সুন্দর, নরম ও গোলাপি ঠোঁট পাওয়ার ঘরোয়া উপায় (How To Get Pink Lips Naturally In Bengali)

সুন্দর, নরম ও গোলাপি ঠোঁট পাওয়ার ঘরোয়া উপায় (How To Get Pink Lips Naturally In Bengali)

নরম, গোলাপি (pink) ঠোঁট (lips) পেতে কার না ইচ্ছে করে? তার জন্য কসরতও তো কম করিনা আমরা। নানা রকমের লিপস্টিক দিয়ে ঠোঁট রাঙিয়ে দিয়ে থাকি,লিপবাম লাগাই আরও কত কিছু না করি। কিন্তু বেশিরভাগ বাজারচলতি প্রোডাক্টে থাকে নানা ক্ষতিকর রাসায়নিক। সেগুলো ঠোঁটের ভালর চেয়ে মন্দই বেশি করে। অথচ সহজ কয়েকটি ঘরোয়া পদ্ধতির মাধ্যমেই নরম ও গোলাপি ঠোঁট পাওয়া সম্ভব। এই প্রবন্ধে সেই বিষয়েই বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

Table of Contents

    ঠোঁটের যত্ন নেওয়ার টিপস (How To Take Care of Your Lips)

    pixabay

    কীভাবে নরম ও গোলাপি ঠোঁট পাবেন তার আগে জেনে নেওয়া দরকার ঠোঁটের যত্ন কীভাবে নেওয়া উচিৎ। কারণ যে কারণে আমরা মুখের, পায়ের ও হাতের এবং চুলের আলাদা করে যত্ন নিয়ে থাকি ঠিক সেই কারণেই ঠোঁটের যত্ন আলাদা করে নেওয়া উচিৎ।

    প্রতিদিন ঠোঁটের যত্নে আপনার যা যা করণীয় (Daily Lip Care Routine)

    ১| প্রতিদিন রাত্রে শুতে যাওয়ার আগে এক্সফোলিয়েট করুন। অর্থাৎ ঠোঁটের উপর জমে থাকা মৃত কোষ ঝরিয়ে ফেলুন। আর তার জন্য দরকার একটা লিপবাম ও একটা পুরনো টুথব্রাশ। টুথব্রাশে বাম লাগিয়ে আলতো করে ঘষলেই মরা কোষ উঠে যাবে।

    ২| আমন্ড তেল ও মধু মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে নিন। সেটা দিয়ে ঠোঁটে আলতো করে সপ্তাহে একবার ঘষুন। আমন্ড তেল ঠোঁটে পুষ্টি যোগাবে এবং মধু মৃত কোষ তুলে দেবে।

    ৩| শুধু বাইরে থেকে যত্ন নিলে হবে না। ভিতর থেকে আপনাকে আর্দ্র থাকতে হবে। তাই প্রতিদিন অন্তত বারো গ্লাস জল পান করতে হবে।

    ৪| শিয়া বা কোকোয়া বাটার আছে এমন লিপ বাম বেছে নিন। এই দুটোই আপনার ঠোঁটের জন্য ভাল। যদি সেটা না হয় তাহলে নারকেল তেল ব্যবহার করুন ঠোঁটের জন্য।

    ৫| ভিটামিন ই ট্যাবলেট খেতে পারেন ঠোঁট ভাল রাখার জন্য। বা এমন প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন যাতে ভিটামিন ই আছে। এই ভিটামিন ঠোঁটে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে এবং নতুন কোষের জন্ম দেয়।

    ৬| আপনার যদি সারা বছর ঠোঁট ফাটার সমস্যা থাকে তাহলে অ্যালোভেরা ব্যবহার করুন। অ্যালোভেরার মধ্যে সেই গুণ আছে যা ঠোঁট ফাটা কমায় ও ঠোঁট ফাটার ফলে যে জ্বালা জ্বালা ভাব হয় সেটাও দূর করে। অ্যালোভেরা গাছ বাড়িতে থাকলে সরাসরি তার রস নিতে পারেন বা অ্যালোভেরা যুক্ত প্রোডাক্ট ব্যবহার করতে পারেন।

