দুর্গা পুজোর দিনে দেদার ঠাকুর দেখার ধকল কাটাতে করুন এই যোগাসনগুলিin bengali | POPxo

পুজোর টিপস: দুর্গা পুজোর দিনে দেদার ঠাকুর দেখার ধকল কাটাতে করুন এই যোগাসনগুলি

পুজোর টিপস: দুর্গা পুজোর দিনে দেদার ঠাকুর দেখার ধকল কাটাতে করুন এই যোগাসনগুলি

দুর্গা পুজোতে (Durga Puja) খুব মজা করে না হয় ঠাকুর দেখলেন, কিন্তু সেই তো হেঁটে হেঁটেই দেখতে হবে; দ্বিতীয়া থেকেও যদি শুরু করেন, নবমী-দশমীতে এসে পায়ের কী অবস্থা হবে বুঝতে পারছেন? না না ভুল বুঝবেন না, আমি একটিবারের জন্যও বলছি না যে ঠাকুর দেখতে যাবেন না, বা গেলেও গাড়ি নিয়েই যান, হেঁটে হেঁটে এ প্যান্ডেল থেকে সে প্যান্ডেল ঘুরবেন না – শুধু বলছি আপনার বাহন মানে আপনার শ্রীচরণদুখানিকে একটু যত্নও করুন, কারণ তাকেই যে বেশিরভাগ ধকলটা (stress) সইতে হবে! দুর্গা পুজোতে দেদার ঠাকুর দেখেও ধকল কাটানোর জন্য করতে পারেন কিছু যোগাসন (yoga)

অধোমুখ শবাসন

দুর্গা পুজোতে হেঁটে হেঁটে ঠাকুর দেখলে যে শুধু পায়ের পাতায় ব্যথা হয় তা তো নয়, মোটামুটি সারা শরীরই ক্লান্ত থাকে। এই যোগাসনটি করলে কিন্তু সারা শরীর স্ট্রেচ করা হয়ে যায় এবং মাংসপেশিও শিথিল হয়। সবার প্রথমে ম্যাটের উপর উপুর হয়ে শুয়ে পড়ুন। দু’হাত রাখুন দুপাশে এবং দু’পায়ের পাতা যেন এক জায়গায় থাকে। এবার হাত সামনের দিকে নিয়ে আসুন এবং হাতের উপর ভর দিয়ে কোমর তুলুন। এসময়ে হাটুর উপরেও ভর দেবেন এবং পায়ের পাতার উপর ভর দিয়ে শরীরটাকে একটা উল্টো ইউ-এর মতো করে রাখুন। পাঁচ পর্যন্ত গুণে আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসুন। এটি হল এক সেট। এইভাবে চার-পাঁচটি সেট করতে পারেন।   

বৃক্ষাসন

যারা সবে যোগব্যায়াম করতে আরম্ভ করেছেন তাঁদের জন্যই এই আসন। এই আসন করার সময়ে যেহেতু সারা শরীরেই স্ট্রেচিং হয় ফলে শরীরের শিথিলতা দূর হয় এবং সমস্ত ধকল দূর হয়। স্নায়ুতন্ত্র শান্ত করতে এবং শরীরের স্ট্যামিনা বাড়াতে এই আসন অত্যন্ত কার্যকরী। দুহাত দুপাশে রেখে সোজা হয়ে দাঁড়ান। এবারে ধীরে ধীরে আপনার বাঁ পা ভাঁজ করে ডান পায়ের হাঁটুর পেছনে নিয়ে আসুন, সেই সাথেই হাত দুটোকে মাথার ওপরে তুলে দিন এমনভাবে যেন আপনি কাউকে নমস্কার করছেন। এইভাবে ২০ পর্যন্ত গুনে ধীরে ধীরে আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসুন। ঠিক এভাবেই ডান পায়েও এই আসন করুন। মনে রাখবেন যখন হাত ওপরে তুলছেন যেন শরীরের ওপরের অংশে স্ট্রেচিং হয়। এইভাবে চার-পাঁচটি সেট করতে পারেন।   

ধকল কাটাতে নিন ফুট মাসাজ

দুর্গা পুজোতে সারাদিন ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখার পর বাড়ি ফিরে যতই ক্লান্ত লাগুক না কেন, যদি একটু ফুট মাসাজ করতে পারেন তাহলে কিন্তু অনেক আরাম পাবেন। নিজেই করতে পারেন এই ফুট মাসাজটি, ইচ্ছে করলে কোনও এসেনশিয়াল অয়েলও (ক্যামোমাইল বা ল্যাভেন্ডার) ব্যবহার করতে পারেন।

প্রথমেই বেশ আরাম করে বসুন। এবারে পা দুটোকে সামনের দিকে সোজা করে ছড়িয়ে দিন। হাতের তালুতে কয়েক ফোঁটা করে এসেনশিয়াল অয়েল নিয়ে ভাল করে ঘষে পায়ের পাতার পেছনদিকে অর্থাৎ পায়ের নীচের দিকে বেশ ভাল করে মালিশ করুন।

অন্য আরেকটি সহজ পদ্ধতিতেও কিন্তু ফুট মাসাজ করতে পারেন নিজেই। বাবু হয়ে বসে একটি পায়ের পাতার নীচের দিকে দুহাতের বুড়ো আঙ্গুল দিয়ে চাপতে থাকুন। এবারে অন্য পায়েও একইভাবে মাসাজ করুন। প্রেশার পয়েন্টগুলোতে একটু বেশ চাপ দিন। দেখবেন মিনিট পাঁচেকের মধ্যেই দুর্গা পুজোয় হেঁটে হেঁটে ঠাকুর দেখার ক্লান্তি উধাও!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজিহিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...