পুজোর খাওয়াদাওয়া: দুর্গা পুজোর সময় পেটপুজো করতে ঢুঁ মারুন কলকাতার এই রেস্তরাঁগুলিতে

পুজোর খাওয়াদাওয়া: দুর্গা পুজোর সময় পেটপুজো করতে ঢুঁ মারুন কলকাতার এই রেস্তরাঁগুলিতে

সারা বছরই তো খুন্তি-কড়াই বগলদাবা করে হেঁশেলে ঘাম ঝরিয়ে যান। তাই পুজোর সময় চার-পাঁচদিন রান্না ঘরে তালা ঝোলালে কোনও ক্ষতি নেই! বরং রোজের সেই থোড় বড়ি খাড়া, আর খাড়া বড়ি থোড়ের সাদামাটা জীবন থেকে একটু ছুটি তো মিলবেই, সঙ্গে একটু স্বাদ বদলও হয়ে যাবে। প্যান্ডেলে-প্যান্ডেলে ঘুরে-ঘুরে ক্লান্ত হয়ে পড়লে টুক করে ঢুকে পড়ুন এই রেস্তরাঁগুলিতে। তবে একটা কথা মাথায় রাখবেন, পুজোর সময় সব জায়গাতেই তুমুল ভিড় থাকে আর তা সামাল দিতে অনেক রেস্তরাঁই মেনুতে ডিশের সংখ্যা কমিয়ে দেয়। সুতরাং, সেসব নিয়ে মাথা ঘামাবেন না আর খিদে রাচ্ছে-পাচ্ছে হলেই সো-জা রেস্তরাঁর দিকে পাড়ি জমাবেন! তবেই ভাল করে খিদে পাওয়া আর রেস্তরাঁর টেবিল পাওয়া, দুটো কাজ একসঙ্গে হবে! 

১. কর্নার কোর্টইয়ার্ড

pixabay

পুজোর (Durga) সময় যাঁরা একটু অন্য ধরনের খাবার চেখে দেখতে আগ্রহী, তাঁরা একবার এই রেস্তরাঁয় ঢুঁ মারতে পারেন। এখানে নানা স্বাদের ইটালিয়ান এবং কন্টিনেন্টাল ডিশ পরিবেশন করা হয়ে থাকে। বিশেষ করে কর্নার কোর্টইয়ার্ডের পিৎজা তো ইতিমধ্যেই খাদ্যরসিকদের মনে আলাদা জায়গা করে নিয়েছে। ইচ্ছা হলে হার্ড ড্রিঙ্কও অর্ডার করতে পারেন, সে ব্যবস্থাও এখানে রয়েছে। সঙ্গে মিলবে নানা ধরনের ককটেল এবং মকটেলও।

ঠিকানা- ৯২বি, গ্রাউন্ড ফ্লোর, শরৎ বোস রোড, হাজরা, কলকাতা। ফোন নং- ৯৯০৩৯৯৯৫৬৭

মাস্ট ট্রাই- মালয়েশিয়ান চিকেন, পিৎজা, পাস্তা এবং স্যালাড।

সময়- সকাল ৮ টা থেকে রাত ১২ টা।

খরচ- দু'জনের খরচ ১,৭০০ টাকা।

 

২. ওহ! ক্যালকাটা

বাঙালি যেখানেই যাক, একটু মাছ-ভাত না হলে চলে না! আপনিও কি সেই দলের সদস্য? তাহলে পুজোর সময় ঠাকুর দেখার মাঝে পেট পুজো করতে পৌঁছে যেতে পারেন ওহ ক্যালকাটায়। এখানকার বাঙালি পদগুলির জনপ্রিয়তা তো সারা দেশ জুড়ে। বিশেষ করে ফিশ ফ্রাই, ডাব চিংড়ি বা ভাপা ইলিশের মতো পদ তৈরিতে তো এদের জুড়ি মেলা ভার। প্রতি বছরই পুজোর সময় এই রেস্তরাঁয় বুফের ব্যবস্থাও থাকে। তাই সপ্তমী-নবমী হোক কী দশমী, কোনও একদিন এখানে ঢুঁ মারতে ভুলবেন না যেন! ইচ্ছা হলে অষ্টমীর দিন সপরিবারে এখানে এসে লাঞ্চটা সেরে নিলে কিন্তু মন্দ হয় না।

ঠিকানা- ফোরাম মল, চতুর্থ তল, ১০/৩, এলগিন রোড, কলকাতা। ফোন নং- ৯৩৩০৬২৭৫১০/০৩৩৪৬০১৪৬০৫। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এলগিন মল ছাড়াও কলকাতার আরও বেশ কয়েকটি জায়গায় এই রেস্তরাঁর শাখা রয়েছে।

মাস্ট ট্রাই- ডাব চিংড়ি, কষা মাংস, ফিশ ফ্রাই এবং চিংড়ি মাছের মালাইকারি। এখানে পরিবেশিত ইলিশের পদগুলিও বেজায় সুস্বাদু।

