মাসের শুরুতেই ঠিক করে ফেলুন মাসিক বাজেট - ন'টি টিপসের সাহায্যে in bengali | POPxo

মাসের শুরুতেই ছকে ফেলুন মাসিক বাজেট - এই ছ'টি টিপসের সাহায্যে

মাসের শুরুতেই ছকে ফেলুন মাসিক বাজেট - এই ছ'টি টিপসের সাহায্যে

মাসের প্রথমে যখন মোবাইল ফোনে একটা ছোট্ট মেসেজ ঢোকে ‘salary credited’ বলে, তখন নিজেকে কেমন রানির মতো মনে হয়, কিন্তু দিনকয়েক যেতে না-যেতেই যখন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট চেক করি তখন মনটা দুঃখে ভরে যায়। কারণ, জিজ্ঞেস করছেন? মাসের প্রথম দিকে রাজার হালে থেকে বেহিসেবি খরচ করে জমানো টাকার অঙ্কটা যখন নীচের দিকে নামতে থাকে তখন মনে দুঃখ হবে না তো কি আনন্দ হবে?

এরকম ঘটনা শুধুমাত্র আমার সঙ্গেই ঘটে তা কিন্তু নয়, আপনাদের মধ্যেও অনেকেই নিশ্চয়ই এরকম পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছেন, কিন্তু ঠিক বুঝে উঠতে পারেন না যে কীভাবে বাজেট প্ল্যান করলে পরের মাস থেকে কিছু টাকা জমবে। কয়েকটা টিপস এখানে দিচ্ছি, যেগুলো একটু মেনে চললে বাজেট (budget) প্ল্যান (planning) করা সহজও হবে আবার বেহিসেবি খরচও হবে না।

১। মাস শুরু হওয়ার থেকেই প্ল্যান করুন

এরকম ভাববেন না যে, মাস পড়ুক তারপর ভাবব যে কীভাবে মাসের বাজেট ঠিক করব, তা হলে আর তা কোনওদিনই বাস্তবায়িত হবে না। মাস পড়ার আগে থেকেই ঠিক করে নিন যে কোন খাতে কেমন খরচ আপনি এবার করবেন। একদম কাঁটায়-কাঁটায় প্ল্যানিং করার কথা বলছি না, কিন্তু মোটামুটি একটা টাকা স্থির করে রাখুন। 

২। প্রতিটি মাস কিন্তু একরকম নয়

প্রতি মাসেই যে একরকম খরচ হবে তা কিন্তু নয়। স্থির খরচ যেমন বাড়ি-ভাড়া (যদি থাকে), জলের বিল, গ্যাসের বিল, মাসকাবারি জিনিসপত্র, কেবলের বিল - ইত্যাদির খরচের মাপ মোটামুটি একই থাকে প্রতি মাসে। কিন্তু অন্যান্য খরচ যেমন বিদ্যুৎ বিল, ইমারজেন্সি কোনও খরচ, খাওয়া খরচ ইত্যাদি কিন্তু প্রতি মাসে এক রকম হয় না। আবার অনেক মাসে নানা উৎসব থাকে, সেগুলো মাথায় রেখে তবেই বাজেট প্ল্যানিং করুন। 

৩। একসঙ্গে বসে বাজেট প্ল্যান করুন

আপনি যদি বিবাহিত হন অথবা নিজের পরিবারের সঙ্গে থাকেন, তা হলে বাড়ির সবাই একসঙ্গে বসে বাজেট ঠিক করুন। এতে সবার মধ্যে একটা স্বচ্ছতা থাকবে এবং টাকার একটা হিসেব থাকবে। 

৪। ধার-বাকি রাখবেন না

মাসের প্রথমেই মাইনে পেয়ে সবচেয়ে আগে ধার-বাকি শোধ করুন, তা না হলে ধারের টাকা বাড়তে-বাড়তে পরিমানে এতটাই বেশি হয়ে যেতে পারে পরে তা শোধ করা মুশকিল হতে পারে। 

৫। সবচেয়ে আগে বকেয়া বিল পেমেন্ট করুন

যদি কোনও ধার থাকে, তা শোধ করার পরেই কিন্তু সব বিলগুলো মিটিয়ে ফেলুন। গ্যাসের বিল থেকে শুরু করে বিদ্যুতের বিল - সবই মিটিয়ে ফেলুন। আর হ্যাঁ, এই সব খরচের এমন জমার টাকার একটা লিখিত হিসেব রাখুন। পরে হিসেব মেলাতে তা হলে আপনারই সুবিধে হবে। 

৬। ক্রেডিট কার্ডের ব্যবহার কমান

ক্রেডিট কার্ডের যেমন সুবিধে রয়েছে তেমনই যদি ঠিকভাবে ব্যবহার না করা যায়, তা হলে অসুবিধেও কিন্তু প্রচুর রয়েছে! যেহেতু ক্রেডিট কার্ডে খরচ করলে সঙ্গে-সঙ্গে বিল পেমেন্ট করতে হয়না কাজেই দেদার খরচ করার একটা অদ্ভুত অভ্যাস তৈরি হতে পারে। কিন্তু আপনি যদি ডেবিট কার্ড বা নগদ টাকায় খরচ করেন, তা হলে আপনার একটা সীমিত টাকার অঙ্কের মধ্যেই নিজের খরচ এবং বাজেট প্ল্যানিং করে বাঁধতে হবে। ফলে লং টার্মে আপনারই সুবিধে হবে। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!