Best Face Toner In India (In Bengali) - ত্বকের যত্নে কয়েকটি সেরা টোনারের সন্ধান | POPxo

টোনার ব্যবহারের পদ্ধতি, উপকারিতা এবং কয়েকটি সেরা টোনারের সন্ধান (Best Face Toner In India)

টোনার ব্যবহারের পদ্ধতি, উপকারিতা এবং কয়েকটি সেরা টোনারের সন্ধান (Best Face Toner In India)

মেকআপ করার জন্য এবং ত্বক সুন্দর ও সজীব রাখার জন্য আমরা অনেক কিছু ব্যবহার করি। কিন্তু মাঝে মাঝে দেখা যায় যে অনেক কিছু ব্যবহার করার পরেও ত্বকে সেই জেল্লা আসছে না। নিজেকে প্রশ্ন করে দেখুন যে আপনার সুন্দর ত্বক পেতে কে আপনাকে বাধা দিচ্ছে? উত্তর আসবে এটাই যে কোনও একটি বস্তু ব্যবহার করতে আপনি ভুলে গেছেন বা এড়িয়ে যাচ্ছেন। আর এই বস্তুটিই হল টোনার (Best Face Toner In India)। বিশ্বজুড়ে মেকআপ আর্টিস্ট ও ত্বক বিশেষজ্ঞরা একে সিক্রেট ওয়েপন বা সুন্দর ত্বকের গোপন অস্ত্র বলে আখ্যা দিয়েছেন।অন্যান্য মেকআপ বা স্কিন ভাল রাখার বস্তু সম্পর্কে আপনি যতটা জানেন, হতে পারে টোনার সম্পর্কে আপনি ঠিক ততটা জানেন না। সেই জন্যই আজ আমাদের এই প্রতিবেদন। টোনার কীভাবে ব্যবহার (Toner Uses) করবেন, টোনার ব্যবহারের কী-কী সুফল আছে এবং টোনার (Face Toner)  নিয়ে আরও কিছু জরুরি কথা এখানে আলোচনা করা হবে। 

Table of Contents

    টোনার আসলে কী? (What Is Toner?)

    pixabay
    pixabay

    টোনার হল এমন একটি বস্তুন যা আপনার ত্বক ‘টোন’ করে। অর্থাৎ আপনার ত্বকের ছিদ্রে যে ময়লা জমে থাকে সেগুলোকে বাইরে বের করে আনে টোনার। শোনা যায়, প্রাচীন ফ্রান্স আর ইরানের মহিলারা কলের জলে মুখ ধুতেন না। তাঁরা এক বিশেষ ধরনের জল ব্যবহার করতেন। কালক্রমে সেটাই টোনারের চেহারা নিয়েছে। টোনার শুধু ত্বকের ছিদ্র পরিষ্কার রাখে না, এটি জীবাণু প্রতিরোধ করে। ত্বকের আর্দ্রতা ও পিএইচ ব্যালান্সও রক্ষা করে।

    কেন ব্যবহার করব টোনার? (Why You Need To Use Toner?)

    pixabay
    pixabay

    টোনার সম্পর্কে অনেকেরই ধারণা খুব সীমিত। কেন ব্যবহার করব টোনার?এই প্রশ্নের উত্তর অনেকেরই জানা নেই। ত্বকে ক্লিনজার আর ময়েশ্চারাইজার লাগানোর আগে টোনার লাগাতে হবে। এটি এমন একটি তরল জা ত্বক চটজলদি শুষে নিতে পারে। এই তরল ত্বক থেকে ময়লা, বাড়তি তেল, মেকআপ সব কিছু দূর করে। ত্বকের সঠিক পিএইচ সমতা ধরে রাখা এবং অ্যাকনে নিয়ন্ত্রণ করাও এর কাজ। টোনার ত্বকের উপরিভাগের মৃত কোষ সরিয়ে দিয়ে ত্বক উজ্জ্বল করে। অনেকেই অ্যাসট্রিনজেন্ট আর টোনারের মধ্যে পার্থক্য করতে পারেন না। দুটোই কিন্তু অ্যালকোহল যুক্ত। তবে অ্যালকোহল মুক্ত টোনারও বাজারে পাওয়া যায়। টোনার রোজ ব্যবহার (Face Toner Uses) করা যায়। কিন্তু অ্যাসট্রিনজেন্টে অ্যালকোহলের মাত্রা বেশি থাকায় এটি ত্বক শুষ্ক করে দেয়। 

