Vaginal health: শরীরের এই স্পর্শকাতর অঙ্গটি সুস্থ রাখতে চাইলে সাতটি অভ্যেস পাল্টে ফেলুন

Vaginal health: শরীরের এই স্পর্শকাতর অঙ্গটি সুস্থ রাখতে চাইলে সাতটি অভ্যেস পাল্টে ফেলুন

ভ্যাজাইনা। যোনিদেশ। ঠিক করে বলুন তো, নারী শরীরের এই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গটি নিয়ে আমরা ক'জনই বা চিন্তাভাবনা করি? আমাদের অনেকের কাছেই এটি গোপনাঙ্গ। এটি নিয়ে কথা বলতে বা আলোচনা করতে নেই। করলেও নিছকই ফিসফিস করে। আর ছোটবেলা থেকে বেশিরভাগ বাঙালি মেয়ে এটা শিখেই বড় হয় বলে, ভ্যাজাইনাল হেলথ (Vaginal health), মানে সোজা বাংলায় বলতে গেলে শরীরের এই অঙ্গটিরও যে দেখভালের প্রয়োজন আছে, ঠিকমতো যত্ন না নিলে এটিও যে বেগড়বাঁই করতে পারে এবং তার ফল হতে পারে মারাত্মক, সেই সম্বন্ধে আমাদের অনেকেরই হুঁশ নেই! তাই নিজেদের অজান্তেই হয়তো আমরা এমন কিছু করে ফেলি যাতে ক্ষতি হয় ভ্যাজাইনার (vagina)। এই প্রতিবেদনে আমরা এমন কিছু অভ্যেসের কথা বলব, যেগুলি তলায়-তলায় যোনিদেশের স্বাস্থ্যহানি ঘটাচ্ছে। দেখুন তো, এরকম কোনও কাজ আপনারাও করেন কিনা। উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, তা হলে আজই তা বন্ধ করুন।

আরও পড়ুনঃ আন্ডারআর্মস পরিষ্কার রাখার সেরা উপায়

১. ঘেমো প্যান্টি বেশিক্ষণ পরে থাকা

ঠিক করে বলুন তো, আপনি দিনে ক'বার প্যান্টি বদলান? স্নানের পরে একবার আর বিকেলে অথবা রাতে গা ধুয়ে কিংবা বাড়ি ফিরে পরিষ্কার হয়ে একবার, তাই তো? কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আপনি সামান্যতম ঘামলেও প্যান্টি বদলে ফেলুন। কারণ, আমাদের শরীরের বাকি অংশের চেয়ে যোনিদেশে ঘাম অনেক বেশি হয়। টাইট প্যান্টি পরে থাকার কারণে আমরা তা বুঝতে পারি না। তাই একটু ঘাম হলেই প্যান্টি পাল্টে ফেলবেন। তাতে সাবান কিংবা প্যান্টি একটু বেশি লাগবে বটে, কিন্তু আপনি অসুখে পড়বেন না!

২. খুব টাইট প্যান্টি পরা কিংবা ভুলভাল প্যান্টি পরা

Shutterstock

ভুলক্রমেও এই দুটোর মধ্যে একটাও করবেন না যেন। প্যান্টি সব সময় একটু ঢিলেঢালা পরবেন। তা বলে লগবগে পরতে বলা হচ্ছে না। কিন্তু এমন প্যান্টি পরবেন না, যা পরে সারাদিন পরে বাড়িতে ফিরে দেখলেন ইলাস্টিকের দাগ হয়ে গিয়েছে। আর নিজের নিতম্বের শেপ অনুযায়ী প্যান্টি পরবেন। আপনার হিপ পোর্শন ভারী, আপনার পরা উচিত হিপস্টার, কিন্তু আপনি বিজ্ঞাপন দেখে প্ররোচিত হয়ে কিনে ফেললেন একটি বিকিনি স্টাইলের প্যান্টি, একদম নয়। এতে আপনার যৌনাঙ্গের দম বন্ধ হয়ে আসবে আর বলা বাহুল্য, তাতে আখেরে আপনারই ক্ষতি।

