সেক্স সম্বন্ধে আপনার কিছু Fetish আছে, তা হলে কি আপনাকে মানসিকভাবে অসুস্থ ভাবা উচিত?

সেক্স সম্বন্ধে আপনার কিছু Fetish আছে, তা হলে কি আপনাকে মানসিকভাবে অসুস্থ ভাবা উচিত?

Sexual Fetish, ব্যাপারটা শুনতে গেলে ভারী অদ্ভুত। বেশ গেরামভারী গোছের ব্যাপার! কিন্তু কথাটার মানে কী আর খামোকা এরকম বিদঘুটে কথা নিয়ে আমরা আলোচনা করতে বসলামই বা কেন? আসলে সেই যে ছোটবেলা থেকে শারীরিক মিলন কিংবা সেক্স নিয়ে আমাদের মনে একটা লজ্জা-লজ্জা, ভয়-ভয় ভাব ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে, তারপর থেকেই এই প্রসঙ্গে আলোচনা করতে গেলেও আমরা চারদিক দেখে নিই, ফিসফিস করে কথা বলি! আর যদি একটু গভীরে ঢুকতে চান, তা হলে তো সমবয়সি ভাইবোন কিংবা বন্ধুবান্ধব ছাড়া আলোচনার কথা সিম্পলি ভুলে যান! 

এখন ভাবুন, সেক্স নিয়ে সামান্য আলোচনা করতে গেলেই যদি এই অবস্থা হয়, তা হলে সেক্সুয়াল ফেটিশ নিয়ে আলোচনা করবেনটা কার সঙ্গে? সেক্সুয়াল ফেটিশ থাকাটা ঠিক না বেঠিক, এই ধরনের অবদমিত ইচ্ছে এবং কষ্টকল্পনাগুলি থাকাটা আদৌ অস্বাভাবিকতার লক্ষণ কিনা, সেসব জানবেন কী করে? আশা করি, এবার বুঝতে পারছেন, হঠাৎ এই বিষয়ের অবতারণা করলাম কেন! এখন বলুন তো, এই সেক্সুয়াল ফেটিশ ব্যাপারটা ঠিক কী, তা বুঝতে পেরেছেন কি? সেক্সুয়াল ফেটিশ হল শারীরিক মিলন সম্বন্ধে কিছু অদ্ভুত ইচ্ছে, যেটা আপনার মনে বাসা বেঁধে থাকে। যেমন ধরুন, আপনার ভারী ইচ্ছে প্রতিদিন রাতে স্টিমি অন্তর্বাস পরে আপনার বরকে তাক লাগিয়ে দেবেন! কিংবা পর্ন দেখতে-দেখতে পার্টনারের সঙ্গে শারীরিক মিলনে লিপ্ত হওয়াটা বেশ এক্সাইটিং লাগে আপনার কাছে! এই ইচ্ছেগুলো ভুল না ঠিক, এরকম অদ্ভুত ইচ্ছে আপনার মনে বাসা বাঁধলে আপনাকে খ্যাপাটে (weird) বলে ধরা উচিত নাকি সাধারণ মানুষ বলেই, এই ব্যাপারেই আলোচনা করছি আজ... 

১. এই ধরনের বিদঘুটে ইচ্ছেগুলো কি আদৌ সুস্থ মানসিকতার লক্ষণ?

shutterstock

আপনি হস্তমৈথুন করতে ভালবাসতে পারেন, শারীরিক মিলনের সময় স্টিলেটো না পরলে আপনার ঠিক ভাল না-ও লাগতে পারে, একবার অর্গাজমের পর আপনার আরও বারকয়েক চূড়ান্ত সুখের অনুভূতি পেতে ইচ্ছে করতে পারে, রান্নাঘরের স্ল্যাবে শারীরিক মিলনে রপ্ত হতেও ইচ্ছে করতে পারে! এই ইচ্ছেগুলো শুনতে একটু অন্য রকম লাগলেও, এতে আপনার মানসিকতাটি টেরাবেঁকা, এমনটা তখনও বলা যাবে না! ভেবে দেখুন, এককালে সমকামীদেরও লোকে বেঁকা কথা শোনাত বা এখনও শোনায়! কিন্তু তাঁরা তো আদৌ মানসিকভাবে অসুস্থ নন! আপনারও যদি এমন কিছু সেক্সুয়াল ফেটিশ থাকে, জানবেন আপনিও ১০০ শতাংশ সুস্থ! তবে হ্যাঁ, জোর করে নিজের সেক্সুয়াল ইচ্ছেগুলো পার্টনারের উপর চাপাতে যাবেন না। তাতে হিতে বিপরীত হতে পারে। দরকার হলে বুঝিয়ে বলুন, যদি তাতেও চিঁড়ে না ভেজে, তা হলে কিছু করার নেই। সকলের মনের সব ইচ্ছে কি আর চিরদিন পূর্ণ হয়?