    টোনার ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতি (How To Use A Toner?)

    yoqueen.mask_
    yoqueen.mask_

    প্রত্যেকটি মেকআপের বস্তুর ব্যবহারের কিছু সঠিক পদ্ধতি আছে। ঠিক তেমনই ত্বকের যত্ন নিতে আমরা যা যা ব্যবহার করি সেগুলোরও কিছু সঠিক পদ্ধতি আছে। আমাদের এক-একজনের ত্বক এক এক রকম। সুতরাং ত্বকের ধরন যদি ভিন্ন প্রকৃতির হয় তা হলে ত্বকের যত্নে ব্যবহৃত বস্তু নিয়মাবলী এক রকম হবে না। টোনারের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য টোনার ব্যবহারেরও নিয়ম আছে। তাই বিভিন্ন রকমের ত্বকের ক্ষেত্রে টোনারের ব্যবহার (Face Toner Uses) হবে ভিন্ন রকমের।  

    শুষ্ক ত্বকের জন্য টোনার (Toner for Dry Skin)

    টোনার ব্যবহার করতে গেলে, সেটা সব রকমের ত্বকের ক্ষেত্রে দুটো ভাবে করা যায়। তুলোর বলে টোনার নিয়ে সেটা মুখে লাগানো যেতে পারে। আবার পরিষ্কার হাতের তালুতে অল্প টোনার নিয়ে মুখে লাগানো যেতে পারে। যাঁদের ত্বক শুষ্ক, তাঁরা ভাবেন তাঁরা আদৌ টোনার লাগাতে পারেন কিনা। ত্বক শুষ্ক হলে অবশ্যই হাইড্রেটিং টোনার ব্যবহার করবেন। যেমন, গোলাপ জল বা রোজ ওয়াটার এবং ভিটামিন ই যুক্ত টোনার ব্যবহার করতে হবে। 

    তৈলাক্ত ত্বকের জন্য টোনার (Toner for Oily Skin)

    তৈলাক্ত ত্বকের জন্য টোনার হল একটি আশীর্বাদ। তৈলাক্ত ত্বকের টোনার বলতে যদি আপনি টি-ট্রি অয়েলযুক্ত টোনার ব্যবহার করেন সেটা তৈলাক্ত ত্বকের জন্য আদর্শ হবে। কারণ, এই জাতীয় টোনার ত্বকের বাড়তি তেল শুষে নেবে এবং জীবাণু সংক্রমণ প্রতিরোধ করবে। টোনার (Toner For Oily Skin) কেনার সময় দেখে নেবেন তাতে টি-ট্রি অয়েল আছে কিনা। এমনিতেও টোনারের মধ্যে থাকে গ্লাইকোলিক ও স্যালিসাইক্লিক অ্যাসিড যা তৈলাক্ত ত্বকের পক্ষে ভাল। 

    স্বাভাবিক ত্বকের জন্য টোনার (Toner for Normal Skin)

    টোনারের মধ্যে যা-যা উপাদান আছে, তার প্রত্যেকটাই অত্যন্ত কার্যকরী। যেমন, বিভিন প্রকারের অ্যাসিড, হিউমিকট্যান্ট ইত্যাদি। টোনারের শিশির গায়ে লেখা থাকবে তার মধ্যে কী-কী উপাদান আছে। আপনার ত্বক যদি স্বাভাবিক হয় এবং ত্বকে যদি বিশেষ কোনও সমস্যা না থাকে, তা হলে আপনি সব রকমের টোনার ব্যবহার করতে পারেন।তবে আপনার ত্বকের ছিদ্র যদি বড় আকারের হয় তা হলে আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিডযুক্ত টোনারের ব্যবহার করুন। ত্বকে উজ্জ্বল আভা আনতে হলে পেঁপের নির্যাস ও ল্যাকটিক অ্যাসিডযুক্ত টোনার হল আদর্শ।  