    ৭| বিভিন্ন বেরি জাতীয় ফলে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও ভিটামিন সি। স্ট্রবেরি বা ব্লুবেরি ক্রাশ করে তাতে অলিভ অয়েল বা মধু মিশিয়ে ঠোঁটে লাগাতে পারেন। যে সব লিপ বাম বা স্ক্রাবে বেরি আছে সেগুলি ব্যবহার করুন।

    ৮| সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মি আপনার ত্বকের যতটা ক্ষতি করে ততটাই ক্ষতি করে ঠোঁটের জন্য। তাই বাইরে বেরোলে ঠোঁটে এসপিএফযুক্ত প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন।     

    ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করবেন কী করে? (Ways To Lighten Your Lips at Home)

    pixabay

    অনেক সময় বিভিন্ন কারণে আমাদের ঠোঁটে কালচে ছোপ পড়ে। আর নরম ও গোলাপি ঠোঁট পাওয়ার প্রথম ধাপ হল ঠোঁটের এই কালো দাগছোপ দূর করা। তবে তার আগে জেনে নেওয়া দরকার কেন ঠোঁটে কালো দাগ হয়।

    কেন ঠোঁটে কালো দাগ হয়? (What Causes Black Spots on Your Lips?)

    জল কম খেলে, অতিরিক্ত সূর্যের আলো লাগলে অনেক সময় ঠোঁটে কালো দাগ হয়। তবে যারা অতিরিক্ত কফি পান করেন বা যাঁদের ধূমপানে আসক্তি আছে সময়ের সাথে সাথে তাঁদের ঠোঁটও কালো হয়ে যেতে পারে। অনেক সময় না জেনেই আমরা এমন কিছু ঠোঁটে ব্যবহারযোগ্য প্রোডাক্ট ব্যবহার করি যেগুলোতে ক্ষতিকর রাসায়নিক থাকে। সেই পদার্থগুলোও আমাদের ঠোঁটে কালো দাগ তৈরি করে। মাঝে মাঝে জিভ দিয়ে শুকনো ঠোঁট চেটে নেওয়া বা দাঁত দিয়ে ঠোঁট কামড়ানো অনেকের বদ অভ্যেস থাকে, কালো দাগছোপ সেই কারণেও হতে পারে। তবে শরীরে হঠাৎ করে কোনও ভিটামিনের ঘাটতি হলে, দীর্ঘদিন কেমোথেরাপি নিলে ও রক্তাল্পতার কারণেও দাগছোপ হতে পারে ঠোঁটে। সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ আবশ্যক।  

    ঠোঁটের কালো দাগছোপ দূর করার ঘরোয়া উপায় (Home Remedies To Lighten Your Lips)

    ১| লেবুর রসের সঙ্গে চিনি বা মধু মিশিয়ে তার সঙ্গে কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন দিয়ে ঠোঁটে নিয়মিত ঘষলে কালো দাগ দূর হয়।

    ২| অ্যালোভেরার গুণের কথা আপনাদের অজানা নয়। নিয়মিত অ্যালোভেরা জেল লাগালেও ঠোঁটের কালো দাগ দূর হয়।

    ৩| হলুদের সঙ্গে দুধ মিশিয়েও ঠোঁটে লাগাতেপারেন। হলুদ ঠোঁটের স্বাভাবিক মেলানিন ফিরিয়ে আনে। আর দুধ ঠোঁটে আর্দ্রতা যোগায়।

    ৪| বেদানার রসেও সেই গুণ আছে যা ঠোঁট থেকে কালো দাগছোপ দূর করে ঠোঁটের স্বাভাবিক রঙ ফিরিয়ে আনতে সক্ষম। বেদানার রস তৈরি করে তার মধ্যে গোলাপ জল ও সামান্য ফ্রেশ ক্রিম মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে লাগান।

    ৫| এছাড়াও যেগুলি ঠোঁটে নিয়মিত লাগালে ঠোঁটের কালো দাগছোপ অনেকটাই দূর হবে সেগুলি হল- নারকেল তেল, গোলাপ জল, অলিভ অয়েল, শশার রস, স্ট্রবেরি ও বেকিং সোডার পেস্ট,  আমন্ড বাদাম ও ফ্রেশ ক্রিমের পেস্ট বা আমন্ড তেল, খাঁটি সর্ষের তেল ও বিটের রস লাগালে ঠোঁটে দাগ ছোপ ধীরে ধীরে মিলিয়ে যায়।