২. সেক্সুয়াল ফেটিশ কতটা পজিটিভ কিংবা নেগেটিভ প্রভাব ফেলতে পারে আপনার সম্পর্কে?

এটা বড় কঠিন প্রশ্ন এবং এর উত্তরও লোকবিশেষে বদলাতে পারে! আপনি ফোরপ্লের উপর জোর দিতে চান, আপনার পার্টনারও হয়তো চূড়ান্ত মিলনের আগে নানা ভাবে আপনাকে উত্তেজিত করতে পছন্দ করেন! এই দুই পছন্দ মিলে গেল, চাপ নেই! কিন্তু না মিললে বিপদ! অনেক ক্ষেত্রে আপনার সেক্সুয়াল ফেটিশ আর আপনার পার্টনারের ইচ্ছে এক পথে হাঁটতে না-ও পারে। সেক্ষেত্রে কথাবার্তার মধ্যে দিয়ে ব্যাপারটাকে মিটিয়ে নেওয়াই ভাল। আবার হঠাৎ করে তাঁকে চমকে দিতেও পারেন! কোনও সেক্স টয় নিয়ে পার্টনারকে টিজ করার ইচ্ছে আছে হয়তো আপনার মনে। সেটা আগে থেকে না বলে একদিন তাঁকে চমকে দিন! হয়তো কথায় ব্যাপারটা বুঝতে পারতেন না, কিন্তু হাতে-কলমে করে দেখলে মন্দ লাগবে না। তবে আপনার সেক্সুয়াল ফ্যান্টাসি যদি একটু বেশিমাত্রায় অ্যাম্বিশাস হয়, তা হলে বাপু কী হবে তা আমরা বলতে পারছি না। পুরোটাই নির্ভর করবে আপনার পার্টনারের নেওয়ার ক্ষমতা কতটা তার উপর!

কয়েকটি বিধিসম্মত সতর্কীকরণ

shutterstock

  • ফেটিশ যদি খুবই অ্যাবস্ট্রাক্টিভ কিছু হয়, তা হলে সাবধান! আপনার থ্রিসাম করার ইচ্ছে থাকলে সমস্যা আছে!
  • ফেটিশকে বেশি হাওয়া দেওয়ার প্রয়োজন নেই, আখেরে তাতে ক্ষতিই হবে! বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একটুআধটু দুষ্টুমি চলতে পারে, কিন্তু সেটা যেন বাড়াবাড়ির পর্যায়ে না পৌঁছয়!
  • কয়েক রকমের ফেটিশ আছে, যেগুলি মারাত্মক! যেমন, Sadomasochism (এক্ষেত্রে একজন অন্যজনকে ব্যথা দেওয়ার মাধ্যমে মিলনের আনন্দ উপভোগ করেন), Hematolagnia (এক্ষেত্রে শারীরিক মিলনের সময় কেটেছড়ে রক্ত বের না হওয়া পর্যন্ত শান্তি আসে না), Autoerotic Asphyxiation (এটির ক্ষেত্রে অর্গাজমের সময় একজন অন্যজনের মস্তিষ্কের অক্সিজেন সাপ্লাই সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেন)। এগুলি প্রতিটাই মানসিক বিকারের লক্ষণ এবং সেক্ষেত্রে মনোবিদের পরামর্শ নেওয়াটাই বাঞ্ছনীয়!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!