জেনে নিন, বর্ষাকালে কাঠের আসবাব কীভাবে যত্নে রাখবেন

জেনে নিন, বর্ষাকালে কাঠের আসবাব কীভাবে যত্নে রাখবেন

যদিও ঘর সাজানোর জন্য আজকাল অনেকেই অনেকরকম furniture ব্যবহার করেন, তবে যা-ই বলুন না কেন, কাঠের আসবাবের কিন্তু ব্যাপারটাই অন্যরকম! সেই আভিজাত্য আর নান্দনিকতা আপনি প্লাস্টিক, ফাইবার বা রট আয়রনের আসবাবে পাবেনই না। আগেকার দিনে তো বাড়িতে বাড়িতে বার্মাটিক বা সেগুন কাঠের পালঙ্ক, বসার চেয়ার, গোল তেপায়া ইত্যাদি হামেশাই দেখা যেত। এখন যদিও সেই রামও নেই সেই অযোধ্যাও নেই, তবুও কাঠেরই নানা রকমফের এসছে এবং ইঞ্জিনিয়ার্ড উড বা এমডিএফ উড-এর আসবাবে ঘর ভরে উঠছে। কিন্তু বর্ষাকালে (monsoon) আপনার বাড়ির সেগুন কাঠের আসবাবই হোক বা ইঞ্জিনিয়ার্ড উডের আসবাবই হোক, যত্ন নেবেন কীভাবে?

শাটারস্টক

বর্ষাকালে যেহেতু বাতাসে জলীয় বাষ্প তুলনামূলকভাবে বেশি থাকে কাজেই ঘরের ভিতরেও একটা স্যাঁতস্যাঁতে ভাব থেকে যায়। আর এই স্যাঁতস্যাঁতে ভাব কিন্তু কাঠের আসবাবের জন্য একদম ভাল নয়। জলীয় বাষ্পের ফলে wooden furniture-এ ড্যাম্প পড়ার আশঙ্কা থেকে যায়। তার উপর আবার অনেকসময়েই বৃষ্টির ছাঁট এসে আসবাব ভিজিয়ে দিতে পারে। তখন আসবাবে সাদা-সাদা ছোপ পড়ে, এগুলি আর কিছুই না ফাঙ্গাস। এর থেকে কাঠে পচনও ধরতে পারে। তাহলে কীভাবে বর্ষার প্রকোপ থেকে রক্ষা করবেন আপনার শখের কাঠের আসবাব? জেনে নিন কয়েকটি সহজ অথচ জরুরি টিপস।

বর্ষায় কাঠের আসবাবের যত্ন করবেন কীভাবে

১। দেওয়াল থেকে অন্তত ছয় ইঞ্চি দূরে রাখুন কাঠের আসবাব। দেওয়ালে অনেকসময়ে বর্ষাকালে ড্যাম্প পড়ে এবং যেহেতু কাঠ জল শুষে নিতে পারে কাজেই দেওয়াল থেকে যাতে জল কাঠের আসবাবে না লাগে সে জন্যই এই ব্যবস্থা।

২। ন্যাপথলিন ব্যবহার করুন। কাঠের আলমারি বা সোফার কোনে-কোনে ন্যাপথলিনের বল দিয়ে রাখুন। এতে এক ঢিলে দুই পাখি মারার কাজ হবে, প্রথমত ন্যাপথলিন ঘরের স্যাঁতস্যাঁতে গন্ধ দূর করবে ও দ্বিতীয়ত, ন্যাপথলিন বাতাসের জলীয় বাষ্প শুষে নিতে পারে ফলে কাঠের আসবাব সুরক্ষিত থাকবে। আপনি চাইলে কর্পূরও ব্যবহার করতে পারেন, একই কাজ হবে।

শাটারস্টক

৩। ভেজা কাপড় দিয়ে কখনওই wooden furniture মুছবেন না। একটি নরম, পরিষ্কার এবং শুকনো কাপড় দিয়ে আসবাব মুছুন। প্রতিদিন সম্ভব না হলেই একদিন অন্তর একদিন আসবাব মোছামুছি করুন যাতে ময়লা না জমে। বর্ষাকালে কিন্তু আসবাবে ময়লা জমলে তা চিটচিটে হয়ে যেতে পারে জলীয় বাষ্পের কারণে।

৪। যখন বৃষ্টি হবে না, তখন অন্তত জানলা-দরজা খুলে রাখুন, যাতে ঘরের মধ্যে আল-বাতাস ঢোকে। এতে ঘরের স্যাঁতস্যাঁতে ভাব দূর হবে এবং আসবাবেরও ক্ষতি হবে না।

৫। বর্ষাকালে কাঠের আসবাবে পোকা বা ঘুনের আক্রমণ বাড়ে। নিমপাতা, নীমের তেল, কর্পূর ও রাবিং অ্যালকোহল বা স্পিরিট একসঙ্গে মিশিয়ে রেখে দিন এবং যেখানে ঘুন ধরেছে সেখানে স্প্রে করে দিন। পোকার হাত থেকে এই কীটনাশক আপনার সাধের কাঠের আসবাব রক্ষা করবে।

৬। যদি কাঠে ফাঙ্গাস হয়ে যায়, তা হলে বেশ কড়া করে লিকার চা তৈরি করে তার মধ্যে সামান্য ভিনিগার মিশিয়ে সেই মিশ্রণ দিয়ে ফাঙ্গাস লাগা wooden furniture পরিষ্কার করুন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!