এই লক্ষণগুলি দেখলেই বুঝবেন আপনার স্বামী পরকীয়া সম্পর্কে হাবুডুবু খাচ্ছেন!

এই লক্ষণগুলি দেখলেই বুঝবেন আপনার স্বামী পরকীয়া সম্পর্কে হাবুডুবু খাচ্ছেন!

অসুখি বৈবাহিক সম্পর্কের বোঝা বইতে না পেরে অনেকেই যেমন পরকীয়া সম্পর্কের জালে জড়িয়ে পরেন, তেমনই এমনও অনেকে আছেন যাঁদের একটু ছুক ছুকে বাই আছে। যেই না কোনও সুন্দরী মহিলা দেখলো, অমনি পিছলে পড়তে মন চায়। এমন মানুষরাই কিন্তু বেশি করে পরকীয় ( Affair) সম্পর্কে জড়িয়ে পরেন। তবে কারণ যাই হোক না কেন এক্সট্রাম্যারিটাল সম্পর্কে হাবুডুবু খাওয়া তো কোনও কাজের কথা নয়! তাই আজকের দিনে নিজের ঘর বাঁচাতে হলে বরকে একটু চোখে চোখে রাখাটাই বুদ্ধিমানের কাজ। আর যদি এই লক্ষণগুলি দেখেন, তা হলে মনে কোনও সন্দেহ রাখবেন না যে আপনার বর বিবাহ-বহির্ভূত প্রেমের ফাঁদে পড়েছেন! তখন কী করণীয়? মাথা গরম করে ঝগড়াঝাঁটি করলে ঝামেলা আরও বাড়বে। তখন কিন্তু বরকে নিজের কাছে ধরে রাখাটা আরও শক্ত হবে। তাই মাথা ঠান্ডা করে প্রথমে একশো শতাংশ নিশ্চিত হন। তারপর না হয় সুযোগ-সুবিধে মতো পার্টনারের সঙ্গে কথা বলুন। তাঁকে বোঝান যে, চুরি বিদ্যা ততদিনই মহাবিদ্যা, যত দিন না ধরা পড়ে! তাই সময় থাকতে থাকতে সামলে না গেলে, আপনিও কিছু একটা করে ফেলতে পারেন। এমন ডোজে কাজ না হলে আইন-আদালত তো রয়েছেই। আচ্ছা, পরকীয়ার লক্ষণগুলি কী-কী জানা আছে কি?

১. দিনের পর দিন আপনাকে এড়িয়ে চলবেন

কাজের ব্যস্ততা আগের মতোই রয়েছে। কিন্তু নানা অজুহাতে আপনার বর কি আপনাকে এড়িয়ে চলছেন? সারাক্ষণ ফোনে ফুসফুস, মেসেজ এলেই ঘর থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন নাকি? তা হলে একটু সাবধান হওয়ার সময় এসেছে বই কী! আর যদি দেখেন বাথরুমে ফোন নিয়ে গিয়ে কারও সঙ্গে কথা বলছেন, তা হলে মনে আর কোনও সন্দেহ রাখবেন যে আপনার পায়রা অন্য বাগানে গিয়ে দানা খাচ্ছে। মোট কথা দিনের পর দিন আপনাকে উপেক্ষা করে যদি অন্য কিছুর প্রতি তাঁর ঝোঁক বাড়তে থাকে, তা হলে সময় থাকতে থাকতেই রাশ টানা উচিত।

২. আরও সাবধানী হয়ে উঠবেন

একটু খেয়াল করে দেখুন তো আজকাল বরের ফোন ছুঁলেই তিনি চেঁচামেচি জুড়ে দিচ্ছেন কিনা! কোথায়-কখন ক্রেডিট কার্ড ঘষছেন, সেসব কথাও কি লুকিয়ে রাখছেন? এমনকী, পার্টনার কোথায় যাচ্ছেন, কী করছেন, এই সব সম্পর্কেও কি আপনি অন্ধকারে? তা হলে এই বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে আপনার প্রতি তাঁর আগ্রহ কমেছে। আর একথা তো সকলেরই জানা যে এক নারীর জায়গা আর এক নারীই পূরণ করতে পারেন। তাই একটু খোঁজ-খবর নিন দেখি! জানার চেষ্টা করুন তো বন্ধুদের নাম করে তিনি যে হিল্লি-দিল্লি করে বেরাচ্ছেন, সেগুলি কতটা সত্যি ঘটনা। প্রয়োজনে হাতেনাতে ধরার চেষ্টা করুন। জানবেন, কাউকে ঠকানোটা বড় পাপ। আর এমন পাপ কাজকে প্রশ্রয় দেওয়াটা বোকামি!

৩. নিজের প্রতি আগ্রহ বাড়বে

প্রেমে পড়লেই মানুষের হাবভাব একটু বদলে যায়। বিশেষ করে সাজগোজের প্রতি একটু আগ্রহ বাড়ে বই কী! তাই ভবগুরে স্বামী যদি হঠাৎ করে নিজের বেশভূষার খেয়াল রাখতে শুরু করেন, একটু বেশিই সাজুগুজু করে অফিস যান, সঙ্গে আবার পারফিউমের বোতলটাও রাখেন, তাহলে সময় থাকতে থাকতেই বরের সঙ্গে কথা বলুন। কারণ, এমন সব লক্ষণ কিন্তু ঘর ভাঙার অশনি সংকেত।

আরও পড়ুন: টলমল সম্পর্ক জোড়া লাগানোর টিপস! ভাঙতে তো সকলেই পারে, বরং জুড়ে দেখান!

৪. কথায়-কথায় আপনার সমালোচনা করবেন

আজকাল কারণে-অকারণে কি পার্টনার আপনার খুব সমালোচনা করছেন? এমনকী, বরের ফ্রেন্ড লিস্ট থেকেও বাদ পড়েছেন? এই সব দেখে ফেসবুকের পাসওয়ার্ড চাইলে তিনি কি হাসি মুখে বিষয়টা এড়িয়ে যাচ্ছেন? এদিকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফোন ব্যস্ত। কল লিস্টে অচেনা নম্বরের ছড়াছড়ি! এই সব দেখেও যদি চুপ থাকেন, তাহলে আর কিছু বলার নেই। কারণ, এই সব ঘটনা মোটেই কাকতালীয় নয়। বরং আসন্ন সুনামির ইঙ্গিত মাত্র!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...