পুজোর রেসিপি: পুজোর ভোজে রান্না করুন এই প্রায় ভুলে যাওয়া বাঙালি নিরামিষ পদগুলি

পুজোর রেসিপি: পুজোর ভোজে রান্না করুন এই প্রায় ভুলে যাওয়া বাঙালি নিরামিষ পদগুলি

পুজো মানে তো শুধু দুর্গা মায়ের পুজো নয়, এ হল বাঙালিদের কাছে পেটপুজোরও সেরা সময়! তাই তো চুটিয়ে ঠাকুর দেখার পাশাপাশি কেউ কেউ যেখানে উত্তর-দক্ষিণের সেরা রেস্তরাঁগুলিতে গিয়ে লাইন লাগায়, সেখানে কোন কোনও খাদ্যরসিক বাড়িতেই পাত পেড়ে খাওয়ার তোড়জোর শুরু করে দেন। ভিড়ভাট্টা থেকে দূরে, বাড়ির নিরিবিলিতে বসে যাঁরা কবজি ঢুবিয়ে নানা স্বাদের রকমারি পদ চেখে দেখতে আগ্রহী, তাঁদের জন্য এই প্রতিবেদনে রইল তিনটি জনপ্রিয় বাঙালি নিরামিষ পদের রেসিপি। পুজোর মধ্যে এই পদগুলি (Dishes) পরিবেশন করলে খাওয়ার টেবিলে যে ঝড় উঠবেই উঠবে, সেকথা হলফ করে বলতে পারি। তাই আর অপেক্ষা না করে চলুন ঢুঁ মারা যাক POPxo বাংলার রান্নাঘরে।

সেরা তিনটি নিরামিষ পদের রেসিপি

নারকেল দিয়ে মসুর ডাল

Instagram

উপকরণ
১. মসুর ডাল- ১০০ গ্রাম।
২. গ্রেটেড নারকেল- হাফ কাপ (৩ চামচ)।
৩. কাঁচা লঙ্কা- ২ টো।
৪. শুকনো লঙ্কা- ২ টো।
৫. তেজ পাতা- ২ টো।
৬. গোটা জিরে- হাফ চামচ।
৭. নুন- স্বাদ অনুসারে
৮. চিনি- স্বাদ অনুসারে।
৯. হলুদ গুঁড়ো- ১/৪ চামচ।
১০. সরষের তেল- এক চামচ

প্রণালী
১. বড় মাপের একটা কড়াই নিয়ে তাতে এক কাপ জল ঢেলে একটু গরম করে নিন। মিনিটদুয়েক পরে গরম জলে খান তিনেক কাঁচা লঙ্কা ফেলে তাতে ডালটা মিশিয়ে দিন। এবার কড়াইটা চাপা দিয়ে মাঝারি আঁচে ডালটা সেদ্ধ করে নিন। তবে একটা বিষয় মাথায় রাখতে হবে, তা হল, ডালটা একেবারে গলিয়ে ফেললে কিন্তু চলবে না। সিদ্ধ হওয়ার পরে একটু যেন দানা দানা থাকে, সেদিকে নজর রাখতে হবে।

২. ডালটা সেদ্ধ হয়ে গেলে আঁচ বন্ধ করে দিন। এবার একটা ফ্রায়িং প্যান নিয়ে তাতে পরিমাণ মতো তেজ পাতা, শুকনো লঙ্কা এবং গোটা জিরে ফেলে সরষের তেল ভেজে নিন। যখন দেখবেন সুন্দর একটা গন্ধ বেরতে শুরু করেছে, তখন পরিমাণ মতো হলুদ গুঁড়ো নিশিয়ে মিনিটদুয়েক নাড়ানোর পরে ফোড়নটা ডালে মিশিয়ে নাড়াতে থাকুন। এই সময় আঁচ যেন বেশি না থাকে। মিনিটতিনেক নাড়ানোর পরে স্বাদ অনুসারে নুন, চিনি এবং গ্রেটেড নারকেল মিশিয়ে কিছুক্ষণ ফোটাতে হবে। তবে বেশিক্ষণ ফোটাবেন না যেন! তাতে স্বাদ নষ্ট হয়ে যাবে। কম-বেশি মিনিট দুয়েক ফুটিয়ে নিয়ে আঁচটা বন্ধ করে দিন। এবার পরিবেশনের পালা। তবে পরিবেশনের আগে ডালের উপর অল্প করে গ্রেটেড নারকেল ছড়িয়ে দিতে ভুলবেন না যেন!