    নরম ঠোঁট পাবেন কীভাবে? (Easy Ways to Get Soft Lips)

    প্রাথমিক ভাবে ঠোঁটের কালো দাগছোপ দূর হলে তবেই নরম ঠোঁট কীভাবে পাওয়া যায় সেই নিয়ে আলোচনা সম্ভব। ঠোঁটের উপরে মৃত কোষের স্তর থাকলে স্বভাবতই সেই ঠোঁট নরম হয়না আর দেখতেও ভীষণ প্রাণহীন আর অনুজ্বল লাগে। তাই প্রথমে আমরা দেখে নেব কীভাবে নরম ঠোঁট পাওয়া সম্ভব।

    pixabay

    ১| বেদানার রস (Pomegranate Juice)

    বারবার ঠোঁট ফাটা এবং ঠোঁটের উপর মৃত কোষের স্তর জমে যাওয়ার অর্থ হল আপনার ঠোঁটে আর্দ্রতার অভাব আছে। এর জন্য প্রয়োজন বেদানার রসের। বেদানার রস তৈরি করে ফ্রিজে রেখে দিন। অল্প অল্প করে ঠোঁটে প্রতিদিন লাগান।এই রস ঠোঁটে আর্দ্রতার অভাব দূর করবে। গোলাপি আভাও আসবে।

    ২| মধুর ব্যবহার (Honey)

    মধু হল একটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার। তাই আঙুলের ডগায় অল্প করে মধু নিয়ে ঠোঁটে লাগান। দশ মিনিট রেখে ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন তারপর অল্প একটু লিপ বাম লাগিয়ে নিন।

    ৩| অ্যালোভেরার জাদু (Aloe Vera)

    pixabay

    অ্যালোভেরার রস বা আঠা সরাসরি ব্যবহার করলে ঠোঁট নরম হয়। কারণ নিয়মিত ব্যবহারে এই রস ঠোঁট ফাটা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। ঠোঁটে এই রস বা আঠা লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রাখতে হবে তারপর ধুয়ে নিতে হবে। ধুয়ে ফেলার পর অন্তত এক ঘণ্টা ঠোঁটে কিছু লাগাবেন না।

    ৪| ঠাণ্ডা দুধ (Chilled Milk)

    হ্যাঁ, আপনার রান্নাঘরে একদম হাতের কাছেই আছে এই উপাদান। ঠাণ্ডা দুধ তুলোয় করে নিয়ে ঠোঁটে লাগান। ১৫ মিনিট রেখে ঈষদুষ্ণ জলে ধুয়ে ফেলুন। নরম ঠোঁট পেতে দিনে দু’বার এই টোটকা ট্রাই করতে পারেন।

    ৫| দেশি ঘিয়ের চমক (Desi Ghee)

    shutterstock

    অনেকের বাড়িতেই পুরনো ঘি কাচের বয়ামে রাখা থাকে। ঠোঁটের শুষ্কতা দূর করতে এই মা দিদিমাদের টোটকা বহু যুগ ধরে চলে আসছে। নরম ও পেলব ঠোঁট পেতে প্রতিদিন দু’বার এই ঘি লাগাতে পারেন।

    ৬| চিনির দানা (Sugar)

    মোটা দানার চিনি ঠোঁটে ঘষলেও ঠোঁট নরম হয়। এর সঙ্গে একটু গোলাপ জল মিশিয়ে নেবেন তারপর ঠোঁটে লাগাবেন। কয়েক মিনিট রেখে হাল্কা গরম জলে ধুয়ে নিন। দিনে তিন-চার বার এই পদ্ধতি প্রয়োগ করে দেখতে পারেন।

    ৭| গোলাপের পাপড়ি (Rose Petals)

    গোলাপের মতো নরম ও পেলব ঠোঁট চাই আর গোলাপেরই ব্যবহার হবে না তা কি হয়? তাই তাজা গোলাপের পাপড়ি বেটে ঠোঁটে লাগান। গোলাপের পাপড়িতে আছে স্বাভাবিক মিষ্টতা আর প্রাকৃতিক তেল। আর এই দুটোই ঠোঁটের জন্য দারুণ উপকারি। আরও ভাল ফল পেতে এর সঙ্গে একটু দুধ মিশিয়ে নিন।

