রান্নায় ব্যবহৃত নানা সবজির খোসা ফেলে না দিয়ে তৈরি করে ফেলুন সুস্বাদু ভর্তা

রান্নায় ব্যবহৃত নানা সবজির খোসা ফেলে না দিয়ে তৈরি করে ফেলুন সুস্বাদু ভর্তা

রবীন্দ্রনাথ বলে ছিলেন ‘জীবনের ধন কিছুই যায় না ফেলা!” তা রবি ঠাকুর যে ভোজনরসিক ছিলেন সেটা আমরা সবাই জানি। ঠাকুরবাড়িতে শুধু তাঁর জন্যই হরেক রকম পদ রান্না হত। তবে একটা কথা কবি জানেন না। তাঁর এই বাণী দেওয়ার বহু আগে থেকেই বাঙালি গৃহিণীরা তাঁদের হেঁশেলে কিচ্ছুটি ফেলেন না! এমনকী ফেলে দেওয়ার জিনিসগুলো দিয়েও তাঁরা এমন সুন্দর সব পদ রেঁধে ফেলেন যে তারিফ না করে পারা যায় না। এই যেমন ধরুন, অ্যাদ্দিন আপনি রান্নাঘরে সবজি কেটে তার খোসাগুলো সব আস্তাকুঁড়ে ফেলে দিতেন। এখন থেকে বা বলা চলে আজ থেকে সেটা আর করবেন না। কারণ, সবজির (vegetable) খোসা (waste) দিয়ে তৈরি করা যায় দারুণ সব ভর্তা (bharta)! এখানে রইল সেরকমই কয়েকটি রেসিপি (recipes)। 

১) কুমড়োর খোসার ভর্তা

pixabay

উপকরণ: কুমড়োর খোসা, কাঁচা মরিচ ৫ টা, নুন, পেয়াজ-রসুন-ধনেপাতা কুচি এক টেবিল চামচ করে, কালো জিরে এক চা চামচ আর এক টেবিল চামচ সর্ষের তেল। 

পদ্ধতি: কুমড়োর খোসা আগে সেদ্ধ করে নিন। তারপর কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ, রসুন দিয়ে বেটে নিন। কড়াইতে তেল দিয়ে প্রথমে কালো জিরে ফোড়ন দিন। একটু নেড়ে নিয়ে তার মধ্যে এই কুমড়োর খোসা বাটা দিয়ে দিন। তারপর তেল শুষে নেওয়া পর্যন্ত বা মাখা মাখা হওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন। চাইলে উপরে দু একটা চিংড়ি মাছ ছড়িয়ে দিতে পারেন। ধনেপাতা ছড়িয়ে নামিয়ে নিন। 

নিরামিষ শাক ভাজা ও চচ্চড়ির কয়েকটি দারুণ রেসিপি

২) কাঁচা কলার খোসার ভর্তা

pixabay

উপকরণ: কাঁচা কলার খোসা, মরিচ দানা তিন চারটে, পেঁয়াজ কুচি এক টেবিল চামচ ও রসুন কুচি ঠিক তার দ্বিগুণ লাগবে, অল্প একটু গুঁড়ো মরিচ, হলুদ গুঁড়ো সামান্য, ধনেপাতা ও সর্ষের তেল। 

পদ্ধতি: কাঁচা কলার খোসা প্রথমে নুন আর হলুদ জলে সেদ্ধ করে নিন। এবার শুকনো খোলায় একটু মরিচের দানা আর রসুনও হাল্কা ভেজে নিন। তারপর পেঁয়াজ ছাড়া বাকি সব উপাদান একসঙ্গে বেটে নিন। পেঁয়াজ আলাদা করে থেঁতো করুন। এবার কড়াইতে তেল দিয়ে ঢিমে আঁচে ওই বাটা মণ্ড নাড়তে থাকুন আর উপরে পেঁয়াজ কুচি ছড়িয়ে দিন। তেল টেনে নিলেই আঁচ বন্ধ করে উপরে ধনেপাতা ছড়িয়ে দিন। 

৩) লাউয়ের খোসার ভর্তা

pixabay

উপকরণ: লাউয়ের খোসা, কুঁচো চিংড়ি, শুকনো মরিচ, পেঁয়াজ কুচি ও রসুন কুচি এক টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ এক টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়ো,  ধনেপাতা ও সর্ষের তেল 

পদ্ধতি: অল্প জলে লাউয়ের খোসা সেদ্ধ করে নিন। তারপর সেটা ব্লেন্ড করে নিন বা শিলে বেটে নিন। কড়াইতে সর্ষের তেল দিয়ে আগে রসুন কুচি ভাজুন। তারপর চিংড়ি মাছ ভাজুন। এবার এর মধ্যে লাউয়ের খোসা বাটা ও অন্যান্য উপাদান দিয়ে নাড়তে থাকুন। তেল টেনে নিলে আঁচ বন্ধ করে দিন। উপরে ধনেপাতা ছড়িয়ে দিন।

এগুলোও আপনি পড়তে পারেন

ত্বকের পরিচর্যায় লাউয়ের রস খাওয়ার উপকারিতা

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...