    অ্যাকনে ও অনুভূতি প্রবণ ত্বকের জন্য টোনার (Toner for Sensitive & Acne Prone Skin)

    যাঁদের ত্বকে খুব বেশি অ্যাকনে হয় এবং যাঁদের ত্বক খুব সেনসিটিভ বা অনুভূতিপ্রবণ, তাঁরাও টোনার ব্যবহার করতে পারেন। ক্যামোমাইলযুক্ত টোনার (Best Toner for Acne) ব্যবহার করতে হবে এতে ত্বকে জ্বালাভাব কমবে। অ্যাকনে থাকলে অবশ্যই ব্যবহার করবেন অ্যালোভেরাযুক্ত টোনার।

    টোনার ব্যবহারের উপকারিতা (Benefits of Using A Toner)

    Pexels
    Pexels

    টোনার ব্যবহারের নানা রকম উপকারিতা আছে। শোনা যায়, প্রাচীন ইজিপ্টে রানি ক্লিওপেট্রা প্রতিদিন টোনার ব্যবহার করতেন। যাঁরা খুব বেশি মেকআপ করেন বা কোনও হেভি মেকআপ প্রোডাক্ট, যেমন সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন, সেগুলো তুলতে টোনারের জুড়ি নেই। দেখে নেব টোনারের নানা উপকারিতা।

    ১| ত্বকের ছিদ্র ছোট করে (It Shrinks Pores)

    সামান্য একটু টোনার তুলোর বলে করে মুখে লাগালে ত্বকের ছিদ্রের সব ময়লা বেরিয়ে আসে এবং তার সঙ্গে-সঙ্গে ত্বকের ছিদ্র সঙ্কুচিত হয়ে যায়। বড় ছিদ্র হলে ত্বকে নানা রকম সমস্যা দিতে পারে। টোনার ত্বকের ছিদ্র ছোট করে সেই সমস্যা অনেকটাই দূর করে।

    ২| ত্বকের পি এইচ মাত্রা বজায় রাখে (Helps To Balance The pH)

    আমাদের ত্বক এমনিতে অ্যাসিডিক। ০ থেকে ১৪র স্কেলে মাপলে আমাদের ত্বকে পিএইচ মাত্রা হওয়া উচিত ৫ থেকে ৬ এর মধ্যে। নানা কারণে বিশেষ করে অ্যালকালাইন কোনও প্রোডাক্ট ব্যবহার করলে সেই মাত্রা বেড়ে বা কমে যেতে পারে। টোনার সেই মাত্রা আবার সঠিক স্থানে ফিরিয়ে নিয়ে আসে।

    ৩| ত্বকের সুরক্ষা কবচ হিসেবে কাজ করে (Adds A Layer of Protection)

    টোনারের ব্যবহার করলে ত্বকের ছিদ্র ছোট হয় এবং কোষের মধ্যে যে ফাঁক থাকে সেটা কমে আসে। এতে ধুলো, ময়লা ও দূষণ ত্বকের মধ্যে প্রবেশ করতে পারে না। কলের জলে ক্লোরিন ও অন্যান্য ক্ষতিকর বস্তুও ত্বকে প্রবেশ করতে পারে না।

    ৪| ময়শ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে (Acts Like A Moisturizer)

    কিছু-কিছু টোনার কাজ করে হিউমিকট্যান্ট হিসেবে। ফলে এই জাতীয় টোনার অন্যান্য কাজের সঙ্গে সঙ্গে ত্বকে আর্দ্রতা যোগায়। অর্থাৎ এটি কাজ করে ময়শ্চারাইজার হিসেবে।

    ৫| ত্বক তরতাজা রাখে (Provides Hydration To Your Skin)