    গোলাপি ঠোঁট পাবেন কীভাবে? (Best Ways To Get Natural Pink Lips)

    আমরা বিশেষ করে মেয়েরা চাই যে আমাদের ঠোঁটে থাক গোলাপি আভা। অবশ্য সেই আভা নিয়ে আসার জন্য লিপস্টিক আছে। তবে সকলেই মন থেকে চায় যে সেই আভা আসুক স্বাভাবিকভাবে। তাই এবার আমরা দেখে নেব ঠোঁটে গোলাপি আভা নিয়ে আসার ঘরোয়া উপায়।  

    ১| অ্যালোভেরা, প্রাকৃতিক মধু ও রাস্পবেরি (Aloe Vera, Honey & Raspberry)

    এর আগে উপরে উল্লিখিত উপাদানগুলি ঠোঁটের জন্য যে কতটা উপকারি সেই বিষয়ে আপনাদের জানানো হয়েছে। এই তিনটে উপাদান মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে ঠোঁটে লাগান। মিনিট পনেরো রেখে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন ঠোঁটে হাল্কা গোলাপি আভা এসেছে। রাস্পবেরির বদলে স্ট্রবেরিও ব্যবহার করতে পারেন।

    ২| লেবু ও আমন্ড অয়েল (Lemon & Almond Oil)

    লেবু একটি প্রাকৃতিক টোনার। এটি ঠোঁটের উপর থেকে কালচে ভাব দূর করতে সক্ষম। লেবু যে আর্দ্রতা শুষে নেয় সেটাকে ফিরিয়ে আনতে কাজে লাগে আমন্ড অয়েল। দুটো মশিয়ে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন। মাঝে মাঝে ঠোঁটে লাগান। তিন থেকে চার সপ্তাহের মধ্যে ফল পাবেন। 

    ৩| স্ট্রবেরি মাস্ক (Strawberry Mask)

    pixabay

    স্ট্রবেরিতে আছে ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। ঠোঁটে গোলাপের লাবণ্য আনতে স্ট্রবেরির জুড়ি নেই। একটা স্ট্রবেরি চটকে থেঁতো করে ঠোঁটে লাগান। আরও ভাল ফল পেতে এর সঙ্গে অলিভ অয়েল ও মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।

    ৪| লেবু আর গ্লিসারিনের মিশ্রণ (Lemon & Glycerin Mask)

    লেবুর গুণের কথা আগেই আপনাদের বলেছি আর ত্বকে পেলবতা আনতে গ্লিসারিন কীভাবে কাজ করে সেটা আপনারা জানেন। অনেকেই শীতকালে ঠোঁটে গ্লিসারিন লাগিয়ে থাকেন। লেবুর রস ও গ্লিসারিন সোম পরিমাণে মিশিয়ে নিন। এবার এটা ঠোঁটে লাগান। লেবু কালচে ভাব দূর করবে এবং গ্লিসারিন ত্বকে আর্দ্রতা যোগাবে।

    ৫| দুধ আর হলুদের পুষ্টি (Milk & Turmeric)

    pixabay

    হলুদ হল সর্বরোগ নিরাময় আর দুধে আছে আর্দ্রতা, তাছাড়া দুধ হল একটি প্রাকৃতিক ক্লিনজার। তাই এই দুটি শক্তিশালী উপাদান মিশে গেলে সেটা ঠোঁটের জন্য উপকারি হবে। দুটো মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান কিছুদিনের মধ্যেই ভাল ফল পাবেন।

    ৬| নারকেল তেল আর চিনি (Coconut Oil & Sugar)

    বড় দানার চিনি আর নারকেল তেল মিশিয়ে একটা প্রলেপ তৈরি করে নিন। চিনির দানা ঠোঁটে স্ক্রাবের মতো কাজ করবে অর্থাৎ ঠোঁটের উপর থেকে মৃত কোষ তুলে দেবে। আর নারকেল তেল ঠোঁটে দেবে পুষ্টি ও আর্দ্রতা। দুয়ে মিলে আপনার ঠোঁটে গোলাপি আভা আনা কেউ রুখতে পারবে না।

    ৭| ধনেপাতার মাস্ক (Coriander Mask)

