এই গরমে শরীর সুস্থ রাখতে নিয়মিত বেলের সরবত খান!

এই গরমে শরীর সুস্থ রাখতে নিয়মিত বেলের সরবত খান!

আমার হলাম সেই প্রজন্মের, যারা বেলের সরবতের নাম শুনেছি কিনাও সন্দেহ! তাই তো এত সব রোগ-ব্যাধির জ্বালায় আমরা জর্জরিত। বেশ কিছু স্টাডিতে দেখা গেছে গত কয়েক বছরে আমাদের দেশে ছোট-বড় যে সব রোগের প্রকোপ বেড়েছে, সেগুলির প্রায় সবকটিকে দূরে রাখতেই বেলের (Bael or wood apple) কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। তবুও আমার প্রাকৃতিক উপাদানের উপর ভরসা রাখতে নারাজ, যেখানে আজ থেকে বহুকাল আগেই বিখ্যাত গ্রিক চিকিৎসক হিপোক্রেটিস বলে গিয়েছিলেন, প্রাকৃতিক উপাদানের চেয়ে ভাল ওষুধ আর কিছু হয় না। তাই তো বলি, হার্টের রোগ থেকে শুরু করে কোষ্ঠকাঠিন্য, ছোট-বড় নানা রোগকে যদি দূরে রাখতে হয়, তা হলে সপ্তাহে বারচারেক বেলের সরবত (Juice) বা বেল খেতে ভুলবেন না! বিশেষত, এই গরমে শরীরকে ঠান্ডা রাখতে এই পানীয়ের জুড়ি মেলা ভার। তবে এখানেই শেষ নয়, বেলে উপস্থিত প্রোটিন, beta-carotene, ভিটামিন, থিয়ামিন, riboflavin এবং ভিটামিন সি-এর মতো উপকারী উপাদান (health benefits) নানা ভাবে শরীরের কাজে লেগে থাকে!

১. হার্টের রোগ দূরে রাখে

বেলের স   রবতে এক চামচ ঘি মিশিয়ে যদি নিয়মিত পান করা য়ায়, তা হলে কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজের খপ্পরে পড়ার আশঙ্কা প্রায় ৫৪ শতাংশ কমে যায়! সেই সঙ্গে হঠাৎ করে হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোক হওয়ার আশঙ্কাও আর থাকে না। আমাদের দেশের যুবসমাজের মধ্যে যে হারে হার্টের রোগের প্রকোপ বাড়েছে, তাতে এই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গটিকে সুস্থ রাখতে হলে বেলের সরবত খাওয়া মাস্ট!

২. গ্যাস্ট্রিক আলসারের চিকিৎসায় কাজে আসে

বেল ফলে উপস্থিত phenolic compounds, গ্যাস্ট্রিক ট্র্যাকে অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের মাত্রা কমায়, যে কারণে গ্যাস্ট্রিক আলসার প্রকোপ কমতে একেবারেই সময় লাগে না। সেই সঙ্গে হজম ক্ষমতারও উন্নতি ঘটে চোখে পড়ার মতো।

৩. ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া এবং জীবাণুদের নিমেষে মেরে ফেলে

বেলের সরবতে রয়েছে cuminaldehyde এবং eugenol নামে দুটি উপাদান, যা প্রকৃতিতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল। তাই তো নিয়মিত এই পানীয়টি খাওয়া শুরু করলে শরীরে উপস্থিত নানা ব্যাকটেরিয়া এবং ফাঙ্গাসগুলি নিমেষে মারা পরে। ফলে ভাইরাল ইনফেকশনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রায় থাকে না বললেই চলে।

৪. শরীর বিষ মুক্ত হয়

এক গ্লাস বেলের সরবতে চামচদুয়েক মধু মিশিয়ে নিয়মিত খেলে শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের মাত্রা এতটাই বেড়ে যায় যে, রক্তে উপস্থিত ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানগুলি নিমেষে ধ্বংস হয়ে যায়। ফলে শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা যেমন কমে, তেমনই ব্রেস্ট ক্যান্সারের মতো মারণ ব্যাধিও দূরে থাকতে বাধ্য হয়।

বেলের সরবত ও মোরব্বা তৈরির পদ্ধতি

একটা পাকা বেল নিয়ে তা ফাটিয়ে ভাল করে কুরিয়ে নিন। এবার তার সঙ্গে কাপতিনেক জল, স্বাদ অনুসারে চিনি এবং প্রয়োজনমতো বরফ কুচি মিশিয়ে ব্লেন্ডারে ভাল করে মিক্স করে নিন। এবার পরিবেশনের পালা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বেলটা কুরানোর সময় বিচিগুলি ফেলে দিতে ভুলবেন না যেন, না হলে সরবতটা তেতো হয়ে যাবে। যদি পাকা বেল না পান, তা হলে খেতে পারেম কাঁচা বেলের মোরব্বাও। বেলের শক্ত খোলটা ফেলে, বেলটা গোল-গোল টুকরো করে কেটে নিয়ে চিনির রসে ফেলে একটু ফুটিয়ে নিন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল বেলের মোরব্বা। ওই চিনির রসসহ বেলের টুকরোগুলো একটা কাচের জারে ভরে রেখে দিন ফ্রিজে। চলবে অনেক দিন। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!