    মুখ যদি বেশি তৈলাক্ত হয় বা মুখে ধুলো ময়লা চিটচিট করে তা হলে টোনার দিয়ে মুখ ধুলে খুব কাজে দেয়। বিশেষ করে হেভি মেকআপ তোলার পর টোনার দিয়ে মুখ ধুলে মুখ একদম তরতাজা আর ফ্রেশ হয়ে ওঠে।

    ৬| অবাঞ্ছিত ইনগ্রোন চুলের বৃদ্ধি বন্ধ করে (Prevent Ingrown Hairs)

    টোনারে থাকে গ্লাইক্লোলিক অ্যাসিড ও অন্যান্য আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড। এই অ্যাসিড ইনগ্রোন চুলের বৃদ্ধি বন্ধ করে দেয়। ফলে এটি খুবই কার্যকরী একটি বস্তু, বিশেষ করে যাঁদের এই সমস্যা আছে তাঁদের জন্য।

    বাড়িতে কীভাবে তৈরি করবেন টোনার (How To Make Toner at Home)

    pexels
    pexels

    টোনার তৈরি করা খুব সহজ। বিশেষ করে সব রকম উপাদান হাতের কাছে থাকলে খুব সহজেই এটা বাড়িতে তৈরি করে নেওয়া যায়। তবে সব রকম ত্বকের জন্য একটি টোনার হতে পারে না। তাই আমরা বলে দিচ্ছি কয়েকটি ঘরোয়া পদ্ধতি যেগুলি অনুসরণ করে আপনি ত্বকের প্রয়োজন অনুযায়ী বাড়িতে তৈরি করে নিতে পারবেন মনের মতো টোনার।  

    শুষ্ক ত্বকের জন্য (Homemade Toner for Dry Skin)

    ১| গ্রিন-টি ব্যাগ থাকলে একটা বা দুটো নিন। বা এমনি গ্রিন টি চার চা চামচ নিন। এক চা চামচ তাজা অ্যালোভেরা জেল বের করে নিন। দু কাপ জল ফুটিয়ে তাতে গ্রিন টি ব্যাগ বা গ্রিন টি দিয়ে দিন। ৩০ মিনিট রাখুন। ঠান্ডা হলে তার মধ্যে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে দিন।

    ২| নারকেলের জল আর কাঁচা দুধ ভাল করে মিশিয়ে নিলেও ভাল টোনার তৈরি হয়। এর মধ্যে কটন বল দিয়ে ডুবিয়ে মুখে লাগাতে পারেন।

    তৈলাক্ত ত্বকের জন্য (Homemade Toner for Oily Skin)

    ১| এক টেবিল চামচ অ্যাপল সাইডার ভিনিগারের সাথে এক কাপ জল মিশিয়ে টোনার (Toner For Oily Skin) তৈরি করে নিন। এর মধ্যে কটন বল ডুবিয়ে লাগাতে পারেন মুখে।

    ২| একটি শসার কিছুটা কেটে কুচিয়ে নিন। এবার পাত্রে জল ফুটিয়ে তার মধ্যে এই শসা দিয়ে দিন। ভাল করে ফুটে মিশে গেলে নামিয়ে ঠান্ডা করে ছেঁকে নিন।

    অ্যাকনে যুক্ত ত্বকের জন্য (Homemade Toner for Acne Prone Skin)

    ১| ৩/৪ কাপ গ্রিন টির সঙ্গে মিশিয়ে নিন ১/৪ কাপ অ্যাপল সাইডার ভিনিগার। এটি অ্যাকনেযুক্ত ত্বকের জন্য খুব ভাল। এটা স্প্রে বোতলে রাখতে পারেন বা তুলোয় ভিজিয়ে লাগাতে পারেন।

    ২| ছয় কাপ জল ফুটিয়ে তার মধ্যে এক মুঠো পুদিনা পাতা দিয়ে দিন। ভাল করে ফুটে গেলে সেটা নামিয়ে ঠান্ডা করে ছেঁকে বোতলে ঢেলে রাখুন।

    অনুভূতি প্রবণ ত্বকের জন্য (Homemade Toner for Sensitive Skin)

