সেক্স (sex) লাইফ নিয়ে মুখে কুলুপ আঁটাটাই বুদ্ধিমানের কাজ। in bengali | POPxo

পার্টনারের সঙ্গে কাটানো ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের কথা বন্ধুদের বলা উচিত নয়! কেন জানেন?

পার্টনারের সঙ্গে কাটানো ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের কথা বন্ধুদের বলা উচিত নয়! কেন জানেন?

'গার্লস টক' এর মজাই আলাদা। তা ছাড়া এর-ওর প্রসঙ্গে একটু গসিপ না করলে চলে বলুন! কিন্তু তাই বলে নিজে যেন কখনও গসিপের পাত্র হয়ে উঠবেন না, তা হলে মান সম্মান তো যাবেই, সঙ্গে হাজার লোকের সামনে মাথাও হেঁট হয়ে যতে পারে। কেন একথা বলছি তাই ভাবছেন? আসলে কী জানেন, আপনাদের মধ্যে অনেকেই নিজেদের ব্যক্তিগত জীবনের কথা ফলাও করে বন্ধু-বান্ধবদের বলে থাকেন। বিশেষ করে সেক্স লাইফ নিয়ে রসিয়ে গল্প করতে তো অনেকেই বেশ পছন্দ করেন, যা মোটেও ভাল অভ্যাস নয়। কিন্তু বন্ধুদের এসব কথা বলতে ক্ষতি কী? মনে রাখবেন যাঁরা গসিপ করেন, তাঁরা কিন্তু বন্ধু-প্রতিপক্ষ, সকলকে নিয়েই সমালোচনা করতে প্রস্তুত থাকেন। তাছাড়া সেক্স লাইফ (Sex Life) নিয়েই তো গসিপের আড্ডা সবচেয়ে বেশি গরম হয়ে ওঠে। তাই আপনি বন্ধু বলে যে পার পেয়ে যাবেন, এমন কথা ভেবে থাকলে আপনার মতো বোকা আর কেউ নেই। এবার বুঝতেই পারছেন, এসব কথা মুখ ফসকে বলে ফেলার বিপদ অনেক! শুধু তাই নয়, ব্যক্তিগত মুহূর্তের কথা পাঁচ কান হলে আরও কিছু ক্ষতিও হতে পারে। যেমন ধরুন...

১. বরের সঙ্গে মনোমালিন্য হতে পারে

পার্টনারের সঙ্গে কাটানো কোনও ঘনিষ্ট মুহূর্তের কথা কি মুখ ফসকে বন্ধুদের (Friends) বলে ফেলেছেন? তা হলে সময়-সুযোগ বুঝে সে কথা একবার বরের কানে দিয়ে রাখুন। কেন এমন উপদেশ, তাই ভাবছেন? একবার ভাবুন তো আপনার বলা কথাগুলি যদি কোনও বন্ধু মুখ ফসকে আপনার বরের সামনেই ফাঁস করে দেন, তাহলে আপনার কী হবে! তাই আগে থাকতে নিজের দোষটা স্বীকার করে নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ, তাতে বরের সঙ্গে মন কষাকষি হওয়ার আশঙ্কা একটু হলেও কমবে বই কী! তাছাড়া নিজের ভুলটা যে আপনি ধরতে পেরেছেন, সে কথাও পার্টনার বুঝতে পারবেন। ফলে কোনও ধরনের ভুল-বোঝাবুঝি মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার আশঙ্কা আর থাকবে না। এবার বুঝেছেন তো, সেক্স লাইফ নিয়ে গল্প করার ঝামেলা কত!

২. আপনার মান সম্মান ক্ষুন্ন হতে পারে

আজকের দিনে সবাই সবার ক্ষতি চায়। বিশেষ করে বন্ধু সেজে ক্ষতি করার লোকের সংখ্যা তো নেহাতই কম নয়। এমন কোনও বন্ধুকে যদি নিজের সেক্স লাইফের কথা জানিয়ে ফেলেন, তা হলে সেই নিয়ে যে সমালোচনার ঝড় উঠবেই, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। এই সব শুনে আনেকে আপানকে নিয়ে হাসাহাসিও করতে পারেন। তখন আপনার সম্মান থাকবে তো? এই কারণেই বন্ধুদের সঙ্গে এই সব বিষয় নিয়ে আলোচনা করাই উচিত নয়। বিশেষ করে যাঁরা গসিপ করতে ভালবাসেন, তাঁদের কাছে তো নিজের ব্যক্তিগত জীবন সংক্রান্ত কোনও কথাই বলা চলবে না।

৩. ভুল পরামর্শে বড় কোনও ভুল হয়ে যতে পারে

যাঁদের সেক্স (sex) লাইফ খুব মজাদার, তাঁরাই তো এসব নিয়ে কথা বলতে ভালবাসেন। কিন্তু এই সব নিয়ে গল্প করতে গিয়ে অন্য দিকে বিপদ ঘটে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। আপনার সুখী দাম্পত্য জীবনের কথা শুনে যে সবাই মন থেকে খুশি হচ্ছেন, তা কিন্তু নয়। হতে পারে আপনার বন্ধু সার্কলে অনেকেই নিজেদের সেক্স লাইফ নিয়ে খুশি নন। এমন পরিস্থিতিতে বারে-বারে আপনার সেক্স লাইন নিয়ে গল্প শুনতে শুনতে কেউ ঈর্ষান্বিত হতেই পারেন। আর সেই ইর্ষার চোটে কেউ যে আপনাকে ভুল উপদেশ দেবেন না, সেই গ্যারান্টি কি আপনি দিতে পারেন? এমনটা তো হতেই পারে যে আপনার ক্ষতি চেয়ে কোনও বন্ধু এমন কোনও উপদেশ দিলেন, যা আখেরে আপনার বৈবাহিক জীবনকে তছনছ করে দিতে পারে। তাই মুখে কুলুপ এঁটে থাকাটাই বুদ্ধিমানের কাজ।

৪. নিজেকে প্রশ্ন করুন

আপনি যেভাবে ব্যক্তিগত মুহূর্তের কথা পাঁচ কান করছেন, ঠিক তেমনটাই যদি আপনার বর করতেন, তা হলে কি আপনার ভাল লাগতো। উত্তর যদি 'না' হয়, তা হলে আপনি সেই ভুল কাজটা করছেন কেন? তাই থেমে যান। এবার থামার সময় হয়েছে। প্রয়োজনে একটু ভেবে-চিন্তে কথা বলুন। কথা বলার আগে নিজেকে হাজার বার প্রশ্ন করুন যে, এই কথাটা কাউকে বলা যায় কিনা। হতেই পারেন আপনি পেট পাতলা। কিন্তু এই নীতিগুলি মানলে দেখবেন বিপদ একটু হলেও কমবে!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...