পার্লারে চলছে পুজোর স্পেশ্যাল প্যাকেজ, কিন্তু আপনার জন্য আদর্শ কোনটা?

পার্লারে চলছে পুজোর স্পেশ্যাল প্যাকেজ, কিন্তু আপনার জন্য আদর্শ কোনটা?

নতুন জামা একটা-একটা করে আলমারিতে জমা হচ্ছে নিশ্চয়ই! দর্জির কাছে নতুন ব্লাউজ বা ড্রেস তৈরি করতে দেওয়া কমপ্লিট। অষ্টমীর সকালে কোনটা পরবেন, আর নবমীর রাতের জন্য কোনটা তুলে রাখবেন, প্রতিদিন সেটা নিয়ে কনফিউশন বেড়ে চলেছে তো? বুঝতেই পারছি, আপনার পুজোর (durga puja) প্ল্যানিং শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু ওই চারটে দিন জেল্লা দেওয়ার জন্য আগে থেকে যত্ন নিতে হবে তো। ত্বক বা চুলের আলাদা করে দেখভাল করা জরুরি। দেখুন, বাড়িতে সারা বছর যদি ত্বকের (skin) পরিচর্যা করেন, তা হলে ঝক্কি কম। কিন্তু তা যদি না হয়, সময় থাকতে-থাকতে চর্চা শুরু করুন। বাড়িতে নিজস্ব রুটিন তো অবশ্যই ফলো করবেন। প্রফেশনালের সাহায্য নেওয়াও জরুরি। অর্থাৎ পুজোর আগে ত্বক পরিচর্চার জন্য পার্লারে (parlour) যেতে হবে আপনাকে। যদি নিয়মিত পরিচর্চা করেন, তা হলেও কিন্তু প্রফেশনালের সাহায্য নেওয়াটা জরুরি। এ সময় প্রায় সমস্ত পার্লারেই পুজো স্পেশ্যাল প্যাকেজ থাকে। তার মধ্যে থেকে কোনটা বেছে নেবেন, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে কয়েকটা জিনিস মনে রাখতে পারেন...

কোনটা আপনার?

পুজোর আগে ছোট, বড় যে-কোনও পার্লারে গেলেই সেখানকার কর্মীরা পুজো স্পেশ্যাল প্যাকেজের লিস্ট আপনাকে ধরিয়ে দেবেন। তার মধ্যে থেকে কোন প্যাকেজটা আপনার জন্য সঠিক হতে পারে, সেটা বেছে নেওয়াটা বেশ কঠিন কাজ। যদি কর্মীরা আপনার চেনা হন, তাঁদেরও সাহায্য নিতে পারেন। তবে লোভনীয় অফার বা কম দাম দেখে ঝাঁপিয়ে পড়বেন না। আপনার ত্বকের জন্য পারফেক্ট প্যাকেজ বেছে নিন।

ফেসিয়ালের রকমফের

আপনি হয়তো সারা বছর ফ্রুট ফেসিয়াল করান। পুজোর আগে স্পেশ্যাল কিছু করাতে চাইছেন। হয়তো আপনার বাজেটে চলে আসছে অ্যারোমা ফেসিয়াল। কিন্তু আপনার ত্বকের জন্য আদর্শ হয়তো গোল্ড ফেসিয়াল। ফলে বাজেট পারমিট না করলে সারা বছর যে রুটিন ফলো করেন, তাই মেনে চলুন। কিন্তু ত্বকের জন্য আদর্শ নয়, এমন কোনও ফেসিয়াল করিয়ে ত্বকের দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতি করবেন না।

shutterstock

বাজেট ফ্রেন্ডলি

পুজোর ত্বকচর্চার জন্য নির্দিষ্ট বাজেট নিশ্চয়ই রয়েছে আপনার। পার্লারে গিয়ে প্যাকেজ বেছে নেওয়ার সময় সেটাও মাথায় রাখবেন। ধরুন, অ্যান্টি ট্যান, ফেসিয়াল, ব্লিচ মিলিয়ে একটা প্যাকেজ তৈরি হয়েছে। যেটা আপনার বাজেটের চেয়ে বেশি। অথচ আপনাকে সেটা নিতে অনুরোধ করছেন পার্লারের কর্মী। প্রয়োজন না থাকলে এড়িয়ে যান। আবার অনেক সময় দেখা যায়, আপনি হয়তো অ্যান্টি ট্যান এবং ফেসিয়াল করাতেই অভ্যস্ত। প্যাকেজের লোভে পড়ে ব্লিচও করাচ্ছেন। সেটা হয়তো ভবিষ্যতে আপনার ক্ষতি করবে। ফলে প্রয়োজন এবং পকেট বুঝে প্যাকেজ বেছে নিন।

জরুরি সময়

পুজোর আগে অনেক সময় সাতদিন বা ১০ দিনের প্যাকেজ দেয় বিভিন্ন পার্লার। ওই ক’দিন পরিষেবা দেওয়ার জন্য নির্দিষ্ট পারিশ্রমিক নেন কর্মীরা। আপনি হয়তো সেই প্যাকেজে প্রলোভিত হলেন। অথচ দেখা গেল কাজের চাপে টানা সাত বা ১০ দিন সময় ত্বকচর্চার জন্য দিতে পারলেন না। এতে সঠিক চর্চা তো হলই না। উল্টে খরচ হয়ে যাবে অনেকটাই। তাই প্যাকেজ বেছে নেওয়ার আগে সেই সময়টা আপনি দিতে পারবেন কিনা, সেটাও ভেবে নিন।

সার্ভিস ট্যাক্স

আপনি যখন কাস্টমার, আদৌ কোনও ট্যাক্স দিতে হবে কিনা, সেটা গোড়াতেই জেনে নিলে ভাল। বিষয়টি একটু বুঝিয়ে বলা যাক। ধরুন, পুজোর আগে পাঁচ হাজার টাকার স্কিন কেয়ারের কোনও প্যাকেজ আপনি পছন্দ করেছেন। পরিষেবা নেওয়ার পর যে বিল পেলেন, তাতে দেখলেন আপনাকে দিতে হবে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা। অতিরিক্ত ৫০০ টাকা বিভিন্ন ট্যাক্স বাবদ কেটে নেবে পার্লার। যেটা আগে আপনাকে জানানো হয়নি। তাই প্যাকেজ পছন্দ করার সময়ই জেনে নিন, যে মূল্য ধার্য রয়েছে তা কি ট্যাক্সসমেত নাকি ট্য়াক্স ছাড়া?

shutterstock

ভরসা করবেন কাকে?

অনেক সময় পাড়ার পার্লারে আমরা শুধু থ্রেডিং করাই। ফেসিয়াল বা স্কিন ট্রিটমেন্টের জন্য আরও একটু স্পেশালাইজ কোনও পার্লারে যাই। ধরুন, পুজোর আগে আপনার পাড়ার পার্লার তাদের প্যাকেজ নেওয়ার জন্য আপনাকে অনুরোধ করল। আপনিও ভাবলেন, একবার করিয়েই দেখা যাক। আমাদের সাজেশন, এই এক্সপেরিমেন্টটা পুজোর আগে না করিয়ে অন্য় সময় করান। কারণ, যেখানে শুধু থ্রেডিং করান, সেখানে কেমন ফেসিয়াল করানো হবে, তার কোনও অভিজ্ঞতা আপনার নেই। যদি পরিষেবা পছন্দ না হয়, তা হলে সময় এবং অর্থ দু’টোই নষ্ট হবে। তার থেকে পুজোর আগে চেনা জায়গা থেকে পরিষেবা নেওয়াই ভাল।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!