    শুনলে হয়তো অবাক হবেন। যে জিনিসটা আপনি এতদিন রান্নায় দিয়ে এসেছেন সেটা আবার ঠোঁটে কেন লাগাবেন? ধনেপাতায় আছে অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান। তাই এটা বেটে ঠোঁটে লাগালে ঠোঁটে গোলাপি লাবণ্য আসতে বাধ্য।      

    ঘরোয়া উপায়ে গোলাপি ঠোঁটের জন্য লিপ বাম কীভাবে তৈরি করবেন (Homemade Lip Balm for Pink Lips Naturally)

    আগেই বলেছি বাজারচলতি লিপবাম বা লিপস্টিকে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ থাকে। তাই আমরা সব সময় চেষ্টা করি এই সব ছোটখাট জিনিস বাড়িতেই তৈরি করে নিতে। এখন আমরা দেখে নেব বাড়িতে লিপ বাম তৈরি করার কয়েকটি সহজ উপায়।

    pexels.com

    ১| বিজওয়াক্স লিপ বাম (Beeswax Lip Balm)

    বিজওয়াক্স অর্থাৎ মৌচাকে যে মোম পাওয়া যায় সেটির কথা বলা হচ্ছে। মোম অল্প গলিয়ে নিন তারমধ্যে নারকেল তেল, মধু আর দুটো ভিটামিন ই ক্যাপসুল দিয়ে মিশিয়ে নিন। আপনার বাম রেডি।

    ২| মিন্ট চকোলেট লিপ বাম (Mint Chocolate Lip Balm)

    মোম গলিয়ে নিন। তার মধ্যে এক চামচ কোকোয়া পাউডার,  ২ টেবিল চামচ আমন্ড তেল ও কয়েক ফোঁটা পিপারমিন্ট অয়েলের ফোঁটা দিয়ে দিন। 

    ৩| রাস্পবেরি আর লেবুর বাম (Raspberry Lemon Lip Balm)

    নারকেল তেল গরম করে নিন তারপর এর মধ্যে রাস্পবেরি জেলাটিন মিশিয়ে আবার গরম করুন। জেলাটিন গলে গেলে তার মধ্যে লেমন এসেনশিয়াল অয়েল কয়েক ফোঁটা দিয়ে দিন।

    pixabay

    ৪| খাঁটি এসেনশিয়াল অয়েল লিপ বাম (Essential Oil Lip Balm)

    মোম গলিয়ে নিয়ে তারমধ্যে আমের বাটার দিয়ে মিশিয়ে নিন। এর মধ্যে নিজের পছন্দের এসেনশিয়াল অয়েল যোগ করুন। হাল্কা লাল রঙ আনতে বিট রুট পাউডার মিশিয়ে নিতে পারেন।

    ৫|  গোলাপের বাম (Rose Lip Balm)

    মোম গলিয়ে তারমধ্যে কোকোয়া বাটার, ক্যাস্টর অয়েল আর গোলাপের তেল দিন।চাইলে অল্প একটু ভ্যানিলা এসেন্স দিতে পারেন।

    ঘরোয়া উপায়ে নরম ঠোঁটের জন্য লিপস্ক্রাব কীভাবে তৈরি করবেন (Homemade Lip Scrubs for Soft and Pink Lips)

    লিপ বাম যতটা প্রয়োজন ঠিক ততটাই দরকার লিপ স্ক্রাব। কারণ ঠোঁটের উপর জমে থাকা মৃত কোষ তুলতে লিপ স্ক্রাবের প্রয়োজন হয়। দেখে নেব বাড়িতে কীভাবে করতে পারি এই লিপ স্ক্রাব।

    pixabay

    ১| নারকেল তেল ও মধুর স্ক্রাব (Coconut Oil & Honey Scrub)

    মধু আর নারকেল তেল মিশিয়ে তার মধ্যে ব্রাউন সুগার দিন এক চিমটে। এবার সবটুকু ভাল করে মিশিয়ে নিন। নারকেল তেল আর মধু ঠোঁটে পুষ্টি যোগায়। আপনি প্রতিদিন তিন থেকে চার বার এই স্ক্রাব ব্যবহার করতে পারেন। 

    ২| চকোলেট লিপ স্ক্রাব (Chocolate Lip Scrub)

