দুর্গা পুজোর সপ্তমীর সকাল-রাতে কেমন হতে পারে আপনার সাজ in Bengali | POPxo

পুজোর টিপস: সপ্তমীর দিন সকাল ও রাতে কেমন হবে আপনার সাজ? টিপস দিচ্ছি আমরা

পুজোর টিপস: সপ্তমীর দিন সকাল ও রাতে কেমন হবে আপনার সাজ? টিপস দিচ্ছি আমরা

পুজোর সাজগোজ, এই বিষয়টা এতটাই বড় যে, লিখতে বসলে থিসিস হয়ে যাবে আর সেটিতে ভরে করে আমি এখনও না পাওয়া ডক্টরেট উপাধি পেয়ে যাব! বাঙালি সারা বছর ঝুপ্পুস হয়ে, কালিঝুলি মেখে স্কুল-কলেজ-আপিস করে। কোনওমতে নাকেমুখে গুঁজে ইয়ে জালিম জমানার মুখোমুখি হয়ে দৌড়য়, সেই তারাই পুজোর পাঁচটা দিন সেজেগুজে হুরি-পরি হয়ে ঘুরে বেড়ায়! কলকাতা, তথা বাংলা, তথা ভারতের এবং বিদেশের যে-যে জায়গায় বাঙালি নামক প্রাণীটি আছে, সেখানে-সেখানে তখন লাল-নীল-সবুজের মেলা বসে! বাঙালিও যে ফ্যাশন করতে পারে, সাজগোজ নিয়ে ভাবনাচিন্তা যে তাদের মাথাতেও ঘুরপাক খায়, সেটা বছরের বাকি সময়টা বোঝা না গেলেও, বিশ্বাস করুন, এই সময় যায়! প্রতিটা দিনের সাজ (make up & Fashion) নিয়ে বাঙালি ভাবে, সারা বছর ধরে ভাবে এবং সেই ভাবনাচিন্তার রেজাল্ট বেরোয় এই দিনগুলোতে। এবারও পুজোর (Durga Puja) দিনগুলোর সাজ নিয়ে সকলের ভাবনাচিন্তা নিশ্চয়ই শুরু হয়ে গিয়েছে। আপনাদের সেই কঠিন কাজই একটু সহজ করে দেওয়ার টিপস (tips) দিচ্ছি আমরা...  

সপ্তমীর সকালের সাজ কীরকম হওয়া উচিত?

Instagram
Instagram

১. পোশাক বাছুন ভেবেচিন্তে

এশিয়ান পেন্টস শারদ সম্মানের ট্যাগলাইন ছিল না, সুস্থ রুচি শুদ্ধ শুচি, সপ্তমীর (Saptami) সকাল এবং সপ্তমীর রাতটা এই ট্যাগলাইনটিই আপনার জীবনের সঙ্গী হোক! রাতে যা-ও বা একটুআধটু জমকালো সাজ চলতে পারে, দিনের বেলা তো নৈব নৈব চ। বেছে নিন সুতি কিংবা লিনেনের পোশাক। সেটা শাড়ি হতে পারে, ড্রেস হতে পারে, আবার সালোয়ার-কুর্তাও হতে পারে। রং হোক হালকা প্যাস্টেল শেড। সকালবেলা কটকটে রংয়ের পোশাক চোখের আরাম তো দেবেই না, উল্টো গরমের মধ্যে বেশ একটা ক্যাটক্যাটে ব্যাপারই তৈরি করবে। শাড়ি পরলে স্লিভলেস ব্লাউজ পরতে পারেন। গরমও কম লাগবে, আবার স্টাইলও হবে। ড্রেস পরলে তার ঝুল হাঁটুর নীচে থাকাটাই ভাল। শত হোক, পুজো বলে কথা। বেশি ওয়েস্টার্নাইজড না হওয়াটাই উচিত। সালোয়ার-কুর্তার কাটিং নিয়ে বিশদে গেলাম না, ওটা নিয়ে এমন কিছু বিপ্লব করা যায় না কিনা, তাই!

