চুলের যত্নে ভৃঙ্গরাজ তেল ও অন্যান্য 'সিক্রেট' উপকরণের হেয়ার মাস্ক

চুলের যত্নে ভৃঙ্গরাজ তেল ও অন্যান্য 'সিক্রেট' উপকরণের হেয়ার মাস্ক

চুলের যত্নে আয়ুর্বেদ ওষধির মধ্যে ভৃঙ্গরাজ (bhringaraj oil) কিন্তু খুবই জনপ্রিয়। এখন তো নানা হেয়ারকেয়ার প্রোডাক্টেও ভৃঙ্গরাজ ব্যবহার করা হয়। তেল থেকে শুরু করে শ্যাম্পু – অনেক ব্র্যান্ডই এই ওষধিকে নিজেদের প্রোডাক্টে ব্যবহার করছে আজকাল। এই অদ্ভুত গুণসম্পন্ন ভেষজটির সঙ্গে আরও নানা হারবাল উপকরণ মিশিয়ে যদি হেয়া রমাস্ক (hair masks) তৈরি করা যায় এবং নিয়মিত তা ব্যবহার করা যায় তাহলে বুঝতেই পারছেন আপনার মনের মতো একঢাল রেশমের মত চুলের অধিকারিণী আপনি কত তাড়াতাড়িই না হতে পারবেন! জেনে নিন কয়েকটি সিক্রেট রেসিপি

ভৃঙ্গরাজ তেলের সঙ্গে মেশান ক্যস্টর অয়েল

শাটারস্টক

চুল পড়ার সমস্যা থাকলে এই হেয়ারমাস্কটি ব্যবহার করতে পারেন। ক্যস্টর অয়েল খুব দ্রুত নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।

কী কী উপকরণ লাগবে – সম পরিমাণে ক্যস্টর অয়েল ও ভৃঙ্গরাজ অয়েল

কীভাবে ব্যবহার করবেন – দুটি তেল একসঙ্গে মশিয়ে নিন এবং কম আঁচে গরম করে নিন। খেয়াল রাখবেন তেল যেন ফুটে না যায়। এবারে ওই হালকা গরম তেল দিয়ে স্ক্যাল্পে ভাল করে মাসাজ করুন আঙুলের ডগা দিয়ে। এক ঘন্টা পর মাইল্ড কোনও সালফেট-ফ্রি শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

কতদিন ব্যবহার করবেন – সপ্তাহে তিনদিন এই হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন। খুব দ্রুত ফল পাবেন।

ভৃঙ্গরাজ তেলের সঙ্গে আমলকি

অনেকেই বাজারচলতি নানা আমলা তেল ব্যবহার করেন, তবে সব সময়ে কিন্তু সেগুলো আবার সবার সুট করে না। তাঁর চেয়ে ভাল আপনি বাড়িতেই আমলকি দিয়ে তৈরি করে নিন আমলা তেল। এতে ভেজালও থাকবে না আর চুলেও সঠিক পুষ্টি যাবে।

কী কী উপকরণ লাগবে – এক চা চামচ আমলা পাউডার এবং দুই টেবিল চামচ ভৃঙ্গরাজ তেল

কীভাবে ব্যবহার করবেন – তেল ও আমলা পাউডার একসঙ্গে মিশিয়ে কম আঁচে সামান্য গরম করুন। দেখবেন তেলের রঙ কালচে হয়ে যাচ্ছে, তখন আঁচ থেকে নামিয়ে একটু ঠান্ডা করে আঙুলের ডগা দিয়ে মিনিট ২০ স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন। এক ঘন্টা পর মাইল্ড কোনও সালফেট-ফ্রি শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

কতদিন ব্যবহার করবেন – সপ্তাহে তিনদিন করে এই হেয়ারমাস্ক ব্যবহার করুন

ভৃঙ্গরাজ তেলের সঙ্গে জবাফুলের পাপড়ি

ইনস্টাগ্রাম

যাঁদের চুল প্রচন্ড রুক্ষ ও স্প্লিট-এন্ডস বা দু’মুখো চুলের সমস্যা রয়েছে তাঁদের জন্য কিন্তু ভৃঙ্গরাজ তেলের এই হেয়ারমাস্কটি খুব উপকারী। জবা ফুলের পাপড়ি চুলে ময়শ্চার প্রদান করে আর অন্যদিকে ভৃঙ্গরাজ তেল চুলের কিউটিক্যালস মজবুত করতে সাহায্য করে।

কী কী উপকরণ লাগবে – এক শিশি ভৃঙ্গরাজ তেল এবং বেশ কয়েকটি জবাফুল

কীভাবে ব্যবহার করবেন – জবাফুলের বোঁটা ছাড়িয়ে পাপড়ি আলাদা করে নিন। এবারে তেলের সঙ্গে পাপড়িগুলি মিশিয়ে গরম করুন। আঁচ কম রাখবেন। যখন দেখবেন তেলের রঙ বদলাচ্ছে অর্থাৎ কালচে লাল রঙ ধরেছে তখন আঁচ বন্ধ করে ঠান্ডা করে নিন। এবারে তেলটা ছেঁকে একটি কাচের শিশিতে ভরে রেখে দিন। যখন তেলটি স্ক্যাল্পে ও চুলে মাসাজ করবেন অল্প তেল নিয়ে হালকা গরম করে মাসাজ করুন। এক ঘন্টা পর মাইল্ড কোনও সালফেট-ফ্রি শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

কতদিন ব্যবহার করবেন – সপ্তাহে দুবার করে যতদিন না পর্যন্ত চুল মোলায়েম হচ্ছে।

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!