কনের সাজে লাবণ্য আনবে দারুণ ডিজাইনের এই কোমরবন্ধগুলি

কনের সাজে লাবণ্য আনবে দারুণ ডিজাইনের এই কোমরবন্ধগুলি

বিয়ের জন্য গয়না কেনা এক ঝকমারি। হ্যাঁ, অনেকেই অবশ্য আগে থেকে গয়না গড়িয়ে রাখেন। তবে কিছু গয়না একটু পরেই কিনতে হয়। সোনার দাম বাড়ল না কমল সেই নিয়ে অঙ্ক কষতে কষতে কনের (bride) বাবা মায়েদের মুখে মেঘ ঘনায়। আর শুধু সোনা রুপোর কথা ভাবলেই তো আর চলবে না। তার সঙ্গে চাই দেখতে সুন্দর নানা রকমের কস্টিউম জুয়েলারি। আর কস্টিউম জুয়েলারির কথা যখন উঠলই তখন সবার আগে মনে পরে দেখতে সুন্দর কোমরবন্ধের (kamarbandh) কথা। এই গয়না ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। শাস্ত্র বলে চার হাজার বছর আগে থেকে এই গয়নার প্রচলন ভারতে ছিল। বিভিন্ন প্রাচীন মন্দিরের গায়ে নারী মুরতির ভাস্কর্যে আমরা কোমরবন্ধ (kamarband) দেখেওছি। সামনে যাঁদের বিয়ে তাদের জন্য আমরা নিয়ে এসেছি কোমরবন্ধের দারুণ কিছু ডিজাইন। তবে শুধু হবু কনে (bride) নয়, যে কোনও অনুষ্ঠানে আপনিও অনায়াসে ট্রাই করতে পারেন এই কোমরবন্ধ

কয় প্রকারের কোমরবন্ধ হয়

সোনা, রুপো ও হিরের কোমরবন্ধ পরার চল আছে দক্ষিণ ভারতীয় কনেদের। তবে এতটা খরচ না করলেও আপনি কস্টিউম জুয়েলারি হিসেবে এটা পরতেও পারেন। এছাড়াও পাওয়া যায়, নেকলেসের মতো দেখতে কোমরবন্ধ, সিঙ্গল লেয়ার ও মাল্টি লেয়ার কোমরবন্ধ, ফুলের তৈরি কোমরবন্ধ, মুক্তো আর কুন্দনের কোমরবন্ধ। 

কীভাবে সঠিকভাবে কোমরবন্ধের স্টাইলিং করবেন

১) আপনার চেহারা যদি ছোটখাট হয় তাহলে বেশি ভারি কোমরবন্ধ পরবেন না। 


২) কেনার সময় কোমরবন্ধ একবার পরে ট্রাই করে নেবেন যে সেটা পরতে কোনও অসুবিধা হচ্ছে কিনা। 


৩) খুব গর্জাস শাড়ি বা লেহঙ্গা পরলে কোমরবন্ধও হাল্কা ডিজাইনের পরবেন। আর শাড়ি হাল্কা হলে কোমরবন্ধ হবে গর্জাস। 


৪) শাড়ি বা লেহেঙ্গায় সোনালি সুতোর কাজ থাকলে ভুল করেও সোনালি শেডের কোমরবন্ধ পরবেন না। তাহলে একই রঙের হওয়ার দরুণ সেটা শাড়ির রঙের সঙ্গে মিশে যাবে। বরং সোনালি শাড়ি হলে রুপোর কোমরবন্ধ এবং রুপোলী শাড়ি হলে সোনালি কোমরবন্ধ পরুন কনট্রাস্ট করে। 


5) যদি শাড়ির সঙ্গে কোমরবন্ধ পরেন তা হলে সেটা কোমরের রেখা বা ওয়েস্ট লাইনের নীচে বা তার উপরে পরবেন।


৬) যদি লেহঙ্গা বা শারারার সঙ্গে কোমরবন্ধ পরেন তা হলে কোমরের একটু উপরে অর্থাৎ ওয়েস্টলাইনের উপরে পরবেন। 


৭) যেহেতু কোমরবন্ধ দেওয়ার পর আমাদের বডিতে একটা হাওয়ার গ্লাস শেপ আসে তাই খুব বেশি টাইট বা খুব বেশি আলগা করে কোমরবন্ধ পরবেন না। বেশি টাইট করে পরলে শাড়ি কুঁচকে যেতে পারে। আর সেটা দেখতে মোটেও ভাল লাগবে না। 


৮) খেয়াল রাখবেন কোমরবন্ধ পরার সময় বা খোলার সময় খোঁচা যেন না লাগে। এতে লেহঙ্গা বা শাড়ির সুতো উঠে যেতে পারে। 

 

এবার দেখে নেব কোমরবন্ধের কয়েকটা ডিজাইন

fashionlady
magicpin
tumblr
bridelan
ebay
vevostars
ebay
jaypore
instagram
99 silver jewellery

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!