৩. মিনিটকুড়ি বাদে গরম গরম ভাতের সঙ্গে নারকেল দিয়ে তৈরি মসুর ডাল, সঙ্গে আলু ভাজা, নয়তো বেগুন বা পটল ভাজা পরিবেশন করুন। দেখবেন, পরিবারের সকলে চেটপুটে খাবে!

আরও পড়ুন: পনির স্টাফড মোগলাই পরোটা রেসিপি!

পোস্ত দিয়ে লাউ শাকের ঘন্ট

Instagram

উপকরণ
১. আলু - ১ টা। ডুমো ডুমো করে কেটে নিতে হবে।
২. লাউ শাক- ৫০০ গ্রাম। ছোট ছোট টুকরো করে নিন।
৩. চিনি- স্বাদ অনুসারে।
৪. নুন- স্বাদ অনুসারে।
৫. সরষের তেল- ৩ চামচ।
৬. কালো জিরে- হাফ চামচ।
৭. পোস্ত- ৩ চামচ।
৮. হলুদ গুঁড়ো- ১ চামচ।

প্রাণালী
১. মাঝারি মাপের একটা কড়াই নিয়ে তা একটু গরম করে তাতে পরিমাণ মতো সরষের তেল ঢেলে নিন। যখন দেখবেন তেলটা একটু গরম হতে শুরু করেছে, তখন তাতে পরিমাণ মতো কালো জিরে মিশিয়ে নাড়াতে থাকুন। কালো জিরের গন্ধ বেরতে শুরু করলে আলুর টুকরোগুলো যোগ করে মিনিটতিনেক ভাল করে নাড়ান।

২. আলুর টুকরোগুলো হলকা খয়েরি রং নিলে তাতে পরিমাণ মতো হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে লাউ শাক মেশান। এবার স্বাদ অনুসারে নুন মিশিয়ে মিনিট খানেক নাড়িয়ে কড়াইটা চাপা দিয়ে দিন।

৩. মিনিটদুয়েক বাদে শাক থেকে যখন জল ছাড়তে শুরু করবে, তখন খান দুয়েক গোটা কাঁচা লঙ্কা দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়িয়ে কড়াইটা আবার চাপ দিয়ে দিন। মিনিটদুয়েক বাদে চাপাটা সড়িয়ে নিয়ে পোস্ত বাটাটা মিশিয়ে মিনিটপাঁচেক ভাল করে নাড়াতে থাকুন, যাতে পোস্ত বাটাটা শাকের সঙ্গে ভাল করে মিশে যাওয়ার সুযোগ পায়। এবার স্বাদ অনুসারে চিনি মিশিয়ে ভাল করে নাড়াতে থাকুন। এই সময় খেয়াল করে আঁচটা একেবারে কমিয়ে দেবেন, না হলে কিন্তু শাকটা কড়াইতে লেগে যাবে।

৪. কয়েক মিনিট নাড়ানোর পরে কড়াইটা চাপ দিয়ে দিন। এই সময় শাক থেকে কিছুটা জল ছাড়বে। তখন নাড়াতে ভুলবেন না যেন! মিনিটখানেকের মধ্যেই লাউ শাকের ঘন্ট তৈরি হয়ে যাবে। এবার গরম গরম ভাত আর মুগ ডালের সঙ্গে পোস্ত দিয়ে তৈরি লাউ শাকের ঘন্ট পরিবেশন করুন।

