শীতের মরসুমে ত্বকের দেখভালে ভরসা রাখুন কমলালেবুর উপরে, রইল নানা রূপটানের হদিশ

শীতের মরসুমে ত্বকের দেখভালে ভরসা রাখুন কমলালেবুর উপরে, রইল নানা রূপটানের হদিশ

হালকা শীতে রোদ গায়ে মেখে কমলালেবু খাওয়ার মজাই আলাদা। ফলটা স্বাদে যতটা মিটে, ততটাই উপকারীও বটে। এতে উপস্থিত ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সহ নানা ভিটামিন এবং মিনারেলের গুণে ছোট-বড় নানা রোগ যেমন ধারেকাছে ঘেঁষতে পারে না, তেমনই রূপচর্চায় যদি কমলালেবুকে কাজে লাগানো যায়, তা হলে ত্বক নিয়ে যে-কোনও চিন্তাই থাকবে না, সেকথাও হলফ করে বলা যেতে পারে। শীতের মরসুম মানে ড্রাই স্কিনের সমস্যা তো হবেই। সঙ্গে লেজুড় হতে পারে ব্রণ সহ নানা ত্বকের রোগ। তাই একটু সাবধান না হলে চলবে কীভাবে বলুন! আর সেই জন্য বছরের এই সময় কমলালেবু দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক (Face Pack) মুখে লাগানো মাস্ট! তাতে প্রথমত, ত্বকের ভিতরে জমে থাকা টক্সিক উপাদানগুলি বেরিয়ে যেতে বাধ্য হবে। ফলে ত্বকের লাবণ্য বাড়বে। সেই সঙ্গে citric acid-এর গুণে ব্রণর প্রকোপ তো কমবেই, সঙ্গে আর্দ্রতা বজায় থাকবে এবং ত্বকের বয়সও কমবে। কিন্তু প্রশ্ন হল কমলালেবু দিয়ে কীভাবে ফেসপ্যাক তৈরি করতে হয়, সে সম্পর্কে জানা আছে কি?

১. পেঁপে এবং কমলালেবু

একটা কমলালেবু এবং এক বাটি পেঁপে নিয়ে ভাল করে চটকে নিয়ে সেই পেস্ট মুখে এবং গলায় লাগিয়ে কম করে মিনিটকুড়ি অপেক্ষা করতে হবে। সময় হওয়ামাত্র ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিলেই চলবে। সপ্তাহে বারদু'য়েক এই পেস্ট মুখে লাগালে ত্বকের ভিতরে ভিটামিন সি এবং ভিটামিন এ-এর মাত্রা বাড়তে শুরু করবে, যে কারণে দাগ-ছোপ দূর হতে সময় লাগবে না। সেই সঙ্গে ত্বকের লাবণ্যও বাড়বে ষোলো আনা।

২. কলা এবং কমলালেবু

ত্বকের যত্নে কলার কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। আর সেই কলার সঙ্গে যদি কমলালেবু মিশিয়ে মুখে লাগানো যায়, তা হলে তো কোনও কথাই নেই! কলা এবং কমলালেবুতে উপস্থিত নানা উপকারী উপাদানের গুণে ত্বকের ভিতরে প্রদাহের মাত্রা কমবে, যে কারণে নানা ত্বকের রোগের খপ্পরে পড়ার আশঙ্কা আর থাকবে না। সেই সঙ্গে ত্বকের আর্দ্রতাও বজায় থাকবে, যা শীতের মরসুমে (winter) ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য খুবই জরুরি। এত সব উপকার পেতে একটা কমলালেবু এবং একটা পাকা কলা নিয়ে ভাল করে চটকে নিয়ে সেই পেস্ট সারা মুখে ভাল করে লাগিয়ে মিনিপনেরো অপেক্ষা করে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। সপ্তাহে বারতিনেক এই ভাবে ত্বকের যত্ন নিলেই উপকার মিলতে শুরু করবে।

৩. নিম এবং কমলালেবু

একটা বাটিতে দুই চামচ দুয়েক নিম পাতা, সম পরিমাণ কমলালেবুর খোসার গুঁড়ো এবং এক চামচ সয়া দুধ মিশিয়ে তৈরি পেস্ট মুখে লাগিয়ে মিনিটকুড়ি অপেক্ষা করুন। সময় হলে ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে বারচারেক এই ফেসপ্যাক মুখে লাগালে ব্রণর প্রকোপ তো কমবেই, সঙ্গে লোমকূপগুলিও খুলে যাবে, যে কারণে ত্বকের (Face) সৌন্দর্য বাড়বে বই কী!

৪. গ্রিন টি এবং কমলালেবু

ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে আর্দ্রতা বজায় রাখাটা যেমন জরুরি, তেমনই ত্বকের উপরে মৃত কোষের যে আবরণ পড়েছে, তা পরিষ্কার করে ফেলাটাও আবশ্যিক। আর ঠিক এই দুটি কাজই করে থাকে এই ফেসপ্যাকটি। গ্রিন টি এবং কমলালেবুতে রয়েছে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতিতে বিশেষ ভূমিকা নেয়। অন্যদিকে এই ফেসপ্যাকটি মুখে জমে থাকা মৃত কোষগুলিকে ধুয়ে ফেলে। ফলে ত্বকের লাবণ্য বাড়তে লময় লাগে না। এখন প্রশ্ন হল, এত সব উপকার পেতে ফেসপ্যাকটি কীভাবে তৈরি করতে হবে? এক্ষেত্রে চামচ দুয়েক গ্রিন টি পাতার সঙ্গে সম পরিমাণ কমলালেবুর কোয়া মিশিয়ে ভাল করে চটকে নিয়ে তৈরি পেস্ট মুখে লাগাতে হবে। এরপর মিনিটকুড়ি অপেক্ষার পরে মুখ ধুতে হবে। সপ্তহে বার তিনেক এই ফেসপ্যাকটি মুখে লাগাতে হবে, তবেই কিন্তু উপকার মিলবে।

অ্যালার্জি থেকে সাবধান

কমলালেবুর কারণে আপনার অ্যালার্জি হয় কিনা যদি জানা না থাকে, তাহলে এই সব ফেসপ্যাক মুখে লাগানোর আগে অল্প করে হাতে লাগিয়ে একবার দেখে নিন কোনও খারাপ রিঅ্যাকশন হচ্ছে কিনা। যদি দেখেন চুলকানি বা অ্যালার্জির মতো সমস্যা হচ্ছে না, তাহলে নিশ্চিন্তে রূপচর্চায় কমলালেবু কাজে লাগাতে পারেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...