রুটি নরম রাখার কায়দা ও রুটি সংক্রান্ত নানা সমস্যার সমাধান in Bengali | POPxo

রুটি সংক্রান্ত যাবতীয় সমস্যার সমাধান! ফুলো, তুলতুলে রুটি বানান, তা স্টোরও করুন কায়দা করে!

রুটি সংক্রান্ত যাবতীয় সমস্যার সমাধান! ফুলো, তুলতুলে রুটি বানান, তা স্টোরও করুন কায়দা করে!

যাঁরা এই শিরোনামটি পড়ে হাসছেন, তাঁদের উদ্দেশ্যে আমার ওপেন চ্যালেঞ্জ রইল, এক চান্সে নরম, তুলতুলে গোটাদশেক রুটি করে দেখান তো দিকি! রুটি (Chapati) ব্যাপারটা দেখতেও গোল, লাগায়ও গোল! রুটি গোল করে বেলা সমস্যার, ফুলো-ফুলো রুটি বানানো সমস্যা, সেই রুটি বেশিক্ষণ নরম (soft) রাখা সমস্যা... মোদ্দা কথা হল, পুরো ব্যাপারটাই বেশ গোলমেলে! ভাতটা ঠিকঠাক ম্য়ানেজ হয়ে যায়, কিন্তু রুটি ম্যানেজ করাটাই কঠিন! তাই আমরা নিয়ে এসেছি দ্য আল্টিমেট রুটি গাইড! রুটি সংক্রান্ত আপনার যাবতীয় প্রশ্নের উত্তর আছে এখানে...আছে নানা টিপসও (tricks), কী করে রুটি বেশিক্ষণ নরম রাখা যায়, ফুলো রুটি কী করে বানাতে হয়, ইত্যাদি বিষয়ে। পড়ে নিন, কথা দিচ্ছি সময় নষ্ট হবে না।  

 

১. নরম, তুলতুলে, ফুলো রুটি তৈরির কায়দা

Pixabay
Pixabay

চোখ গোলগোল না করে বরং কায়দাটা জেনে নিন!

  • রুটির আটা মাখতে ভুসিওয়ালা আটা নেবেন, অল্প গরম জল নেবেন, একটু নুন আর দু' চামচ সাদা তেল নেবেন। এই আটার গোলার কনসিসটেন্সিই হচ্ছে আসল কায়দা। গরম জল আর তেলটাই হচ্ছে ওই যাকে বলে সিক্রেট ইনগ্রেডিয়েন্ট! গরম জলের পরিবর্তে ঠান্ডা জল দিলেই গন্ডগোল। বিশেষত, আপনি যদি সকালে রুটি তৈরি করে লাঞ্চে খান এবং তখনও সেটি ফ্রেশ থাকুক, এটা চান, তা হলে ঈষদুষ্ণ জল (water) দিয়েই আটা মাখতে হবে। তেলও ঠিক এভাবেই রুটি নরম রাখতে সাহায্য করবে।
  • আটা মাখবেন মাঝারি ধরনের করে, বেশি নরম হবে না, আবার বেশি শক্তও হবে না। ক্যাতক্যাতে আটা কিন্তু এক্কেবারে নো নো! আটার বলটা যে পাত্রে মাখছেন, সেখান থেকে উঠে আসবে এবং তিনটি আঙুল দিয়ে সেই আটা ঠুসতে পারছেন, এমনটা হলে জানবেন, আটা ঠিকমতো মাখা হয়েছে।
  • আটা মেখে (dough) অন্তত মিনিটপনেরো রেস্ট করতে দেবেন, কোনও ঢাকনা দিয়ে পাত্রটা ঢেকে রেখে।
  • লেচি কাটবেন ছোট-ছোট, তা হলে পাতলা করে বেলতে পারবেন। যত পাতলা করে বেলবেন, রুটি ফুলতে তত সুবিধে হবে।
  • আগে তাওয়ায় একটা করে রুটির দু' পিঠ সেঁকুন, তারপর সরাসরি আঁচে ফুলতে দিন।

২. রুটি শক্ত হয়ে যায় কেন?

pixabay
pixabay

এটা নিয়ে রীতিমতো রিসার্চ করা যেতে পারে! তবে নামী শেফ এবং ফুড এক্সপার্টরা এর পিছনে কতগুলি যুক্তিসঙ্গত কারণও দেখিয়েছেন। যেমন,

  • ভারতীয়রা আটা মাখার সময় ১৫-২০% জল ব্যবহার করি। আটায় থাকে কার্বোহাইড্রেট, অ্যালবুমিন, ডায়েটারি ফাইবার এবং স্টার্চ। রুটি সেঁকার সময় জল ও আটার এই উপাদানগুলি একসঙ্গে মিশে একটি রাসায়নিক বিক্রিয়া শুরু হয়। এই বিক্রিয়ার ফলে তৈরি হয় ডেক্সট্রিন নামে এক ধরনের স্টার্চ আঠা, যা বেশিক্ষণ রুটিকে নরম থাকতে দেয় না। এই আঠা যতক্ষণ নরম থাকবে, ততক্ষণ ঠিক আছে। শুকিয়ে যেতে শুরু করলেই বিপদ, কারণ, তাতে রুটি শক্ত হতে শুরু করবে। তাই রুটির আটায় জলের পরিমাণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং সেই জল অল্প গরম হলে আরও ভাল। 
  • রুটি তৈরি করে রাখলে, তার ভিতরের জলটা আস্তে-আস্তে শুকিয়ে যেতে শুরু করে। ফলে দেখবেন, রুটির উপরের অংশ তাড়াতাড়ি শক্ত হয় এবং নীচের অংশ পরে!
  • এই কারণেই রুটি আবার গরম করলে তা মোটেও নরম হয়ে যায় না। কারণ, রুটির ভিতরের জলটা তখন বাষ্প হয়ে উবে যায়!

৩. কী করে রুটি বেশিক্ষণ নরম রাখা যায়?

Instagram
Instagram

এখানে আমরা কতগুলো টোটকা বলে দিচ্ছি, তা হলে সকালে তৈরি রুটি আপনি স্বচ্ছন্দে বিকেলে কিংবা সন্ধেবেলাতেও আরামসে খেতে পারবেন।

  • রুটি সেঁকা হয়ে গেলে, গরম তাওয়ায় অল্প জল দিয়ে রুটিগুলি সেই জলে একবার বুলিয়ে নিয়েই তুলে নিন। তারপর এয়ারটাইট পাত্রে রেখে দিন।
  • হটপটে কিংবা লাঞ্চ বক্সে একটা জলে ভেজা মসলিন বিছিয়ে রাখুন। রুটি সেঁকা হয়ে গেলে তার মধ্যে রেখে, ভাল করে ওই কাপড়টি দিয়ে মুড়ে নিন।
  • রুটির উপরের অংশে অল্প করে তেল অথবা মাখন লাগিয়ে দিন।
  • রুটি তৈরির বেশ কয়েক ঘণ্টা পরে যদি সেটি খেতে হয়, তা হলে জলের পরিবর্তে গরম দুধ দিয়ে আটা মাখুন।
  • এক-একটা রুটি সেঁকা হয়ে গেলে আলাদা-আলাদা অ্যালুমিনিয়ম ফয়েলে মুড়ে রাখুন গরম থাকা অবস্থাতেই। এতে রুটি জলীয় বাষ্পে ভিজে নরম থাকবে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...