ছানার কোফতা কালিয়া

Instagram

উপকরণ
কোফতা তৈরির জন্য প্রয়োজন পড়বে ২০০ গ্রাম ছানা, ২ চামচ ময়দা, ১ টা কাঁচা লঙ্কা, ১ চামচ আদার পেস্ট, ২ চামচ ঘি, স্বাদ অনুসারে নুন এবং ১ চামচ চিনির। ঝোল তৈরি করতে হাতের কাছে রাখতে হবে ১ চামচ সাদা তেল, ২ চামচ ঘি, স্বাদ অনুসারে নুন, ১ চামচ চিনি, ২ টো ছোট এলাচ, ৩ টে লবঙ্গ, ১ টা দারচিনি স্টিক, হাফ চামচ গোটা জিরে, তেজ পাতা ২ টো, ২ টো কাঁচা লঙ্কা, ২ চামচ টক দই, ১ টা বড় মাপের টোম্যাটো থেকে তৈরি পিউরি, ১৫ গ্রাম কাজু (কাজুগুলো মিনিটদশেক জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে), ১০ গ্রাম চারমগজ এবং ১ চামচ শাহি গরম মশলা।

প্রণালী
১. একটা বাটিতে ২০০ গ্রাম ছানা নিয়ে তাতে পরিমাণ মতো জিরে বাটা, আদা বাটা, কাঁচা লঙ্কা, নুন, চিনি, ঘি এবং ময়দা মিশিয়ে ভাল করে চটকে নিয়ে গোল গোল বল তৈরি করে হাতে একটু চেপে নিয়ে চ্যাপ্টা আকার দিন। এইভাবে বাকি ছানাটা দিয়েও বল তৈরি করে ফেলুন।

২. ছানার বলগুলি তৈরি হয়ে যাওয়ার পরে মিক্সিতে পরিমাণ মতো চারমগজ, জলে ভেজানো কাজু এবং চামচ দুয়েক জল নিয়ে ভাল করে মিক্স করে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার সেই পেস্টের সঙ্গে পরিমাণ মতো টক দই মিশিয়ে আরেকবার মিক্সিতে ভাল করে মিক্স করে নিয়ে সেই মিশ্রণটা বাটিতে ঢেলে রেখে দিন।

২. মাঝারি আঁচে কড়াইতে পরিমাণ মতো তেল নিয়ে তা একটু গরম করে নিয়ে তাতে এক চামচ ঘি মিশিয়ে এক এক করে ছানার বলগুলো দিয়ে দিন। ছানার বলগুলির দু'পিঠ হালকা লাল করে ভেজে নেওয়ার পরে কোফতাগুলি তুলে নিয়ে সেই তেলেই ছোট এলাচ, তেজ পাতা, দারচিনি, লবঙ্গ এবং গোটা জিরে ফেলে দিয়ে মিনিট খানেক নাড়িয়ে তাতে চামচ দুয়েক আদা বাটা মিশিয়ে ভাল করে নাড়াতে থাকুন। মিনিটতিনেক নাড়ানোর পরে পরিমাণ মতো টোম্যাটো পিউরি মিশিয়ে ততক্ষণ নাড়ান, যতক্ষণ না তেল ছাড়ছে। এমনটা হওয়া মাত্র এক চামচ করে কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো এবং অল্প করে কাঁচা লঙ্কা বাটা মিশিয়ে নাড়িয়ে যেতে হবে, যাতে মশলার কাঁচা গন্ধটা চলে যায়।

৩. মিনিটপাঁচেক নাড়ানোর পরে চারমগজ, কাজু এবং দই দিয়ে তৈরি মিশ্রণটা মিশিয়ে মিনিট খানেক নাড়িয়ে স্বাদ অনুসারে চিনি মিশিয়ে নাড়াতে থাকুন। যখন দেখবেন তেল ছাড়তে শুরু করেছে, তখন স্বাদ অনুসারে নুন এবং অল্প করে জল মেশান। এরপরে এক এক করে কোফতাগুলি যোগ করে ভাল করে মেশাতে হবে।

৪. মিনিটদুয়েক ফোটানোর পরে গরম মশলা এবং ঘি ছড়িয়ে মিনিট খানেক ভাল করে নাড়িয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে ছানার কোফতা কালিয়া। মিনিটপনেরো বাদে রুটি, লুচি, পরোটা বা গরম ভাতের সঙ্গে এই পদটি পরিবেশন করলে খেতে মন্দ লাগবে না।

আরও পড়ুন: এই তো সময়! ট্রাই করেই ফেলুন সজনে ফুলের (moringa flower) রকমারি রেসিপি (recipe)

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...