রাজকন্যার চোখধাঁধানো রূপের রহস্য লুকিয়ে রয়েছে প্রাচীন টোটকাতে! এখানে রইল তিনটি টোটকার হদিশ

রাজকন্যার চোখধাঁধানো রূপের রহস্য লুকিয়ে রয়েছে প্রাচীন টোটকাতে! এখানে রইল তিনটি টোটকার হদিশ

বহুকাল ধরেই রূপচর্চায় আয়ুর্বেদ ও নানা ঘরোয়া উপাচারের ব্যবহারের চল রয়েছে। দিন বদলের সঙ্গে রূপচর্চার উপাচারও বদলেছে আর আয়ুর্বেদিক উপকরণের পরিবর্তে এসেছে নানা রাসায়নিক কসমেটিকস। এখন আমরা রূপচর্চার কাজে নানা কসমেটিকের ব্যবহারটাই বেশি করি। ফলে অনেকসময়ই আমাদের ত্বক ও চুল আরও সুন্দর হওয়ার বদলে ম্যাড়ম্যাড়ে ও খসখসে হয়ে যায়। এছাড়া ত্বক ও চুলের নানা সমস্যা তো বাড়তি পাওনা। আমরা এমন কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলেছি, যাঁরা এখনও পর্যন্ত ঠাকুরমা-দিদিমার ঘরোয়া টোটকার (ancient beauty tips ) উপর ভরসা করেই রূপচর্চা করেন! অদ্ভুতভাবে তাঁদের কিন্তু ত্বক বা চুলের সমস্যা অন্যান্যদের তুলনায় অনেক কম! জানতে চান নাকি সেসব সিক্রেট?

সর্ষের তেল ও লেবু দিয়ে তৈরি হেয়ার মাস্ক

শাটারস্টক

অনেকের খুশকির সমস্যা থাকে। নানা রকমের অ্যান্টি ড্যানড্রাফ শ্যাম্পু, মাস্ক অনেক কিছু ব্যবহার করার পরেও এই সমস্যা থেকেই যায়। তাঁরা কিন্তু এই প্রাচীন ঘরোয়া টোটকাটি ব্যবহার করতে পারেন।

যা-যা প্রয়োজন: দুই টেবিল চামচ সর্ষের তেল ও একটি গোটা পাতিলেবুর রস

কীভাবে ব্যবহার করবেন: একটি কাচের বাটিতে সর্ষের তেল ও লেবুর রস খুব ভাল করে কাঠের বা প্লাস্টিকের চামচ দিয়ে মিশিয়ে নিন। এবার ভাল করে চুল আঁচড়ে ঠিক যেভাবে চুলে তেল মাখেন, সেভাবেই ওই মিশ্রণ স্ক্যাল্প ও চুলে লাগান। মিনিটপনেরো স্ক্যাল্পে ভাল করে মালিশ করুন ও আধ ঘণ্টা পর মাইল্ড কোনও শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

কত দিন ব্যবহার করবেন: সপ্তাহে একবার করে এই হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন। কিছুদিনের মধ্যেই খুশকির সমস্যা থেকেও মুক্তি পাবেন ও চুল মোলায়েমও হবে। তাছাড়া সর্ষের তেল চুল অকালে পাকতেও দেয় না।

দই, চিনি ও লেবুর রসে ফেস স্ক্রাব

শাটারস্টক

আমাদের ত্বকের উপরিভাগে প্রচুর মরা কোষ থাকে। যার ফলে আমাদের ত্বকের ঔজ্জ্বল্য হারিয়ে যায়। এই হারিয়ে যাওয়া ঔজ্জ্বল্য ফিরে পেতে দই, চিনি ও লেবুর রসের এই ফেস স্ক্রাবটি ব্যবহার করতে পারেন।

যা-যা প্রয়োজন: দুই টেবিল চামচ দই, তিন টেবিল চামচ চিনি ও অর্ধেক পাতি লেবুর রস

কীভাবে ব্যবহার করবেন: দই আর চিনি একটি কাচের বাটিতে মিশিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন যেন চিনি গলে না যায় আবার ভাল ভাবে মিশেও যায়। এবার লেবুর রস মিশিয়ে অন্যান্য বারের মতোই স্ক্রাব করুন। সম্ভব হলে স্ক্রাব করার আগে তুলোয় করে সামান্য দুধ নিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। মিনিটদুয়েক স্ক্রাব করে ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন। ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সামান্য দুধের সর নিয়ে মুখে মালিশ করে নিন ঠিক ময়শ্চারাইজার লাগানোর মতো করে।  

কত দিন ব্যবহার করবেন: সপ্তাহে অন্তত একবার এই স্ক্রাবটি করা দরকার।

সুন্দর চুলের জন্য পেঁয়াজের রস ও দই

শাটারস্টক

দই ল্যাকটিক অ্যাসিডে সমৃদ্ধ, যা নতুন চুল গজাতে, চুলকে কোমল করতে এবং চুলের চকচকে ভাব ধরে রাখতে সাহায্য করে। দই এবং পেঁয়াজের রসের মিশ্রণ চুল পড়া কমাতে এবং নতুন চুল গজাতে দারুণ একটি প্রাচীন ঘরোয়া টোটকা।

যা-যা প্রয়োজন: তিন টেবিল চামচ পেয়াজের রস ও তিন টেবিল চামচ দই

কীভাবে ব্যবহার করবেন: টক দই এবং পেঁয়াজের রস একসঙ্গে মিশিয়ে মিশ্রণটি ভালো করে স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করুন। এক ঘণ্টা রেখে ভাল করে চুল ধুয়ে নিন।

কত দিন ব্যবহার করবেন: সপ্তাহে একবার করে ব্যবহার করতে শুরু করুন। কয়েক মাস পর থেকে দু’-তিন সপ্তাহে একবার করে ব্যবহার করতে পারেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!