    ১| সাত চা চামচ গোলাপ জল, দুই চা চামচ জল আর এক চিমটে কর্পূর মেশালেই আপনার টোনার রেডি। এটি অনুভূতিপ্রবণ ত্বকের জন্য (Best Toner for Sensitive Skin) বেশ ভাল।

    ২| শসা কুচিয়ে সেটা পরিমাণ মতো জলে ফুটিয়ে নিন। ঠান্ডা হলে ছেঁকে নিন। তারপর এর মধ্যে সামান্য একটু দই মিশিয়ে ভাল করে মিশিয়ে দিন।

    সব রকম ত্বকের জন্য সেরা কয়েকটি টোনার (Best Toners for All Skin Types)

    এতক্ষণে নিশ্চয়ই বুঝে গেছেন, আপনার দৈনন্দিন রূপচর্চায় টোনারের প্রয়োজন কতটা। আর সেইজন্য আমরা নিয়ে এসেছি সেরা দশটি টোনার। এর সব কটাই আমাদের দেশে (Best Toner In India) পাওয়া যায়। সব রকম ত্বকের কথা মাথায় রেখেই এই তালিকা তৈরি হয়েছে। 

    1| Lotus Herbals Basiltone Clarifying & Balancing Toner

    Skin Care

    Lotus Herbals Basiltone Clarifying & Balancing Toner

    INR 265 AT Lotus Herbal

    এর মধ্যে আছে তুলসি আর শসা। দুটোই ত্বকে আরাম দেয়। তৈলাক্ত এবং মিশ্র দুই রকমের ত্বকের জন্যই এটা ভাল। দামেও এটি খুব একটা বেশি নয়। 

    2| Thayers Facial Toner – Rose Petal Witch Hazel with Aloe Vera

    Skin Care

    Thayer's Alcohol-free Rose Petal Witch Hazel with Aloe Vera

    INR 1,149 AT Thayers

    এই টোনারে প্যারাবেন, গ্লুটেন বা অন্যান্য কোনও ক্ষতিকর পদার্থ নেই। তাই এটি ত্বকের জন্য খুব ভাল (Best Toner In India)। তবে দাম একটু বেশি। 

    3| Jovees Cucumber Skin Toner

    Skin Care

    Jovees Cucumber Skin Toner

    INR 136 AT Jovees

    ত্বকের ছিদ্র থেকে সমস্ত ধুলো, ময়লা আর ঘাম বের করে আনবে এই টোনার। ত্বকে তরতাজা ভাব নিয়ে আসবে। যারা এটা ব্যবহার করেছেন তাঁরা বলেছেন এই টোনার নতুন কোষের জন্ম ঘটিয়ে ত্বকে লাবণ্য বজায় রাখে। 

    4| Fabindia Tea Tree Skin Toner

    Skin Care

    Fabindia Tea tree skin toner

    INR 265 AT Fabindia

    তৈলাক্ত ত্বকের জন্য এই টোনার একদম আদর্শ (Face Toner In India)। এছাড়াও যাঁদের ত্বকে প্রায়শই পিম্পল, ব্রণ বা অ্যাকনে দেখা যায় তাঁরাও এটা ব্যবহার করতে পারেন। টি-ট্রির গুণে ত্বক হবে সুন্দর আর ব্রণ ও অ্যাকনেও দূর হবে।  

    5| L’oreal Hydra Fresh Instant Freshness Toning Water

    Skin Care

    L’oreal Hydra Fresh Instant Freshness Toning Water

    INR 570 AT L'Oreal

    এর মধ্যে আছে প্রো ভিটামিন বি ফাইভ। এটি ত্বকে লাবণ্য নিয়ে আসে। তাছাড়া এটির মধ্যে আছে বিটা হাইড্রক্সি যা ত্বকের নির্জীব ভাব দূর করে। ত্বকের আর্দ্রতা লক করে বা ধরে রাখতেও পারে এই টোনার।

