বেশি Salt খেলে শরীরই বলে দেবে। শুধু বোঝার উপায়টা জেনে নিন। in bengali | POPxo

বেশি নুন খেলে বিপদ! কিন্তু আপনি যে বেশি নুন খাচ্ছেন, সেটা বুঝবেন কীভাবে?

বেশি নুন খেলে বিপদ! কিন্তু আপনি যে বেশি নুন খাচ্ছেন, সেটা বুঝবেন কীভাবে?

এ যেন শাঁখের করাত! দু'দিকেই বিপদ! খাবারে নুন কম হলে যেমন মুখে রুচবে না, তেমনই বেশি খেলেও শরীরের ক্ষতি। তাই মেপে নুন খেতে হবে, না হলেই শিরে সংক্রান্তি। কিন্তু দিনে কতটা পরিমাণ নুন খেলে শরীরের কোনও ক্ষতি হয় না? নানা আন্তর্জাতিক সংস্থার রিপোর্টের পাশাপাশি বেশ কিছু স্টাডিতে একথা জলের মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে যে, দিনে দুই-চার গ্রামের বেশি নুন খাওয়া একেবারেই চলবে না। এর চেয়ে বেশি হলেই ব্লাড প্রেশার তো মাত্রা ছাড়াবেই, সঙ্গে আরও হাজারখানেক রোগ ঘাড়ে চেপে বসার আশঙ্কা বাড়বে। বিশেষত, হার্টের ক্ষতি তো হবেই, সঙ্গে অস্টিওপরোসিস, কিডনির রোগ এবং মারাত্মক মাথা যন্ত্রণা হওয়ার মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে। তাই সময় থাকতে থাকতেই একটু সাবধান হওয়াটা জরুরি। এক্ষেত্রে আরও একটা বিষয়ও মাথায় রাখবেন। কী বিষয়? প্রতিদিন মেপে-মেপে নুন খাওয়া তো আর সম্ভব নয়, একটু-আধটু বেশি কম হবেই। তাই সুস্থ থাকতে যতটা সম্ভব কম পরিমাণে নুন (Salt) খাওয়ার পাশাপাশি শরীরের দিকেও একটু নজর রাখতে হবে। যদি দেখেন এই সব লক্ষণগুলি প্রকাশ পেতে শুরু করেছে, তা হলে জানবেন, প্রায় দিনই আপনার শরীরে নুনের পরিমাণ বিপদ সীমা ছাড়াচ্ছে। তখন নুন খাওয়া একেবারে কমিয়ে ফেলতে হবে। বিশেষ করে কাঁচা নুন খাওয়া তো একেবারেই চলবে না।

নুন বেশি খেলেই এই সমস্যাগুলি দেখা দেবে

১. বারে বারে মূত্রত্যাগ করতে হবে

বেশি মাত্রায় নুন খেলেই বারে-বারে ওয়াশরুমে ছুটতে হবে। বিশেষ করে রাতের বেলা তো বারতিনেক বাথরুম ছুটতে হতে পারে। তাই টানা কয়েকদিন এমন সমস্যা হলে চিকিৎসকের সঙ্গে একবার পরামর্শ করে নিতে ভুলবেন না যেন! তবে শরীরে নুনের মাত্রা বাড়লেই যে শুধুমাত্র এমন সমস্যা হয়, তা নয়! ডায়াবেটিস, ইউ টি আই এবং overactive bladder-এর কারণেও বারে-বারে প্রস্রাব চাপতে পারে। তাই এক্ষেত্রে ডাক্তার দেখানোটা জরুরি।

২. জল তেষ্টা বেড়ে যাবে

শরীরে নুনের ঘাটতি হলে যেমন fluid balance বিগড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে, তেমনই বেশি মাত্রায় নুন খাওয়া শুরু করলেও একই ঘটনা ঘটে। সে সময় ফ্লুইড ব্যালেন্স ঠিক না থাকার কারণে বারে বারে জল তেষ্টা পায়। তাই দিনকয়েক ধরে যদি শরীর এমন সিগনাল দেয়, তা হলে তা উপেক্ষা করবেন না যেন! বরং লিটার-লিটার জল খাওয়ার পাশাপাশি নুন খাওয়াটাও একটু কমাতে হবে।

৩. গা, হাত-পায়ে ব্যথা হবে

শরীরে নুনের পরিমাণ বাড়তে শুরু করলে হাত-পা ফুলে যাওয়ার মতো ঘটনা তো ঘটেই, সেই সঙ্গে আঙুল এবং গোড়ালিতেও মারাত্মক যন্ত্রণা হতে পারে। তাই এমন ঘটনা ঘটলে ফেলে রাখবেন না! বরং চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে জেনে নিতে হবে Edema-এর মতো রোগের খপ্পরে পড়েছেন কিনা। যদি তাই হয়, তা হলে নুন খাওয়া কমানো ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না।

৪. মাথা যন্ত্রণা পিছু ছাড়বে না

সারাক্ষণই কি মাথায় যন্ত্রণা হয়, তাহলে নুন কম খেয়ে দেখুন তো কোনও উপকার পান কিনা! কারণ, শরীরে নুনের পরিমাণ বাড়তে শুরু করলে জলের ঘাটতি দেখা দেয়। ফলে dehydration-এর কারণে মাথা যন্ত্রণা পিছু ছাড়তে চায় না। এই সময় বেশি করে জল খেতে হবে, তবেই কিন্তু উপকার মিলবে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!