সারা দিন টানা চোখে কাজলের রেখা থাকবে, কিন্তু তা ধেবড়ে যাবে না কোন কায়দায়?

সারা দিন টানা চোখে কাজলের রেখা থাকবে, কিন্তু তা ধেবড়ে যাবে না কোন কায়দায়?

‘কালো, তা সে যতই কালো হোক, দেখেছি তার কালো হরিণ চোখ’... সেই কোন কালে রবি ঠাকুরও হরিণ চোখের কথা লিখে গিয়েছেন। শুধু ঠাকুরই বা কেন, কবিতা হোক বা গল্প- চোখ নিয়ে দু’-এক কথা পাওয়া যাবেই, এমন লেখার সংখ্যা কিন্তু কম নয়। অর্থাৎ চোখের প্রেমে পড়েছেন অনেকেই। হয়তো আপনার চোখেও রয়েছে সেই একই প্রেম। খুঁজে নেবে কোনও প্রিয়তম। তাই চোখকে (eye) সাজিয়ে রাখার দায়িত্ব আপনার। যে-কোনও ঋতুতেই সবচেয়ে কম সময়ে চোখের সাজ কমপ্লিট করার জন্য বেছে নিতে পারেন কাজল (Kajal)। হ্যাঁ, আরও বিভিন্ন উপকরণ রয়েছে তো বটেই। কিন্তু কাজল-কালো চোখ যে আকর্ষণীয়, এ বোধ হয় আর বলার অপেক্ষা রাখে না। 

কিন্তু এর একটা সমস্যাও রয়েছে। ধরুন, ভিড় মেট্রোতে কলেজ-অফিস যাচ্ছেন। গরম ঘেমে গিয়েছেন বিস্তর। গন্তব্যে পৌঁছে দেখলেন, চোখের কোণে যেন কালি লেপে দিয়েছে কেউ! আবার ভরা বর্ষায় ছাতা নিতে ভুলে গিয়েছেন। শপিং করতে গিয়ে বেমক্কা ভিজে গেলেন। চোখের কাজল ধেবড়ে গেল অজান্তেই। মুহূর্তে নষ্ট হল সাজ। এখন কী উপায়? আহা! চিন্তা করছেন কেন? উপায় তো নিশ্চয়ই রয়েছে। দেখুন তো, নীচে দেওয়া টিপসগুলো মেনে চললে কোনও উপকার পান কিনা… 

  • কাজল পরার আগে হালকা হাতে চোখের চারপাশে ক্রিম মাসাজ করে নিন। ক্রিম যাতে ত্বকের সঙ্গে পুরোপুরি মিশে যায়, সেদিকে খেয়াল রাখবেন। এতে ত্বকের অতিরিক্ত তেল চলে যাবে। এবার নিশ্চিন্তে কাজল পড়ুন। স্মাজ (smudge) হওয়ার ভয় কমবে।
  • আইস ব্যাগ দিয়ে চোখের চারপাশে মাসাজ করে নিতে পারেন প্রথমে। তারপর শুকনো কাপড়ে মুছে নিন চোখের চারপাশ। এতে কাজল দীর্ঘক্ষণ স্থায়ী হবে।
  • কাজল পরার সময় ভিতরের কোণ অ্যাভয়েড করার চেষ্টা করুন। কারণ, সাধারণত চোখের ভিতরের কোণে জল থাকে। ফলে কাজল পরলে তা স্মাজ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা অনেক বেশি।
  • বরং চোখের উপর এবং নীচের ওয়াটার লাইন ব্যবহার করতে পারেন। এতে কাজল পরাও অনেক সহজ।
  • কাজল পরার পর ওয়াটারপ্রুফ আইলাইনার (eye liner) ব্যবহার করা জরুরি। এতে স্মাজ হওয়ার আশঙ্কা কমবে অনেকটাই। কারণ আইলাইনার কাজলকে ধরে রাখতে সাহায্য করবে।
  • কাজল পরার পর চোখের উপর হালকা পাউডার ব্যবহার ইউজ করতে পারেন। এতেও স্মাজ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা কমবে।
  • বাজার চলতি বেশ কিছু স্মাজপ্রুফ কাজল তো আছেই। পকেটের রেস্ত অনুযায়ী পছন্দমতো কোনও একটা কিনে এই ট্রিকসগুলো ট্রাই করতে পারেন আপনিও।

আরও একটা বিষয় মনে রাখা জরুরি। গাঢ় করে কাজল পরা বা বলা ভাল, কিছুটা স্মাজ করে দেওয়ার স্টাইল অনেকেই পছন্দ করেন। অনেকেই কাজল পরার পর হালকা হাতে তা স্মাজ করে দেন। তার কায়দা আলাদা। কিন্তু সেভাবে স্মাজ করলেও ঘামে বা জল পড়ে ঘেঁটে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে! সেসব এড়িয়ে চলার উপায় এ বার আপনার হাতের মুঠোয়…

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!