    কোকো পাউডারের সঙ্গে ব্রাউন সুগার, এক চা চামচ ভ্যানিলা এসেন্স, ২ চা চামচ মধু ও ২ চা চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। এই স্ক্রাব আপনি সারা দিনে দু' থেকে তিনবার ব্যবহার করতে পারেন। 

    ৩| দারচিনি স্ক্রাব (Cinnamon Lip Scrub)

    হাফ চা চামচ দারচিনি গুঁড়ো নিন, হাফ চা চামচ মধু আর অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। সবগুল উপাদান একসঙ্গে মেশালেই আপনার স্ক্রাব রেডি। দারচিনির মধ্যে আছে কাসিয়া অয়েল। এটি একটি সুদিং এজেন্ট। এটি ঠোঁটে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে ঠোঁটে পাউট বা স্ফুরণ নিয়ে আসে। এটি দিনে দু'বার ব্যবহার করতে পারেন।

    pixabay

    ৪| কমলালেবুর খোসার স্ক্রাব (Orange Peel Scrub)

    কমলালেবুর খোসা শুকনো করে পাউডার করে নিন। এর মধ্যে ব্রাউন সুগার আর আমন্ড অয়েল দিলেই আপনার স্ক্রাব রেডি। সাড়া বছর কমলালেবু পাবেন না। তাই আগে থাকতে গুঁড়ো করে স্টোর করে রাখুন। সপ্তাহে দু'তিন বার এই স্ক্রাব ব্যবহার করতে পারেন। 

    ৫| কফি আর মধুর স্ক্রাব (Coffee & Honey Scrub)

    কফির গুঁড়ো আর মধু ভাল করে মশিয়ে নিলে সেটাও খুব কার্যকরী স্ক্রাব হয়। সপ্তাহে একবার এই স্ক্রাব ব্যবহার করতে পারেন। কফির সবচেয়ে বড় গুণ হল, এর মধ্যে যে ক্যাফিন থাকে সেটি সূর্যের ইউভি রশ্মি থেকে ঠোঁটকে রক্ষা করে।

    ঘরোয়া উপায়ে কীভাবে নরম ও গোলাপি ঠোঁট পাবেন সেই নিয়ে কিছু জরুরি প্রশ্ন ও তার উত্তর (FAQs)

    ১। প্রশ্ন: নরম ও গোলাপি ঠোঁট পেতে আমি কি অ্যালোভেরা ব্যবহার করতে পারি?

    উত্তর: নিশ্চয়ই পারেন। তবে অ্যালোভেরার মূল কাজ হল ঠোঁট ফাটা কমিয়ে দেওয়া এবং ফাটা ঠোঁট থেকে যে জ্বালা জ্বালা ভাব হয় সেটার নিরাময় করা।

    ২। প্রশ্ন: প্রতিদিন লিপ বাম লাগালে কি ঠোঁট নরম ও গোলাপি হয়?

    উত্তর: হ্যাঁ, এতে ঠোঁট আর্দ্র থাকে। তবে বাজারচলতি বামের পরিবর্তে হোমমেড বাম হলে ভাল হয়।

    ৩। প্রশ্ন: সস্তার লিপস্টিক লাগালে কি ঠোঁটে কালো দাগ হতে পারে?

    উত্তর: খুব স্বাভাবিক। সস্তার লিপস্টিকে অনেক ক্ষতিকর রাসায়নিক থাকতে পারে। সেটা আপনার ঠোঁটে অ্যালার্জি ও র‍্যাশ তৈরি করতে পারে।

    ৪। প্রশ্ন: মধু আর চিনি ঠোঁটের ভাল স্ক্রাব হতে পারে?

    উত্তর: হ্যাঁ, মধু আর চিনির এই গুণ আছে। বিশেষ করে বড় দানার চিনি খুবই ভাল স্ক্রাব। মধু ঠোঁটে আর্দ্রতা যোগায়।

    ৫। প্রশ্ন: অতিরিক্ত ধূমপান কি ঠোঁটের জন্য ক্ষতিকর?

    উত্তর: সিগারেটে আছে নিকোটিন। যা দীর্ঘ সময় ঠোঁটের সংস্পর্শে এলে কালো ছাপ ফেলে দেয়।

    POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

    আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!