আমাদের পছন্দ: ব্লক প্রিন্টের খাদি, লিনেন কিংবা সুতির শাড়ি। স্লিভলেস অথবা এয়ারহোস্টেস গলা ব্লাউজ। ব্লাউজের পিঠ কাটাও হতে পারে আবার পিঠে নকশাও করা থাকতে পারে। সঙ্গে কানে ঝোলানো দুল, খোঁপায় থাকুক জুঁই কিংবা বেলফুলের ছোঁওয়া। আর্টিফিশিয়াল ফুলও লাগাতে পারেন। মন্দ লাগবে না। 

 

২. সকালে মেকআপের দিকে থাকুক বিশেষ নজর

দেখুন, পুজোর সময় পাড়ার খেন্তিও ভারী সুন্দর করে সেজেগুজে বেরোয়! কাজেই আপনাকেও সেটা করতেই হবে। কিন্তু কীভাবে করবেন? কতটা সাজলে আপনাকে সুন্দর লাগবে আর কতটা সাজলে বেমানান, সেটা বুঝবেনই বা কী করে? আমরা বলি কী, সপ্তমীর সকালের সাজটাও হোক ভারী মনোরম। বেস মেকআপের অত প্রয়োজন নেই। মুখ পরিষ্কার করে ওয়াটার বেসড সানস্ক্রিন আর তার উপর হালকা করে কম্প্যাক্ট বুলিয়ে নিন। চোখে কাজলের সরু রেখা টানুন। অন্য রংয়ের আইলাইনারও পরতে পারেন। গালে গোলাপি কিংবা পিচ রংয়ের হালকা ব্লাশ অন এবং ঠোঁটেও হালকা কোনও শেডের গ্লসের ছোঁওয়া থাকুক। ব্যস, আর বেশি কিছুর প্রয়োজন নেই। পাড়ার প্যান্ডেলে বসে আড্ডা দিতে কিংবা বন্ধুদের সঙ্গে কিংবা পরিবারকে নিয়ে পায়ে-পায়ে কয়েকটা প্যান্ডেল ঘুরতে এর চেয়ে বেশি কিছু দরকার পড়বে না। 

আমাদের পছন্দ: ঠোঁটে লাগাতে পারেন ল্যাকমে পিঙ্ক বাবলগাম লিপ গ্লস কিংবা মেবিলিন নিউ ইয়র্ক লিপ গ্লস ক্যান্ডি ওয়াও চেরি 

সপ্তমীর রাতের সাজটা যেমন হতে পারে

Instagram
Instagram

১. জমকালো পোশাক বেছে নিন

সকালে তো ছিমছাম সেজেছেন, রাতে না হয় একটু জমকালো সাজুন! এটা দু'ভাবে হতে পারে। এক, জমকালো শাড়ি, সালোয়ার-গয়না, কিংবা জমকালো মেকআপ। আগে প্রথমটি সম্বন্ধে জেনে নিই। রাতের শাড়িটি হতে পারে সিল্ক কিংবা তসরের। মটকা, খাদি, লিনেন, যে সিল্কই হোক না কেন, রং হোক গাঢ়। রাতের বেলায় নজর কাড়তে চাইলে পোশাকের রং হালকা হলে একেবারেই চলবে না। যদি সালোয়ার-কুর্তা প্রেফার করেন, তা হলে লং সিল্কের জমকালো কুর্তা পরুন পালাজো কিংবা স্ট্রেট প্যান্টস দিয়ে। স্টাইলও হবে আবার সাজুগুজুও হবে!

আমাদের পছন্দ: আঁচলে হালকা সিকুইনের ছোঁওয়া দেওয়া মটকা সিল্ক কিংবা ভারী বর্ডারের দক্ষিণী সিল্কের শাড়ি। চুল বাঁধুন সুন্দর করে, নইলে ব্লো ড্রাই করে খোলা রাখুন। 

২. রাতের মেকআপও হোক নজরকাড়া

রাতের পোশাকের সঙ্গে-সঙ্গে মেকআপও কিন্তু মানানসই হওয়া চাই। তাই রাতে সাজুন প্রাণ ভরে। বেস মেকআপ করুন ফাউন্ডেশন ও প্রাইমার দিয়ে, তার উপর বুলিয়ে নিন কমপ্যাক্ট। হাইলাইট করুন ব্লাশ অন ও হাইলাইটার দিয়ে। চোখ হোক স্মোকি, তবে একমাত্র কালো শেডের আইশ্যাডো দিয়েই যে স্মোকি লুক আনতে হবে, তার কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। পোশাকের রংয়ের সঙ্গে মিলিয়েও আইশ্যাডো বাছতে পারেন। 

আমাদের পছন্দ: হুদা বিউটি ডেজার্ট ডাস্ক আইশ্যাডো প্যালেট কিংবা মেবিলিন নিউ ইয়র্ক ২৪ কে গোল্ড নুড আইশ্যাডো প্যালেট

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...