সম্পর্কে খারাপ সময় কাটিয়ে উঠবেন কীভাবে? রইল কিছু দরকারি টিপস

সম্পর্কে খারাপ সময় কাটিয়ে উঠবেন কীভাবে? রইল কিছু দরকারি টিপস

সুন্দর নিটোল সম্পর্কেও (relationship) ঝড় ওঠে! হ্যাঁ, আজ যার হাতের উপর হাত রেখে নিশ্চিন্ত হয়েছিলেন, কাল তাঁর সঙ্গেই মতবিরোধ শুরু হল। পাকা গিন্নিরা বলেন, ঘটি বাটি পাশাপাশি রাখলে ঠোকাঠুকি লাগেই। তার জন্য তো আর সংসার ত্যাগ করা যায় না। একদম ঠিক। একসঙ্গে ঘুরেছেন, সিনেমা দেখেছেন, রেস্তরাঁয় খেয়েছেন, দু’জনে মিলে ঘর বাঁধার স্বপ্ন দেখেছেন। সামান্য একটু ভুল বোঝাবুঝির জন্য সেই সব ছেড়ে বেরিয়ে আসবেন? যে-কোনও সম্পর্কেই খারাপ (rough) দিন বা খারাপ সময় আসে। ভেঙে পড়বেন না। বরং ধৈর্য রাখুন আর মোকাবিলা করুন এই বাজে সময়ের (patch)। কীভাবে? গাইড করছি আমরা। 

১) মনের মধ্যে দ্বিধা রাখবেন না

pixabay

আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে সবকিছু ঠিকঠাক চলছে, কিন্তু আপনার মনে কি কোথাও কোনও কাঁটা বিঁধে আছে? উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, তা হলে বলি সম্পর্কে কোনও দ্বিধা রাখবেন না। যে-কোনও বিষয় যা এখন ছোট বলে মনে হচ্ছে. কিন্তু পরে বড় আকার ধারণ করতে পারে, তা হলে সেটা নিয়ে কথা বলুন। কোনও বড় রকমের ঝগড়া বা মনোমালিন্য হলেও যেটা আপনার বক্তব্য সেটা স্পষ্ট ভাষায় বুঝিয়ে বলুন। মনে রাখবেন এই সম্পর্ক আপনারা দু’জনে গড়েছেন। তাই যতটা অধিকার, তাঁর ততটাই আপনার। 

২) ধৈর্য রাখুন

সাতদিন কথা না বললে বা বয়ফ্রেন্ড ফোন না ধরলে মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে যায় না। মাঝে-মাঝে এই গ্যাপ, এই ব্রেকের দরকার পড়ে। যখন দেখবেন, কোনও কিছু ঠিকমতো এগোচ্ছে না, তখন একটু ধৈর্য রাখুন। সময় হচ্ছে জীবনের সেরা ওষুধ। তাই তাঁকে একটু সময় দিন আর নিজেও একটু সময় নিন। 

৩) যোগাযোগের অন্য মাধ্যম

pixabay

আজকের দিনে প্রযুক্তির কল্যাণে ফোনে কথা না বলেও অনায়াসে যোগাযোগ রাখা যায়। তাই যখন সম্পর্কে খারাপ সময় চলছে এবং আপনারা পরস্পরের সঙ্গে কথা বলছেন না, অন্য কিছু যেমন হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার ইত্যাদির সাহায্য নিয়েও কথা বলতে পারেন। সরাসরি কথা না বললেও এভাবেও অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। কথা বলছিনা বলেই সঙ্গে-সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার সিদ্ধান্ত নেওয়া বোকামি।

৪) সব কথা সবাইকে বলবেন না

pexels

প্রতিটি সম্পর্কের কিছু গোপনীয়তা থাকে। কেন আপনারা একসঙ্গে নেই, কী হয়েছে? কে দোষী, আগামী দিনে আবার আপনারা একসঙ্গে থাকবেন কিনা? এগুলো অত্যন্ত ব্যক্তিগত প্রশ্ন। সম্পর্ক একটু টাল খেলেই সঙ্গে-সঙ্গে সবার সঙ্গে এই নিয়ে কথা বলতে শুরু করবেন না। এখন সম্পর্ক খারাপ হলেও এক সময় কিছু ভাল মুহূর্ত কাটিয়েছেন। সেগুলোকে সম্মান করতে শিখুন। যদি দেখেন বিষয়টা আস্তে-আস্তে ব্রেকআপের দিকে ঘুরে যাচ্ছে সঙ্গে-সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্টেটাস আপলোড করবেন না। 

৫) ‘যদি’ ভাসান নদীতে

যদি উনি এটা না বলতেন, তা হলে আপনি এটা ভাবতেন না। বা আপনি যদি এটা না করতেন তা হলে উনি এটা বলতেন না। এত যদি রাখবেন না সম্পর্কে। মানুষের জীবন পরিবর্তনশীল। কখন কী হয় কেউ বলতে পারে না। ‘যদি’ সম্পর্ক ভেঙে যায়, ‘যদি’ বিয়ে না হয় এত কিছু ভেবে মনের রাগ দুঃখ চেপে রাখবেন না। এগিয়ে যান, কথা বলুন। 

৫) বিশ্বাস রাখুন

pexels.com

যাঁরা ম্যাজিকে বিশ্বাস করেন, ম্যাজিক তাঁদের সঙ্গেই ঘটে। আপনিও সেই বিশ্বাস রাখুন। বিশ্বাস রাখুন যে যিনি এক সময় আপনার ভাল সময়ের সঙ্গী ছিলেন, তিনি খারাপ সময়েও আপনাকে আগলে রাখবেন। ভালবেসেছেন তো? ভালবাসায় বিশ্বাস করতে শিখুন। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!