তৈলাক্ত ত্বকে ফাউন্ডেশন লাগান এমনভাবে, যাতে তেলতেলে ভাব বোঝা না যায়!

তৈলাক্ত ত্বকে ফাউন্ডেশন লাগান এমনভাবে, যাতে তেলতেলে ভাব বোঝা না যায়!

যাঁদের তৈলাক্ত (oily) ত্বক (skin), তাঁরা সব সময় কোনও না-কোনও দুশ্চিন্তায় ভোগেন! অতিরিক্ত তেলের জন্য তাঁদের প্রায়ই ব্রণ হয়। সেটা তো অবশ্যই একটা চিন্তার বিষয়। উপরন্তু সাজগোজ করার সময় তাঁরা ভয় পান এই ভেবে যে, বেশি মেকআপ তাঁদের এই অতিরিক্ত তেলে ধেবড়ে না যায়। বিশেষ করে ফাউন্ডেশন ব্যবহারের ক্ষেত্রে নানা রকম ভুল অনেকেই করে ফেলেন। তাই আজ আমারা এই প্রতিবেদন নিয়ে হাজির হয়েছি। যাঁদের তৈলাক্ত বা তেলতেলে ত্বক তাঁরা কীভাবে এই ফাউন্ডেশন ব্যবহার করবেন, সেটা জেনে নেওয়ার জন্য। 

কীভাবে বেছে নেবেন সঠিক ফাউন্ডেশন

pexels

ফাউন্ডেশন সব সময় দিনের আলোয় বেছে নেবেন। তা হলে রং বা শেড বুঝতে অসুবিধে হবে না। তিনটে শেড আগে বেছে নেবেন, যেটা হাল্কা থেকে গাঢ় হবে। সেটা নিজের হাতে একটু করে লাগিয়ে দেখুন। যে শেড আপনার স্কিন টোনের সঙ্গে একদম মিশে যাবে, সেটাই হবে আপনার জন্য সঠিক ফাউন্ডেশন। কেনার সময় খেয়াল রাখবেন, ফাউন্ডেশন যেন অয়েল বেসড না হয় এবং সেটা দীর্ঘস্থায়ী হয়। না হলে বার বার আপনাকে এটা ব্যবহার করতে হবে। 

আপনার জন্য সেরা হল ম্যাট ফাউন্ডেশন

যেহেতু আপনার ত্বক এমনিতেই তেলতেলে, তাই ম্যাট ফাউন্ডেশন হল আপনার জন্য সেরা। ফাউন্ডেশন দু’রকম রূপে পাওয়া যায়। লিকুইড আর পাউডার। দিনের বেলা বা রোজ ব্যবহারের জন্য লিকুইড ফাউন্ডেশন হল ভাল চয়েস। আর রাতের বেলা বা মাঝে-মাঝে কোনও বিশেষ পার্টি থাকলে পাউডার ফাউন্ডেশন ব্যবহার করতে পারেন। তবে ম্যাট ফাউন্ডেশন কেনার সময়ও একটু সাবধান থাকতে হবে। সেমি ম্যাট ফিনিশ বা রেডিয়ান্ট ম্যাট ফাউন্ডেশন কিনবেন না। কারণ, এতে আপনার ত্বক অনাবশ্যক চকচক করবে। 

POPxo recommends:

L'Oreal Paris True Match Super Blendable Liquid Foundation

Lakme Invisible Finish SPF 8 Foundation

Maybelline New York Super Stay 24H Full Coverage Liquid Foundation

স্টেপ বাই স্টেপ গাইড

pexels

১) একটা ক্লেনজিং ব্রাশ দিয়ে ভাল করে মুখ পরিষ্কার করে নিন। 

২) এর পর ক্লেনজার দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এক্সফোলিয়েটিং ক্লেনজার হলে খুব ভাল হয়। কারণ, এটি ক্লেনজিং ও স্ক্রাবিং দুটো কাজই একসঙ্গে করবে। এতে ত্বকের মৃত কোষ আর বাড়তি তেল, দুটোই দূর হবে। 

৩) এবার আপনাকে ময়শ্চারাইজার লাগাতে হবে। বেছে নিন ওয়াটার বেসড ময়শ্চারাইজার। এটি লাগালে ত্বক বেশি তেলতেলে হবে না। ময়শ্চারাইজারে যদি এসপিএফ ১৫ সান প্রোটেকশন থাকলে ভাল হয়। তা হলে এটি সূর্যরশ্মির হাত থেকে ত্বককে রক্ষা করবে। 

৪) এবার অতিরিক্ত তেল ব্লটিং পেপার দিয়ে শুষে নিন। আপনি নিজেই জানেন, আপনার মুখের কোণ কোন জায়গায় বেশি তেল বেরোয়। সেই জায়গায় এই ব্লটিং পেপার চেপে ধরুন। এবার পালা প্রাইমারের। ম্যাট ফিনিশ প্রাইমার লাগিয়ে নিন মুখে। লুমিনাইজিং উপাদান বা চকচকে ব্যাপার থাকলে সেই প্রাইমার ব্যবহার করবেন না। 

৫) এবার আঙুলের ডগায় ফাউন্ডেশন নিয়ে ভাল করে মুখে মিশিয়ে দিন। 

৬) সব শেষে আপনাকে ব্যবহার করতে হবে ট্রান্সলুসেন্ট পাউডার। যাতে ফাউন্ডেশন আপনার মুখে দীর্ঘস্থায়ী হয়। সঙ্গে ব্লটিং বা টিস্যু পেপার ক্যারি করবেন ও বাড়তি তেল বেরলেই এগুলো দিয়ে শুষে নেবেন।  

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!