৩. দিনে কিছুক্ষণ প্যান্টি না পরে থাকুন

ওমা, হেসে কুটোপাটি হচ্ছেন যে? আচ্ছা, রাতে শোওয়ার সময় কি আপনি ব্রা পরে শুতে যান? তা হলে প্যান্টিই বা পরে শুতে যান কেন? যাঁদের বেশি ভ্যাজাইনাল ডিসচার্জের সমস্যা আছে, তাঁদের কথা আলাদা। কিন্তু তা না হলে অন্তত কিছুক্ষণ দিনে প্যান্টি না পরে থাকুন। আসলে শরীরের এই অংশটি এতটাই চাপাচুপি দিয়ে রাখি আমরা যে, ভেন্টিলেশনের কোনও সুযোগই থাকে না। কিছুক্ষণ খোলা থাকলে, এই অঙ্গটিও একটু শ্বাস নেওয়ার সুযোগ পাবে, এই আর কী।

৪. জোর করে জল দিয়ে ধোওয়া

Shutterstock

এই অভ্যেসটি (habit) খুবই খারাপ। আমরা ভাবি, বেশি করে জল দিয়ে ধুলে বোধ হয় আমরা ভ্যাজাইনা বেশি পরিষ্কার রাখতে পারব! কিন্তু আসল হিসেবটাই এর ফলে উল্টে যায়। যোনিদেশের pH লেভেল ঠিক থাকাটা অত্যন্ত জরুরি। বেশি জল দিয়ে পরিষ্কারের ঠেলায় আমরা তার বারোটা বাজিয়ে ছাড়ি। তা ছাড়া যোনিপথ দিয়ে যে সাদা পদার্থ বেরোয়, সেটিই আসলে যোনিদেশের ভিতরে কোনও জীবাণু কিংবা ময়লা থাকলে তা বের করে দেয়। ফলে বাড়তি যত্ন নিতে গিয়ে নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না প্লিজ।

৫. শারীরিক মিলনের পরে ভ্যাজাইনা পরিষ্কার না করা

আমরা ভাবি, পুরুষ সঙ্গীটি তো কন্ডোম পরেইছিল। তা হলে আর আমার গোপন অঙ্গটি জোর করে পরিষ্কার করার কী দরকার আছে। আছে বই কী! কন্ডোমের গায়েও তো সিন্থেটিক লুব্রিক্যান্ট ছিল। সেটি তো আপনার ভ্যাজাইনাতেও লেগেছে। তা হলে পরিষ্কার করবেন না?

৬. বেশিক্ষণ ধরে একই স্যানিটারি প্যাড পরে থাকা

shutterstock

পিরিয়ডের শুরুর দিনগুলিতে ফ্লো বেশি থাকলে আলাদা কথা, কিন্তু যত তা শেষের দিকে এগোয়, আমাদের স্যানিটারি ন্যাপকিন বেশিক্ষণ পরে থাকাটাও ততটাই বাড়ে। এই সময়টা আমরা ভারী মিতব্যয়ী হয়ে পড়ি এবং ভাবি যে, শুধু-শুধু আবার একটা প্যাড নষ্ট করব? এদিকে ছ' ঘণ্টার বেশি একটি প্যাড পরে থাকা যে স্বাস্থ্যের পক্ষে একেবারেই ভাল না, সেটা আমরা মোটেও মনে রাখি না। দয়া করে এই কাজটি করবেন না। আজকের দু' টাকা বাঁচানোর ঠেলায় পরে যদি ডাক্তারের কাছে ছুটতে হয়, তাতে ঢের বেশি পয়সা খরচ হয়ে যাবে।

৭. ভ্যাজাইনাল ডিসকমফর্টকে অবহেলা করা

পেটে গন্ডগোল হলে যেমন পেট ব্যথা করে, অম্বল হলে বুক জ্বালা করে, ঠিক তেমনই যোনিদেশের স্বাস্থ্য কোনও কারণে বিগড়োলেও আপনি ঠিক বুঝতে পারবেন। সাদা স্রাব বেশি হওয়া, ভ্যাজাইনায় দুর্গন্ধ, চুলকানি ইত্যাদি সমস্যা চেপে রাখবেন না। একটুআধটু কেমন-কেমন লাগলেই ডাক্তারের পরামর্শ নিন। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়..