ওজন দ্রুত কমাতে এবং ত্বক স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখতে নিয়মিত পান করতে হবে লাউয়ের রস!

ওজন দ্রুত কমাতে এবং ত্বক স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখতে নিয়মিত পান করতে হবে লাউয়ের রস!

নিশ্চয়ই ভাবছেন, শরীরের সঙ্গে লাউয়ের কী সম্পর্ক? গরম ভাতের সঙ্গে লাউ ভর্তা বা লাউ চিংড়ি পাতে পড়লে তো খেতে মন্দ লাগে না! কিন্তু লাউয়ের রস খেলে যে কত উপকার পাওয়া যায়, সে বিষয়ে খোঁজ রাখেন কি? খোঁজ যে রাখেন না, তা তো গত পাঁচ বছরের হেলথ রিপোর্টের দিকে নজর ফেরালেই স্পষ্ট হয়ে যায়। জেনে রাখুন, হার্টের রোগ থেকে হেয়ার লস, ছোট-বড় নানা সমস্যার সমাধান লুকিয়ে রয়েছে লাউয়ের রসে। শুধু তাই নয়, রোজের ডায়েটে এই পানীয় জায়গা করে নিলে আরও অনেক উপকার পাওয়া যায়।

লাউয়ের জুসের উপকারিতা (Health Benefits Of Bottle Gourd Juice)

শুধু খেতেই সুস্বাদু নয়, লাউয়ের জুসে রয়েছে অনেক শারীরিক উপকারিতা। দেখে নিন লাউ খেলে কি হয় এবং লাউ খাওয়ার উপকারিতা কি কি -

১| স্ট্রেস-অ্যাংজাইটি কমে ( Relieves Stress and Anxiety)

সমীক্ষা বলছে, আজকের ডেটে আমাদের দেশের যুব সমাজের সিংহভাগই হয় স্ট্রেস, নয়তো অ্যাংজাইটি-ডিপ্রেশনের মতো সমস্যার শিকার। তাই তো এমন পরিস্থিতিতে ছোট-বড় সকলেরই লাউয়ের রস খাওয়া উচিত। কারণ, লাউয়ে মজুত রয়েছে এমন কিছু sedative properties, যা শরীর-মনকে ঠান্ডা করে। ফলে স্ট্রেসের প্রকোপ কমতে সময় লাগে না। কমে অ্যাংজাইটির মাত্রাও।

২| হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটে (Improves Digestive Power)

সামনেই পুজো। তাই প্রায় দিনই লাগাম ছাড়া খাওয়া-দাওয়া তো চলবেই। ফলে গ্যাস-অম্বলের সমস্যা যে লেজুড় হবেই, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু একটা উপায় আছে, যাতে কবজি ঢুবিয়ে খাওয়ার পরেও গ্যাস-অম্বল এবং বদ হজমের আর সমস্যা হবে না। প্রতিদিন এক গ্লাস করে লাউয়ের রস খাওয়া শুরু করুন, তাতে শরীরে জল এবং ফাইবারের মাত্রা বাড়তে শুরু করবে। ফলে গ্যাস-অম্বল তো দূর, ছোট-বড় কোনও পেটের রোগও ধারে কাছে ঘেঁষতে পারবে না। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, নিয়মিত লাউয়ের রস খেলে আলসারের মতো রোগের প্রকোপও নাকি কমে যায়। তাই প্রায় দিনই যাঁরা নানা পেটের সমস্যার শিকার হন, তাঁরা নিয়ম করে এই পানীয়টি খেতে ভুলবেন না যেন!

Pixabay

৩| ওজন কমবে (Helps In Weight Loss)

বলেন কী, লাউয়ের রস খেলে ওজনও কমে? কীভাবে? লাউয়ে রয়েছে ফাইবার, যা বহুক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখে। ফলে খাওয়ার পরিমাণ কমে যাওয়ার কারণে শরীরে অতিরিক্ত ক্যালরির প্রবেশ আটকে যায়। ফলে ওজন কমতে সময় লাগে না। আর যদি নিয়মিত লাউয়ের রস খাওয়ার পাশাপাশি অল্পবিস্তর এক্সারসাইজ করতে পারেন, তা হলে তো কাথাই নেই। সেক্ষেত্রে আরও দ্রুত ওজন কমবে।

৪| ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ে (Adds Natural Glow On Your Face)

লাউয়ের রসে এমন কিছু উপাদান রয়েছে, যা রক্তে মিশে থাকা ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানগুলিকে ধ্বংস করে দেয়। এমনকী, ত্বকের ভিতরে মজুত ক্ষতিকর নানা উপাদানও শরীর থেকে বেরিয়ে যেতে বাধ্য হয়। ফলে ত্বকের সৌন্দর্য তো বাড়েই, সঙ্গে শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির কোনও ধরনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও আর থাকে না।

৫| ইউরিনারি ট্রাক্ট ইনফেকশনের চিকিৎসায় কাজে আসে (Treats Urinary Tract Infections)

এক গ্লাস লাউয়ের রসে চামচ চারেক লেবুর রস মিশিয়ে নিয়মিত পান করলে ইউরিনারি ট্রাক্টে উপস্থিত ক্ষতিকর ব্য়াকটেরিয়াগুলি মারা পড়ে। ফলে সংক্রমণের প্রকোপ কমতে সময় লাগে না। তবে শুধু 'ইউ টি আই' নয়, যে-কোনও ধরনের সংক্রমণকে দূরে রাখতেও এই পানীয়টির কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে।

৬| এনার্জির ঘাটতি দূর করে (Boosts Energy)

আজকাল কি অল্পতেই ক্লান্ত লাগে? তা হলে এই পানীয়ের (Juice) উপর ভরসা রাখতে পারেন। কারণ, লাউয়ে রয়েছে প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট এবং প্রকৃতিক সুগার, যা নিমেষে এনার্জির ঘাটতি দূর করে। সেই সঙ্গে পেশির গঠনেও কাজে আসে। তাই তো যাঁরা নিয়মিত শরীরচর্চা করেন, তাঁদের নিয়ম করে লাউয়ের রস খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে।

৭| ত্বকের বয়স কমে (Makes Your Skin Look Younger)

এক্কেবারে ঠিক শুনেছেন! নিয়মিত লাউয়ের রস খেলে সত্যিই ত্বকের বয়স কমতে শুরু করে। কারণ, এই পানীয়তে উপস্থিত ভিটামিন সি, জিঙ্ক এবং অন্যান্য উপকারী উপাদান cell ageing প্রতিরোধ করে। ফলে বলিরেখা প্রকাশ পাওয়ার আশঙ্কা আর থাকে না। সেই সঙ্গে ত্বকের লাবণ্যও বাড়ে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, লাউয়ের রস খাওয়ার পাশাপাশি তা যদি মুখে লাগাতে পারেন, তা হলে আরও দ্রুত উপকার পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন - 

Gourd Juice Benefits in Hindi

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!