    6| Oriflame Essentials Fairness Balancing Toner

    Skin Care

    TVAM Toner-Neem Clove Anti-acne

    INR 922 AT TVAM

    এর মধ্যে আছে প্রচুর প্রাকৃতিক উপাদান। যার মধ্যে সি বাকথর্ন, নিম, তুলসি, লবঙ্গ ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ। এর মধ্যে কোনও ক্ষতিকর বস্তু না থাকায় এটি ত্বকের জন্য খুব ভাল।  

    7| Nivea Visage Oil Regulating Toner

    Skin Care

    Nivea Visage Oil regulating Toner

    INR 500 AT Nivea

    এটি খুব হাল্কা একটি প্রোডাক্ট। ব্যবহার করার পর ত্বকে সুন্দর অনুভূতি হয়। তবে এটি এতটাই হাল্কা যে এর প্রভাব খুব ধীরে-ধীরে কার্যকরী হয়। অর্থাৎ ত্বকে কাজ করতে এটি একটু সময় নেয়। 

    8| Kaya Clinic Daily Pore Minimizing Toner

    Skin Care

    Kaya Clinic Daily Pore Minimizing Toner,

    INR 308 AT Kaya

    ত্বকের সমস্ত ধুলো ময়লা দূর করে ত্বক উজ্জ্বল করে। দামেও খুব একটা বেশি নয়। তবে এই প্রোডাক্ট যা দাবি করে অর্থাৎ এটি ছিদ্র সঙ্কুচিত করে, সেটা সঠিক নয়। 

    9| The Body Shop Tea Tree Skin Clearing Toner

    Skin Care

    The Body Shop Tea Tree Skin Clearing Toner

    INR 695 AT The Body Shop

    অত্যন্ত কার্যকরী একটি টোনার। মুখের তেলতেলে ভাব একদম দূর করে ত্বক উজ্জ্বল করে এই টোনার। যারা মেকআপ করেন তাঁদের জন্য এটি একদম আদর্শ। অতিরিক্ত সেবাম নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণ করে এই টোনার। 

    10| Plum Green Tea Alcohol Free Toner

    Skin Care

    Plum Green Tea Alcohol-Free Toner

    INR 351 AT Plum

    খুব ভাল হাল্কা একটি টোনার। সব রকমের ত্বকে এটি সমান কার্যকরী। যেহেতু এতে অ্যালকোহল নেই তাই ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কাও একদম নেই। 

    টোনার নিয়ে কিছু জরুরি প্রশ্নোত্তর (FAQs)

    ১| প্রশ্ন: প্রতিদিন কি টোনার ব্যবহার করা যায়?

    উত্তর: হ্যাঁ, প্রতিদিন টোনার ব্যবহারে কোনও অসুবিধা নেই।

    ২| প্রশ্ন: টোনার কি ত্বকে আর্দ্রতা যোগায়?

    উত্তর: সব টোনারের এই ক্ষমতা নেই। যে সব টোনারে হিউমিকট্যান্ট আছে সেগুলি ত্বকে আর্দ্রতা যোগাতে পারে।

    ৩| প্রশ্ন: গোলাপ জল কি টোনার হিসেবে ব্যবহার করা যায়?

    উত্তর: হ্যাঁ, গোলাপজল অবশ্যই একটি কার্যকরী টোনার। বিশেষ করে শুষ্ক ত্বকে এটি খুব ভাল কাজ দেয়।

    ৪| প্রশ্ন: রাতে টোনার ব্যবহার করলে কি বেশি ভাল ফল পাওয়া যায়?

    উত্তর: টোনার দিন বা রাত যে-কোনও সময় ব্যবহার করা যায়। আলাদা করে রাতে ব্যবহার করলে বিশেষ কোনও ফল পাওয়া যায় না।

    ৫| প্রশ্ন: শুষ্ক ত্বক যাঁদের, তাঁরা কি টোনার ব্যবহার করতে পারে?

    উত্তর: নিশ্চয়ই পারেন। তবে তাঁদের এমন কোনও টোনার বেছে নিতে হবে যার মধ্যে আর্দ্রতা যোগান দেয় এরকম কোনও উপাদান আছে।

    POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

    আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!