ভাবতে পারেন, শুধুমাত্র শসার সুপ খেয়েই ওজন কমিয়ে ফেলা সম্ভব!

ভাবতে পারেন, শুধুমাত্র শসার সুপ খেয়েই ওজন কমিয়ে ফেলা সম্ভব!

কিহে দিনে দিনে ফুলছেন বলে কি কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ছে? তা হলে সকাল-বিকাল একটু হাঁটহাঁটি করছেন না কেন শুনি! আরে মশাই, হাজার ঝামেলা। সকালে নটার মধ্যে অফিস ছুটতে হয়। তার আগে এক এক জনের এক এক রকমের ব্রেকফাস্ট। তা ছাড়াও রয়েছে ছোট-বড় হাজার রকমের কাজ। এত সব ঝক্কি সামলে প্রতিদিন হাঁটবো কখন বলুন? তাই শনি-রবিবার ছাড়া হাঁটাহাঁটির তেমন একটা সুযোগই মেলে না। আচ্ছা বলতে পারেন সপ্তাহে মাত্র দু'দিন কসরত করে কি আদৌ পুজোর আগে ওজন কমিয়ে ফেলা সম্ভব? আলবাত সম্ভব! তবে তার জন্য হাঁটাহাঁটির পাশাপাশি শসা দিয়ে তৈরি বিশেষ এক ধরনের সুপ নিয়মিত খেতে হবে। তাহলেই দেখবেন শুধু পেটের নয়, শরীরের উতি-উতি জমে থাকা সব ফ্যাট ঝরে যাবে। বলেন কী, শসার সুপ (Soup) খেলেই ফল মিলবে! কীভাবে এমনটা সম্ভব?

শসার গুণে ওজন কমবে তরতরিয়ে

এই সবজিটিতে (Cucumber) মজুত রয়েছে ডায়াটারি ফাইবার, যা বহুক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখে। ফলে ঘন্টায় ঘন্টায় মুখ চালানোর ইচ্ছা আর থাকে না। কমে চিপস-কোল্ড ড্রিংকসের মতো খাবার খাওয়ার ইচ্ছাও। ফলে শরীরে অতিরিক্তি ক্যালরির প্রবেশ আটকে যায়, যে কারণে ওজন নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ার সুযোগ তো থাকেই না, উল্টে চর্বি ঝরতে শুরু করে। ফলে ওজন কমতে শুরু করে। তবে এখানেই শেষ নয়, ওজন কমানোর পাশাপাশি শরীরের দেখভালে আরও নানা ভাবে সাহায্য করে থাকে শসা। কীভাবে? এই প্রকৃতিক উপাদানটিতে উপস্থিত প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট, সোডিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, ভিটামিন সি, কে এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখার পাশাপাশি হজম ক্ষমতার উন্নতিতে, পেটের রোগের প্রকোপ কমাতে, জলের ঘাটতি মেটাতে, ডায়াবেটিসের মতো রোগকে দূরে রাখতে এবং হাড়ের ক্ষমতা বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। সেই সঙ্গে দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকেও আরও শক্তিশালী করে তুলতেও বিশেষ ভূমিকা নেয়। তাই বুঝতেই পারছেন ব্রেকফাস্টে বা লাঞ্চে যদি এবার থেকে শসা দিয়ে তৈরি সুপ খেতে শুরু করেন, তাহলে চটজলদি ওজন তো কমবেই, সঙ্গে ছোট-বড় নানা রোগ-ব্যাধিও দূরে থাকতে বাধ্য হবে।

শসার সুপ তৈরির পদ্ধতি

পদটি তৈরি করতে প্রয়োজন পড়বে চারটে শসা, এক বাটি দই, ২-৩ চামচ মৌরি, এক কাপ ঠান্ডা জল এবং এক চামচ পাতি লেবুর রসের।

সুপ রান্নার প্রণালী

১. প্রতিটা শসার খোসা ছাড়িয়ে সেগুলি টুকরো করে নিয়ে ব্লেন্ডারে রাখুন। তারপর তাতে এক এক করে বাকি উপাদানগুলি যোগ করে মিনিটদুয়েক ব্লেন্ড করে নিন। যখন দেখবেন প্রতিটি উপাদান একে অপরের সঙ্গে ভাল করে মিশে গেছে, তখন ব্লেন্ডারটা বন্ধ করে দিন।

২. যদি দেখেন মিশ্রণটা খুব ঘন হয়েছে, তাহলে আরও এক কাপ ঠান্ডা জল মিশিয়ে নিতে পারেন, তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে সুপ। এবার দুটো পাইরুটি নিয়ে তার দু'পাশে, ব্রাশের সাহায্যে অল্প করে অলিভ অয়েল লাগিয়ে পাউরুটি দুটো ছোট ছোট টুকরো করে নিয়ে সেগুলি কয়েক সেকেন্ড ফ্রাই করে নিয়ে সুপের উপর ছড়িয়ে দিন। তারপর গার্লিক ব্রেডের সঙ্গে পরিবেশন করুন। এই পদটি খেতে যেমন মুখরোচক, তেমনি ষোল আনাই স্বাস্থ্যকর। এই কারণেই তো রোজের ডায়েটে এই পদটিকে অন্তর্ভুক্ত করতে ভুলবেন না যেন!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!