পাতি লেবুর খোসা দিয়ে তৈরি করে ফেলুন হরেক রকমের ফেসপ্যাক

পাতি লেবুর খোসা দিয়ে তৈরি করে ফেলুন হরেক রকমের ফেসপ্যাক

'লেবুর খোসার আর কি কাজ বলুন, তাই চালান করুন ডাস্টবিনে'। এই ধরণাকে এবার ডাস্টবিনে চালান করার সময় এসে গিয়েছে। কারণ, পাতি লেবুতে যত উপকারী উপাদান রয়েছে, ততটাই মজুত রয়েছে লেবুর খোসাতেও। তাই তো আজকাল রূপচর্চার কাজেও গুরুত্ব বেড়েছে পাতি লেবুর খোসার। ত্বকের যত্নে কীভাবে কাজে আসবে ফলের খোসা? বিশেষজ্ঞদের মতে পাতি লেবুর খোসা গুঁড়ো করে তার সঙ্গে অন্যান্য প্রাকৃতিক উপাদান মিশিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক যদি প্রায় দিনই মুখে লাগানো যায়, তাহলে ত্বকের ভিতরে ভিটামিন সি এবং ফাইবার সহ একাধিক উপকারী উপাদানের মাত্রা বাড়তে শুরু করে, যে কারণে ত্বকের উজ্জ্বলতা তো বাড়েই, সঙ্গে দাগ-ছোপ দূর হতেও সময় লাগে না। শুধু তাই নয়, ত্বককে (Skin) নরম এবং তুলতুলে করে তুলতেও পাতি লেবুর খোসার কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। তাই তো পুজোর আগে ত্বকের হারিয়ে যাওয়া লাবণ্য ফিরিয়ে আনার ইচ্ছে যদি থাকে, তা হলে ঝটপট এই প্রতিবেদনটা পড়ে ফেলুন, আর জেনে নিন লেবুর খোসা দিয়ে নানা রকমের ফেসপ্যাক তৈরির সহজ পদ্ধতি সম্পর্কে।

১. লেবুর খোসা এবং দই

চটজলদি ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে চান? তাহলে ঝটপট পরিমাণ মতো পাতি লেবুর খোসা গুঁড়ো করে, তার থেকে এক চামচ নিয়ে তাতে চামচ দুয়েক টক দই মিশিয়ে তৈরি পেস্ট সারা মুখে ভাল করে লাগিয়ে ফেলুন। মিনিটকুড়ি পরে ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে বার দুয়েক এইভাবে ত্বকের যত্ন নিলে সৌন্দর্য তো বাড়বেই, সঙ্গে যে কোনও ধরনের pigmentation কমতেও সময় লাগবে না। সারা দিনে রোদে ঘোরার কারণে কি ট্যান পড়েছে? তাহলে ঝটপট এই ফেসপ্যাকটিকে কাজে লাগান। দেখবেন, উপকার পাবেই পাবেন।

আরও পড়ুন: দাগ-ছোপ থেকে মশা-মাছির উপদ্রব- সব প্রবলেমের একটাই সলিউশন লেবু

২.পাতি লেবুর খোসা, গ্রিন টি এবং মধু

ব্রণর প্রকোপ কমাতে পাতি লেবুর খোসার জুড়ি মেলা ভার। আর তার সঙ্গে যদি গ্রিন টি এবং মধু মিশিয়ে নেন, তাহলে তো কথাই নেই! সেক্ষেত্রে ব্রণ মিলিয়ে যেতে যেমন সময় লাগবে না, তেমনই এই সব প্রাকৃতিক উপাদানে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদানের গুণে ত্বকের সংক্রমণের মতো রোগও ধারে কাছে ঘেঁষতে পারবে না। সেই সঙ্গে ত্বকের লালচে ভাবও কমবে। এখন প্রশ্ন হল, এত সব উপকার পেতে কতটা পরিমাণে এই তিনটি উপাদান মেশাতে হবে, সেটা জানেন কি? এক্ষেত্রে এক চামচ পাতি লেবুর খোসার গুঁড়োর সঙ্গে হাফ চামচ গ্রিন টি পাতা এবং এক চামচ মধু মিশিয়ে তৈরি পেস্ট সপ্তাহে বার দুয়েক মুখে লাগাতে হবে, তবেই কিন্তু উপকার মিলবে। পেস্টটা মুখে লাগানোর পরে কম করে মিনিট পনেরো অপেক্ষা করে তবে হলকা গরম জলে দিয়ে মুখ ধোবেন, তার আগে নয়।

৩. লেবুর খোসা, বেসন এবং দুধ

ত্বকের যত্নে বেসন এবং দুধ দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাকের ব্যবহার বহুকাল ধরেই হয়ে আসছে। কিন্তু একথা জানা আছে কি, বেসন আর দুধের সঙ্গে যদি অল্প করে পাতি লেবুর খোসার গুঁড়ো মিশিয়ে দেওয়া যায়, তাহলে আরও বেশি উপকার মেলে। বিশেষ করে ত্বকের উপরে জমে থাকা মৃত কোষের স্তর সরে যায়। ফলে ত্বকের লাবণ্য বাড়ে। সেই সঙ্গে ত্বকের বয়সও কমে। এত সব উপকার পেতে এক চামচ পাতি লেবুর খোসার গুঁড়োর সঙ্গে হাফ চামচ বেসন এবং চামচ দুয়েক কাঁচা দুধ মিশিয়ে তৈরি পেস্ট মুখে লাগিয়ে মিনিট পনেরো অপেক্ষা করতে হবে। সময় হলেই মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে বার তিনেক এই ফেসপ্যাকটি মুখে লাগালে উপকার মিলতে সময় লাগবে না।

আরও পড়ুন: ত্বক তুলতুলে রাখতে ঘরেই তৈরি করে ফেলুন চকোলেট ফেসপ্যাক

৪. পাতি লেবুর খোসা, চন্দন গুঁড়ো এবং অ্যালোভেরা জেল

এক চামচ করে পাতি লেবুর খোসার গুঁড়ো, চন্দন গুঁড়ো এবং অ্যালোভেরা জেল নিয়ে ভাল করে মেখে নিয়ে একটা পেস্ট তৈরি করে ফেলুন। এবার সেই মিশ্রণটি সারা মুখে লাগিয়ে মিনিট কুড়ি অপেক্ষা করে হালকা গরম জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে বার তিনেক এইভাবে রূপচর্চা করলে নিমেষেই ত্বকের সৌন্দর্য বাড়বে, সেই সঙ্গে ত্বকের হারিয়ে যাওয়া আর্দ্রতাও ফিরে আসবে। ফলে ত্বকের কোনও ধরনের ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা আর থাকবে না। উল্টে ত্বক নরম এবং তুলতুলে হয়ে উঠবে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...