অন্য কোথাও যাওয়ার দরকার নেই, বাড়িতেই তৈরি করে ফেলুন 'মেডিটেশন কর্নার'!

অন্য কোথাও যাওয়ার দরকার নেই, বাড়িতেই তৈরি করে ফেলুন 'মেডিটেশন কর্নার'!

আজকাল আমরা অনেকেই meditation করি। কেউ ধ্যান করেন মনঃসংযোগ বাড়ানোর জন্য, আবার কেউ বা আবেগ নিয়ন্ত্রণের জন্য, আবার কেউ মেডিটেশন করেন শরীর ও মন – দুই’ই সুস্থ রাখার জন্য। মেডিটেশনের যে অনেক উপকারিতা, তা তো কম বেশি আমরা সবাই জানি; তবে কীভাবে মেডিটেশন করা উচিত, সে ব্যাপারে সঠিকভাবে কতজন আমরা জানি, তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে।

আজকাল পাড়ায় পাড়ায় অনেক মেডিটেশন ক্লাস চালু হয়েছে; আবার অনেকে নিজেরাই ইউটিউবের নানা ফ্রি চ্যানেল থেকে গাইডেড মেডিটেশন করেন। আমি এক্ষেত্রে একটা ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা ভাগ করতে চাই আপনাদের সঙ্গে, প্রথম প্রথম যখন আমি মেডিটেশন করার চেষ্টা করতাম, আমি ঘুমিয়েই পড়তাম! এই সমস্যাটা কিন্তু অনেকেরই হয়। বিশেষ করে যারা শুয়ে ধ্যান করেন, তাঁরা অনেক সময়েই ঘুমিয়ে পড়েন। আবার অনেকে বলেন যে তাঁরা কিছুতেই মনঃসংযোগ করতে পারেন না, তাই তাঁদের দ্বারা ধ্যান হয় না। আসল সমস্যা কিন্তু অন্য জায়গায়। মেডিটেশন করার জন্য প্রয়োজন উপযুক্ত একটি পরিস্থিতি, যা বেশিরভাগ সময়েই আমরা বুঝে উঠতে পারি না এবং সে’কারণেই আমরা ধ্যান করতেও পারি না।

সব সময়ে তো আর প্রকৃতির কোলে বসে ধ্যান করা সম্ভব নয়, কাজেই জেনে নিন, বাড়িতেই কীভাবে ‘মেডিটেশন কর্নার’ তৈরি করবেন!

বাড়িতেই কীভাবে মেডিটেশন কর্নার তৈরি করবেন

প্রথমত, মেডিটেশন বা ধ্যান করলে যেমন মনঃসংযোগ বৃদ্ধি পায়, ঠিক সেরকমই মেডিটেশন করার জন্যও মন স্থির করাটা খুব প্রয়োজন।  বাড়ির মধ্যে এমন একটি জায়গা (space) বাছুন যেখানে যথেষ্ট পরিমাণে আলো-বাতাস ঢোকে এবং বাইরের শব্দ খুব বেশি আসে না। যদি এরকম জায়গা না থাকে, তাহলে সম্ভব হলে, আপনার শোওয়ার ঘরের কোনও একটি জায়গা বেছে নিন যেখানে আপনি বসে meditation করতে পারেন।

জায়গা নির্বাচন হয়ে গেলে ধ্যান করার জায়গা বা মেডিটেশন কর্নারটি বেশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে ফেলুন। বাড়তি যা যা জিনিসপত্র রয়েছে, যেগুলো আপনি গত দশ বছরে সেভাবে ব্যবহার করেননি, সেগুলো ফেলে দিন। যেখানে বসে আপনি ধ্যান করবেন বলে মনস্থির করছেন, সেই জায়গাটি (space) গুছিয়ে রাখুন এবং অন্যান্য জায়গাও গুছিয়ে রাখুন। অগোছালো ঘরে মেডিটেশন করা খুব কঠিন।

আপনি বাড়ির মধ্যে যে ঘরেই মেডিটেশন করুন না কেন, সেখানে যেন খুব বেশি ইলেকট্রনিক সরঞ্জাম না থাকে। সম্ভব হলে এমন কোনও একটি জায়গাকে মেডিটেশন কর্নার বানিয়ে ফেলুন যেখানে ল্যাপটপ, টিভি, মোবাইল ফোন ইত্যাদি থাকবে না। চাইলে কিছু ইন্ডোর প্ল্যান্টস লাগাতে পারেন, এতে meditation করতে সুবিধে হবে।

যাতে আপনি আপনার বাড়ির ছোট্ট মেডিটেশন কর্নারে (space) মন দিয়ে ধ্যান করতে পারেন সেজন্য প্রয়োজন হলে কিছু বাড়তি সরঞ্জাম রাখতে পারেন। যখন meditation করতে বসবেন, তখন হালকা সুগন্ধের ধুপ জ্বালাতে পারেন। চাইলে ক্রিস্টাল রাখতে পারেন বা হালকা মিউজিক চালিয়ে নিতে পারেন ব্যাকগ্রাউন্ডে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...