হাত-পা কাটাছড়া থেকে শুরু করে গরম তেলের ফোস্কা, বাড়িতেই তৈরি রাখুন অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম

হাত-পা কাটাছড়া থেকে শুরু করে গরম তেলের ফোস্কা, বাড়িতেই তৈরি রাখুন অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম

বাড়ির গৃহিণীদের হয় এই এক মুশকিল। সবজি কাটতে গিয়ে বা কড়াইতে গরম তেলে মাছ ভাজতে গিয়ে তাঁদের হাত হামেশাই কেটে (cuts) যায় বা পুড়ে (burns) যায়। তখন চারদিকে হইহই, খোঁজ খোঁজ, কোথায় গেল ক্রিম আর ওই লিকুইড অ্যান্টিসেপটিকটাই বা কোথায়? ড্রয়ার হাতড়ে বা বাড়ি তোলপাড় করে খুঁজেও বেশিরভাগ সময় সেটা পাওয়া যায়না। অত ঝামেলায় দরকার কী বাপু? আপনি যখন রান্নাবান্না করেন মানে হেঁশেল যখন আপনার জিম্মায় তখন সেখান থেকেই কয়েকটা জিনিস নিয়ে বাড়িতেই অ্যান্টিসেপটিক (antiseptic) ক্রিম (cream) তৈরি করে নিন। আপনার হাতের কাছেই থাকবে আর আপনারই  কাজে লাগবে। সবচেয়ে নিশ্চিন্ত হওয়ার বিষয় হল এই যে এই অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম তৈরি করতে যে সব উপাদান ব্যবহার করা হচ্ছে সেগুলো সবই আপনার নিজেরই হেঁশেলে হাতের কাছে রয়েছে। আর এই প্রত্যেকটা উপাদান প্রাকৃতিক। তাই এর থেকে কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হওয়ার কোনও আশঙ্কা নেই। 

কী কী লাগবে এই অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম বানাতে

Pixabay

মধু, হলুদ, নিম পাতা ও টি ট্রি অয়েল। চেষ্টা করবেন অরগ্যানিক বা খাঁটি মধু ব্যবহার করতে। কারণ মধু যত খাঁটি হবে তত তাড়াতাড়ি আপনার ক্ষত সেরে উঠবে। 

কীভাবে তৈরি করবেন?

দুই টেবিল চামচ মধু নিন। হাফ টেবিল চামচ হলুদ, হাফ টেবিল চামচ নিম পাউডার বা নিম পাতা বাটা এবং দশ ফোঁটা টি ট্রি অয়েল। এই সবগুলো মিশিয়ে ক্রিম তৈরি করে একটা কাচের পাত্রে রেখে দিন। 

কীভাবে স্টোর করবেন

এমনিতে এই অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম রুম টেম্পারেচার বা স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এক থেকে দুই সপ্তাহ থাকবে। আরও বেশি দিন রাখতে চাইলে অবশ্যই ফ্রিজে রাখবেন। ফ্রিজে এই ক্রিম তিন থেকে ছয় মাস থাকবে। তবে ব্যবহার করার পর কৌটোর ঢাকা ভাল করে বন্ধ করতে ভুলবেন না। কারণ জল এর মধ্যে গেলে এই অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম নষ্ট হয়ে যাবে। যেহেতু এর মধ্যে মধু আছে, মধুর স্বভাব হল চট করে বাতাস থেকে জল শুষে নেওয়া। তাইএই বিষয়ে একটু সাবধান থাকবেন। তবে এই ক্রিম কাটা বা পোড়া স্থানে লাগানোর পর সেই জায়গা খোলা রাখবেন না। এতে সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা থেকে যাবে। বরং একটা গজের কাপড় দিয়ে বেঁধে দেবেন বা একটা ব্যান্ডএইড লাগিয়ে নেবেন। 

কোন কোন ক্ষেত্রে এই অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম ব্যবহার করা যায়?

pixabay

ছোটখাট কাটা ছড়া, পুড়ে যাওয়া, ফোস্কা পড়া বা পোকায় কামড়ালে এই অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম আপনি ব্যবহার করতে পারেন। 

এই অ্যান্টিসেপটিক ক্রিমের কি কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে?

এমনিতে এই ক্রিম যে যে উপাদান দিয়ে তৈরি হচ্ছে তাতে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হওয়ার কোনও আশঙ্কা নেই। তবে যদি আপনার ত্বক একটু বেশি মাত্রায় অনুভূতিপ্রবণ হয় তাহলে একবার অল্প করে হাতে লাগিয়ে প্যাচ টেস্ট করে নেবেন।  

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এগুলোও আপনি পড়তে পারেন

বাড়িতে সাবান তৈরির কিছু শর্টকাট ফর্মুলা

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...