সময়- দুপুর ১১টা থেকে বিকাল ৪টা (লাঞ্চ)। রাত ৭টা থেকে রাত ১১টা (ডিনার)।

খরচ- দু'জনের খরচ ১,৮০০ টাকা।

৩. বারবিকিউ নেশন

ভুরিভোজের সেরা ঠিকানা হল এই রেস্তরাঁ। এখানে হরেক স্বাদের নানা ধরনের স্টার্টার এবং মেন ডিশ পরিবেশন করা হয়। বিশেষ করে এই রেস্তরাঁর পরিবেশিত নানা স্বাদের কাবাবের পদগুলি তো বেজায় মুখরোচক। ইচ্ছা হলে গলা ভেজাতে হার্ড ড্রিঙ্কও অর্ডার করতে পারেন। চেখে দেখতে পারেন নানা রকমের ককটেল এবং মকটেলও।

ঠিকানা- ২৪, পার্ক সেন্টার বিল্ডিং, প্রথম তল, পার্ক স্ট্রিট, কলকাতা। ফোন নং- ০৩৩৬৪৮০৬০৬০। পার্ক স্ট্রিট ছাড়াও কলকাতার আরও বেশ কয়েকটি জায়গায় এই রেস্তরাঁর শাখা রয়েছে।

মাস্ট ট্রাই- স্টার্টার ম্যারিনেটেড গ্রিল প্রন, নয়তো চিকেন টিক্কা বা রোস্টেড উইংস অর্ডার করতে পারেন। মেন কোর্সে দাম বিরিয়ানি অর্ডার করলে ভুল করবেন না। ইচ্ছা হলে চেখে দেখতে পারেন নানা স্বাদের ডেজার্টও।

সময়- দুপুর ১২টা থেকে রাত সাড়ে ১১টা।

খরচ- দু'জনের খরচ ১,৮০০ টাকা।

আরও পড়ুন: পুজো স্পেশ্যাল: ৩০ দিনের মধ্যে ছোট্ট ভুঁড়িটি কমাতে চাইলে মেনে চলুন এই টিপসগুলি

৪. ৬ বালিগঞ্জ প্লেস

পুজোর মধ্যে কোনও একদিন খাঁটি বাঙালি পদ চেখে দেখার ইচ্ছা থাকলে এখানে পৌঁছে যেতে পারেন। এই রেস্তরাঁয় পরিবেশিত প্রায় প্রতিটি পদই এতটাই মুখরোচক যে একবার স্বাদ নিলে বারে বারে ফিরে আসতে মন চাইবে। বিশেষ করে ডাব চিংড়ি, ভেটকি পাতুরি, ফিশ ফ্রাই এবং কষা মাংসের মতো পদগুলিকে একেবারে উপরের দিকে না রাখলেই নয়। পুজোর সময় এখানে বিশেষ বুফের ব্যবস্থাও থাকবে।

ঠিকানা- ৬, বালিগঞ্জ প্লেস, বালিগঞ্জ, কলকাতা। ফোন নং- ০৩৩-২৪৬০৩৯২২/৯৮৩০৩৫৩৮৮১। বালিগঞ্জের পাশাপাশি কলকাতা শহরে এই রেস্তরাঁর আরও দুটি শাখা রয়েছে।

মাস্ট ট্রাই- ডাব চিংড় এবং মটন কষা। চিকেনের কোনও পদও চেখে দেখতে পারেন। আর যদি মাছ খেতে মন চায়, তা হলে ভেটকি পাতুরি আর্ডার করতে ভুলবেন না।

সময়- দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকাল ৪টে (লাঞ্চ)। রাত ৭টা থেকে রাত ১০টা (ডিনার)।

খরচ- দু'জনের খরচ ১,৮০০ টাকা।

৫. বিগ বস

pixabay

কলকাতার সেরার সেরা রেস্তরাঁ নিয়ে আলোচনা আর ট্যাংরার বিগ বস রেস্তোরাঁর নাম সেখানে থাকবে না, তা কখনও হতে পারে! এখনে নানা স্বাদের খাঁটি চাইনিজ পদ চেখে দেখার সুযোগ মিলবে। আর যদি খানার সঙ্গে পিনাও চাই, তাহলে সে ব্যবস্থাও রয়েছে। তাই পুজোর মধ্যে কোনও দিন পরিবারের সবাই মিলে পার্টি করার প্ল্যান থাকলে এখানে টেবিল বুক করতেই পারেন।

ঠিকানা: ৫৪ সি, মাথেশ্বরতলা রোড, ট্যাংরা, কলকাতা। ফোন নং- ০৩৩-২৩২৮-২৪০৫ /২৩২৯-০০৭৭।

মাস্ট ট্রাই: ড্রাগন চিকেন, ড্রামস অব হেভন এবং রাইস নুডলস।

সময়- দুপুর সাড়ে ১১টা থেকে রাত সাড়ে ১২টা।

দু'জনের খরচ: ১,৩০০-১,৫০০ টাকা।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!