয়। কারণ, প্রথমত, এতে সাময়িক ব্যাথার উপশম হয়। পরে আবার ব্যথা হতে পারে। দ্বিতীয়ত, পেনকিলার সরাসরি প্রভাব ফেলে কিডনিতে। ফলে পরবর্তীকালে আপনার কিডনির সমস্যা দেখা দিতে পারে। কিছু পেনকিলার তো হার্টেরও ক্ষতি করে। তাই মাথায় ব্যথা হলেই চট করে পেনকিলার খাওয়ার আগে এই সহজ ঘরোয়া সমাধানগুলো (home remedies) একবার ট্রাই করে দেখুন। 


আরও পড়ুন ঋতুস্রাবের সময় পেট ও কোমর ব্যথা দূর করার ঘরোয়া উপায়


আরও পড়ুন ইনসমনিয়া (Insomnia) কাটাতে শুতে যাওয়ার আগে খান এই পানীয়গুলো 


মাথা ব্যাথার কী-কী কারণ হতে পারে? 


১) খাবার হজম না হলে, তার চেয়ে যদি গ্যাস বা অম্বল হয় তার জন্য মাথা ব্যথা হয়। 


২) ঠান্ডা লাগলে বা কফ জমে গেলে মাথা ব্যথা হয়। 


৩) মাথার কোথাও আঘাত লাগলে ব্যথা হতে পারে। 


৪) প্রচণ্ড গরম এবং স্ট্রেস থেকেও মাথা ব্যথা হয়ে থাকে।


৫) এগুলোর বাইরে যদি মাথার ভিতরে কোনও সমস্যা থেকে ব্যথা হয়, দেরি না করে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করা উচিত।


৬) শরীরে জলের ঘাটতি দেখা দিলেও মাথা ব্যথা হয়। 


ঘরোয়া উপায় 


বেশি করে জল পান করুন 


glass of water


দেখা গেছে, অনেক সময় শরীরে জলের ঘাটতি দেখা দিলেও মাথা ব্যথা হয়। অনেক সময় মাথা ব্যথা করলে জল পান করার আধ ঘণ্টা পর সেটা সেরে যায়। তাই দিনে অন্তত ১০ থেকে ১২ গ্লাস জল পান করুন। 


ম্যাগনেশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খান 


dark chocolate


অনেক সময় শরীরে যদি ম্যাগনেশিয়াম নামক খনিজের ঘাটতি দেখা যায়, তা হলেও মাথা ব্যথা হয়। তাই ম্যাগনেশিয়াম আছে এমন খাবার যেমন পালং শাক, বিভিন্ন রকমের বাদাম, ডার্ক চকোলেট ইত্যাদি খান। ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে ম্যাগনেশিয়াম ট্যাবলেটও খেতে পারেন। তবে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনও ওষুধ খাবেন না। 


রাতে ভাল করে ঘুমন 


অনেক সময় রাতে ঠিকঠাক ঘুম না হলেও মাথা ধরার সমস্যা দেখা দেয়। আপনার যদি কোনও কারণে দীর্ঘদিন ঘুম না আসে, তা হলে প্রথমে সেই সমস্যার সমাধান করুন। ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলুন। এটা ক্রনিক ইনসোমনিয়া না অন্য কিছু সেটা আগে জানা দরকার। দেখবেন, ঘুমের সমস্যা দূর হলেও মাথার ব্যথাও অনেকটাই কমে গেছে। 


ভিটামিন বি কমপ্লেক্সযুক্ত খাবার খান 


fish


জলে সহজেই দ্রবীভূত হওয়া এই ভিটামিনের অনেক গুণ আছে। এই ভিটামিন মাথা ধরা রোধ করতে সক্ষম। ডিম, কলা, মাছ, ডাল, সাইট্রাস ফল যেমন লেবু ইত্যাদিতে এই ভিটামিন আছে। এগুলো ডায়েটে যোগ করুন। ভিটামিন বি কমপ্লেক্স ট্যাবলেটও খেতে পারেন। তবে তার আগে জেনে নেবেন আপনার মাথা ব্যথা আদৌ এই কারণে হচ্ছে কিনা। 


এছাড়াও যেগুলো করতে পারেন 


১) স্নানের জলে এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে স্নান করুন। 


২) এক ফোঁটা ওডিকোলন তুলোয় নিয়ে কপালে লাগান। 


৩) বেশি ভাজাভুজি বা তেল মশলা দেওয়া খাবার খাবেন না।  


৪) কড়া করে কফি বানিয়ে পান করে দেখুন। কফিতে ক্যাফিন আছে যা অনেক সময় মাথা ব্যথা কমিয়ে দিতে পারে। 


৫) নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন। এক্সারসাইজ করলে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পাবে। এতে অনেক সময় মাথা ধরার সমস্যাও কমে যায়। 


৬) আদার মধ্যে এমন কিছু ক্ষমতা আছে যা মাথা ধরা, গা বমি ও মাথা ঘোরা কমিয়ে দেয়। মাথার যন্ত্রণা হলে আদা চা পান করতে পারেন। 


** মনে রাখবেন, এই ঘরোয়া টোটকাগুলি সাধারণ মাথা ব্যথা থেকে উপশম দেবে। যাঁদের মাইগ্রেন আছে বা সাইনাসের সমস্যা আছে, তাঁরা অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। 


 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!



আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!