'দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন'-এর ফার্স্ট লুকে পরীণিতি চোপড়া, ভাইরাল হল ছবি

'দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন'-এর ফার্স্ট লুকে পরীণিতি চোপড়া, ভাইরাল হল ছবি

কপালে গভীর ক্ষত। মুখের কিছুটা অংশ পুড়ে গিয়েছে বোঝা যাচ্ছে। অনাবৃত কাঁধে লেগে রয়েছে রক্ত। খোলা চুলে বাথটবে বসে রয়েছে মেয়েটি। চোখের দৃষ্টিতে ভয়, আতঙ্কের মিশেল। কী দেখছে সে? মেয়েটিকেও কি চিনত পারছেন? 

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিটি ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় আলোচনা। ছবিটি ভাইরাল হয়ে যায়। এই ছবি বলি অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়ার (Parineeti Chopra)। নিঃসন্দেহে এ ঘটনা রিয়েল লাইফের নয়। এ হল রিলের গল্প। কিন্তু এখনও পর্যন্ত পরীণিতির কোনও লুক নিয়েই এত আলোচনা হয়নি সোশ্যাল ওয়ালে। এই ছবি তো ভয়ঙ্কর। কোন ছবিতে এমন চরিত্রে দেখা যাবে নায়িকাকে? 

'দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন' (The girl on the train)-এর নাম হয়তো আপনারা অনেকেই শুনেছেন। তারই হিন্দি রিমেক তৈরি হচ্ছে। লন্ডনে চলছে শুটিং। পরিচালনার ভার ঋভু (Ribhu) দাশগুপ্তের। শুটিং থেকেই এই ছবির ফার্স্ট লুক (first look) সোশ্যাল ওয়ালে শেয়ার করেছেন নায়িকা।

মূল ছবিটি তৈরি হয়েছিল হলিউডে। মূল চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন এমিলি বাট। এক দম্পতির উপর প্রতিদিন নজর রাখতেন তিনি। সবই ঠিকঠাক চলছিল। হঠাৎই নজরে আসে, কোথাও একটা কিছু সমস্যা রয়েছে। তারপর থেকেই গল্পের গতি মোড় নেয় অন্যদিকে। পলা হকিন্স 'দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন' নামে একটি উপন্যাস লিখেছিলেন। তা থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই মূল ছবিটি তৈরি করা হয়েছিল। 

যে ছবি নিয়ে এত আলোচনা তা শেয়ার করে পরিণীতি লিখেছেন, "এটা এমন কিছু যা এর আগে কখনও করিনি। এটুকু বলতে পারি, এখনও পর্যন্ত কেরিয়ারের সবচেয়ে কঠিন চরিত্র।" শুটিংয়ের আগে বারবার চিত্রনাট্য পড়েছিলেন তিনি। যতটা সম্ভব চরিত্রকে আত্মস্থ করার চেষ্টা করেছেন। এমন চরিত্রকে পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে অনেক বেশি মনঃসংযোগ প্রয়োজন বলেও দাবি করেছেন তিনি। ওয়ার্কশপের মাধ্যমেও স্ট্রং হোমওয়ার্ক করেছেন নায়িকা। তাঁর কথায়, "আসলে এই চরিত্রটা (charachter) করতে রাজি হলাম একটাই কারণে। দর্শক আমাকে এর আগে এ ভাবে দেখেননি। সব সময়ই নতুন কিছু খুঁজতে থাকি। আর এটার আগে জোরদার প্রস্তুতি নিতে হয়েছে। তবেই 'দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন' আমার জন্য ঠিকঠাক হয়েছে। অ্যালকোহলিকের চরিত্র। যে যৌন অত্যাচারেরও শিকার। সব সময়ই নতুন চরিত্র খুঁজতে থাকি। কিন্তু এটা এর আগে কখনও করিনি।"

পরিণীতি ছাড়াও অদিতি রাও হায়দারি, কীর্তি কুলহারি, অবিনেশ তিওয়ারির মতো অভিনেতাদের কাস্ট করেছেন ঋভু। তিনি রাজা এবং চৈতালি দাশগুপ্তের ছেলে। তাঁর দাদা বিরসা দাশগুপ্ত। অর্থাৎ ঋভুর রক্তেই রয়েছে সিনেমা। এর আগে অমিতাভ বচ্চনকে নিয়ে কাজ করেছেন তিনি। পরিচালনা করেছেন 'তিন'। 'বার্ড অব ব্লাড'-এর মতো ওয়েব সিরিজ পরিচালনা করেছেন। তবে 'দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন' যে একেবারে অন্য রকম কাজ হতে চলেছে সে বিষয়ে এক প্রকার নিশ্চিত ইন্ডাস্ট্রির একটা বড় অংশ। পরীণিতির পারফরম্যান্সের দিকেও তাকিয়ে রয়েছেন অনুরাগীরা। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!